পরবর্তী অধিবেশন অক্টোবরে বসবে সেখানে সড়ক পরিবহন আইন পাস হবে

জাতীয় সংসদে সড়ক পরিবহন আইন উপস্থাপন করবো। সংসদে পরবর্তী অধিবেশন অক্টোবরে বসবে সেখানে সড়ক পরিবহন আইন পাস হবে ইনশাল্লাহ বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মিলনায়তনে ঢাকা যানবাহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষ এর ১১তম বোর্ড সভায় তিনি একথা বলেন। ওবায়দুল কাদের জানান, আগামী রোববার সংসদে সড়ক পরিবহন আইন উত্থাপিত হবে। সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে সংসদের চলতি অধিবেশন শেষ হবে এবং অক্টোবরের শুরুতে আরেকটি অধিবেশন বসবে বলেও তিনি জানান।এ ছাড়া আজকের সভায় সিদ্ধান্ত হয় মোটরসাইকেলের শিশু আরোহীকেও বাধ্যতামূলকভাবে হেলমেট পরতে হবে। এ ছাড়া আগামী ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত ঢাকা-জয়দেবপুর মহাসড়কে সব ধরনের খোড়াখুড়ি বন্ধ রাখারও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় এই বৈঠকে।প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি মামা বাড়ির পুরনো আবদার। প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করে কার কাছে দায়িত্ব দেবেন? দেশে কি কোনো সংবিধান থাকবে না, আইন-কানুন থাকবে না? এটা যেন তাদের মামা বাড়ির পুরনো আবদার।ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা সংবিধানের বাইরে যাবো না, যাচ্ছিও না। অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশে যেভাবে নির্বাচন হয়, আমাদের দেশেও সেভাবেই নির্বাচন হবে।জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতিয়েরেসের আমন্ত্রণে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের জাতিসংঘে যাওয়া প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, জাতিসংঘ যদি তাকে আমন্ত্রণ করে, তারা যদি দলের প্রতিনিধিদের নিয়ে জাতিসংঘের মহাসচিবের সঙ্গে দেখা করেন, তাতে কোনো অসুবিধা নেই। জাতিসংঘের মহাসচিবের সঙ্গে কী এজেন্ডা আছে আমি তা জানি না। নির্বাচন নিয়েও আলোচনা হতে পারে। তারা তো জাতিসংঘে অবিরাম অভিযোগ দিয়েই যাচ্ছে। দেশের বিরুদ্ধে নালিশ করছে, সরকারের বিরুদ্ধে নালিশ করছে, সেসব নালিশের ব্যাপারে তাদের মতামত কী, সামনাসামনি তাদের পলিটিক্যাল উইং আলাপ করতে পারে বলে অনুমান করছি। সেটা নিয়ে আমাদের আপত্তি করার বিষয় নয়। আমাদের শক্তির উৎস এদেশের জনগণ। নির্বাচনে জনগণ পছন্দের প্রার্থীকে নির্বাচিত করবে। আমাদের সিদ্ধান্ত, কোনো সংবিধানবর্হিভূত ‘প্রেসারের’ বা চাপের কাছে আমরা মাথা নত করবো না। আর নির্বাচনকালীন সরকারের বিএনপিকে তো আমন্ত্রণ করিনি, তারা তো সংসদে নেই।বিএনপির উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, আন্দোলন করেন, জনগণকে নিয়ে করেন। আন্দোলন অহিংস করলে শান্তি। আর যদি সহিংস হয় তাহলে জনগণকে নিয়ে আমরা প্রতিহত করবো।’
ঢাকা,বুধবার,১২ সেপ্টম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» বুড়িমারী স্থলবন্দর ও মোংলা বন্দরে ঘুষ ছাড়া কোনও কাজ হয় না-টিআইবি

» ৭ উইকেট হারিয়ে ২৩৭ রান করেছে পাকিস্তান

» আফগানিস্তানকে ২৫০ রানের টার্গেট দিয়েছে বাংলাদেশ

» নারায়ণগঞ্জে স্কুলছাত্রী মোনালিসা ধর্ষণ ও হত্যা মামলার আসামীকে আটকের পর দেশে আনা হলো

» ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন

» জনগণের ঐক্যবদ্ধ শক্তির কাছে বন্দুকের জোর বেশি দিন টেকে না, টিকতে পারে না-রিজভী

» আওয়ামী লীগের মতো জনপ্রিয় দলকে বাদ দিয়ে ঐক্য তা হবে জাতীয়তাবাদী সাম্প্রদায়িক ঐক্য

» গাজীপুরে ‘নিউটেক্স কারখানা’র শ্রমিকদের সড়ক অবরোধ

» রাজধানী মধ্যবাড্ডা লিংক রোডে বাসের ধাক্কায় অজ্ঞাত এক যুবক নিহত হয়েছেন।

» ডিএনসিসি’র প্যানেল মেয়র মোঃ ওসমান গণির মরদেহ ঢাকায় পৌঁছেছে

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

পরবর্তী অধিবেশন অক্টোবরে বসবে সেখানে সড়ক পরিবহন আইন পাস হবে

জাতীয় সংসদে সড়ক পরিবহন আইন উপস্থাপন করবো। সংসদে পরবর্তী অধিবেশন অক্টোবরে বসবে সেখানে সড়ক পরিবহন আইন পাস হবে ইনশাল্লাহ বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।বুধবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মিলনায়তনে ঢাকা যানবাহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষ এর ১১তম বোর্ড সভায় তিনি একথা বলেন। ওবায়দুল কাদের জানান, আগামী রোববার সংসদে সড়ক পরিবহন আইন উত্থাপিত হবে। সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে সংসদের চলতি অধিবেশন শেষ হবে এবং অক্টোবরের শুরুতে আরেকটি অধিবেশন বসবে বলেও তিনি জানান।এ ছাড়া আজকের সভায় সিদ্ধান্ত হয় মোটরসাইকেলের শিশু আরোহীকেও বাধ্যতামূলকভাবে হেলমেট পরতে হবে। এ ছাড়া আগামী ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত ঢাকা-জয়দেবপুর মহাসড়কে সব ধরনের খোড়াখুড়ি বন্ধ রাখারও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় এই বৈঠকে।প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি মামা বাড়ির পুরনো আবদার। প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করে কার কাছে দায়িত্ব দেবেন? দেশে কি কোনো সংবিধান থাকবে না, আইন-কানুন থাকবে না? এটা যেন তাদের মামা বাড়ির পুরনো আবদার।ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা সংবিধানের বাইরে যাবো না, যাচ্ছিও না। অন্যান্য গণতান্ত্রিক দেশে যেভাবে নির্বাচন হয়, আমাদের দেশেও সেভাবেই নির্বাচন হবে।জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতিয়েরেসের আমন্ত্রণে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের জাতিসংঘে যাওয়া প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে কাদের বলেন, জাতিসংঘ যদি তাকে আমন্ত্রণ করে, তারা যদি দলের প্রতিনিধিদের নিয়ে জাতিসংঘের মহাসচিবের সঙ্গে দেখা করেন, তাতে কোনো অসুবিধা নেই। জাতিসংঘের মহাসচিবের সঙ্গে কী এজেন্ডা আছে আমি তা জানি না। নির্বাচন নিয়েও আলোচনা হতে পারে। তারা তো জাতিসংঘে অবিরাম অভিযোগ দিয়েই যাচ্ছে। দেশের বিরুদ্ধে নালিশ করছে, সরকারের বিরুদ্ধে নালিশ করছে, সেসব নালিশের ব্যাপারে তাদের মতামত কী, সামনাসামনি তাদের পলিটিক্যাল উইং আলাপ করতে পারে বলে অনুমান করছি। সেটা নিয়ে আমাদের আপত্তি করার বিষয় নয়। আমাদের শক্তির উৎস এদেশের জনগণ। নির্বাচনে জনগণ পছন্দের প্রার্থীকে নির্বাচিত করবে। আমাদের সিদ্ধান্ত, কোনো সংবিধানবর্হিভূত ‘প্রেসারের’ বা চাপের কাছে আমরা মাথা নত করবো না। আর নির্বাচনকালীন সরকারের বিএনপিকে তো আমন্ত্রণ করিনি, তারা তো সংসদে নেই।বিএনপির উদ্দেশে ওবায়দুল কাদের বলেন, আন্দোলন করেন, জনগণকে নিয়ে করেন। আন্দোলন অহিংস করলে শান্তি। আর যদি সহিংস হয় তাহলে জনগণকে নিয়ে আমরা প্রতিহত করবো।’
ঢাকা,বুধবার,১২ সেপ্টম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY Abir bbm