পাকিস্তানের বিপক্ষে দাপুটে জয় নিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে বাংলাদেশ

Spread the love

পাকিস্তানের বিপক্ষে দাপুটে জয় নিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে পৌঁছেছে বাংলাদেশ দল।ম্যাচে ৩৭ রানের জয় তুলে নিয়ে টানা এ নিয়ে আসরে তৃতীয়বারের মতো ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ। এর আগে ২০১২ ও ২০১৪ সালে ঘরের মাঠে এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠেছিল তারা। দু’বার রানার্সআপ হয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছিল তাদের। ৫০ ওভারে পাকিস্তান দল শেষ পর্যন্ত সংগ্রহ করে ২০২ রান। আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে বাংলাদেশ ৩৭ রানে হারিয়েছে পাকিস্তানকে। বাংলাদেশের করা ২৩৯ রানের জবাবে প্রতিপক্ষের ইনিংস থেমে যায় ২০২ রানে।বাংলাদেশের বিপক্ষে ২৪০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই চাপের মুখে পড়ে পাকিস্তান দল। ইনিংসের পঞ্চম বলে মেহেদি হাসান মিরাজের বোলিংয়ে মিড অনে দাঁড়ানো রুবেল হোসেনের হাতে ক্যাচ তুলে দেন ফাখর জামান। ৪ বল খেলে ১ রান করে সাঁজঘরে ফেরেন তিনি।
পরের ওভারের দ্বিতীয় বলেই পাকিস্তানের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান বাবর আজমকে সাজঘরের ঠিকানা দেখান কাটার মাস্টার। বাংলাদেশ শিবিরে তখন অনেকটাই স্বস্তি বিরাজ করছিল কারণ ১৮ রানেই পাকিস্তানের তিন উইকেট তুলে নেন টাইগাররা। তবে শোয়েব মালিক এবং ইমাম-উল হক ৬৮ রানের জুটিতে পাকিস্তান শিবিরে কিছুটা স্বস্তি আসলেও ২১তম ওভারে রুবেলের বলে শোয়েব মালিক ফেরার পর স্বস্তি মেলে বাংলাদেশ শিবিরে।তবে এরপর আসিফ ও ইমাম আলীর জুটিও এগোচ্ছিল ভালো স্কোরের দিকেই। তবে সেই জুটিও সাঁজঘরে ফেলে মেহেদি হাসান মিরাজ ও মাহমুদউল্লাহর নৈপুণ্যে। এরপর বাংলাদেশ দলের জয় ছিল অপেক্ষা মাত্র। শেষ পর্যন্ত ৫০ ওভারে ২০২ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান দল। টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ছিল যাচ্ছেতাই। ১২ রান তুলতেই নেই ৩ উইকেট। সৌম্য ফিরলেন শূন্য রানে। লিটন দাস (৬), এবং মুমিনুল (৫) দু’জনই ব্যার্থ।
এরপরই ত্রাতা হয়ে আসেন মুশফিক। তাকে সঙ্গ দেন মোহাম্মদ মিঠুন। ১৪৪ রানের জুটি বেধে দলকে খাঁদের কিনারা থেকে তুলে আনেন। ৬০ রানে হাসান আলীর বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন মিঠুন।
গত ম্যাচে দারুণ পারফম্য করা ইমরুল কায়েস এদিন সুবিধা করতে পারেননি। ৯ রানে এলবিডব্লউ’র ফাঁদে পড়েন শাদাব খানের বলে।
মুশফিককে ১ রানের আফসোসে ফেলে দেন তরুণ পেসার শাহীন আফ্রিদি। ৯৯ রানে উইকেটের পেছনে সরফরাজের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন মুশফিক। ৩১ বলে ২৫ রানে নামেন মাহমুদুল্লাহ। মিরাজ ১২ এবং মাশরাফির ব্যাট থেকে আসে ১৩ রান।৪৮.৫ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ করে ২৩৯ রান।
ক্রীড়া ডেস্ক,বৃহস্পতিবার,২৭ সেপ্টম্বর, এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» উত্তরায় গাড়িমুক্ত সড়ক উদ্বোধন করলেন ডিএনসিসি মেয়র

» খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে নয়াপল্টনে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল

» দিবারাত্রির টেস্টে,টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশ

» ইডেন গার্ডেন্সে দিবারাত্রি টেস্ট খেলা দেখতে কলকাতা পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

» বাংলাদেশে ব্যবসা বাণিজ্য পরিচালনার জন্য নিজস্ব কার্লয় স্থাপন করতে চায় তুরস্ক

» জাতিগঠনে অনন্য ভূমিকা রাখতে সক্ষম আমাদের টেলিভিশন:তথ্যমন্ত্রী

» আন্তর্জাতিক মানে উপনীত হলো ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তন

» নতুন সড়ক পরিবহন আইন প্রয়োগে বাড়াবাড়ি করা হবে না-ওবায়দুল কাদের

» ভৈরবে চট্টগ্রামগামী নাসিরাবাদ মেইল ট্রেনের একটি বগি লাইনচ্যুত

» অপপ্রচার চালিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা হয়। এই অপপ্রচারে কান দেবেন না-প্রধানমন্ত্রী

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পাকিস্তানের বিপক্ষে দাপুটে জয় নিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে বাংলাদেশ

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

পাকিস্তানের বিপক্ষে দাপুটে জয় নিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনালে পৌঁছেছে বাংলাদেশ দল।ম্যাচে ৩৭ রানের জয় তুলে নিয়ে টানা এ নিয়ে আসরে তৃতীয়বারের মতো ফাইনালে উঠেছে বাংলাদেশ। এর আগে ২০১২ ও ২০১৪ সালে ঘরের মাঠে এশিয়া কাপের ফাইনালে উঠেছিল তারা। দু’বার রানার্সআপ হয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছিল তাদের। ৫০ ওভারে পাকিস্তান দল শেষ পর্যন্ত সংগ্রহ করে ২০২ রান। আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে বাংলাদেশ ৩৭ রানে হারিয়েছে পাকিস্তানকে। বাংলাদেশের করা ২৩৯ রানের জবাবে প্রতিপক্ষের ইনিংস থেমে যায় ২০২ রানে।বাংলাদেশের বিপক্ষে ২৪০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই চাপের মুখে পড়ে পাকিস্তান দল। ইনিংসের পঞ্চম বলে মেহেদি হাসান মিরাজের বোলিংয়ে মিড অনে দাঁড়ানো রুবেল হোসেনের হাতে ক্যাচ তুলে দেন ফাখর জামান। ৪ বল খেলে ১ রান করে সাঁজঘরে ফেরেন তিনি।
পরের ওভারের দ্বিতীয় বলেই পাকিস্তানের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান বাবর আজমকে সাজঘরের ঠিকানা দেখান কাটার মাস্টার। বাংলাদেশ শিবিরে তখন অনেকটাই স্বস্তি বিরাজ করছিল কারণ ১৮ রানেই পাকিস্তানের তিন উইকেট তুলে নেন টাইগাররা। তবে শোয়েব মালিক এবং ইমাম-উল হক ৬৮ রানের জুটিতে পাকিস্তান শিবিরে কিছুটা স্বস্তি আসলেও ২১তম ওভারে রুবেলের বলে শোয়েব মালিক ফেরার পর স্বস্তি মেলে বাংলাদেশ শিবিরে।তবে এরপর আসিফ ও ইমাম আলীর জুটিও এগোচ্ছিল ভালো স্কোরের দিকেই। তবে সেই জুটিও সাঁজঘরে ফেলে মেহেদি হাসান মিরাজ ও মাহমুদউল্লাহর নৈপুণ্যে। এরপর বাংলাদেশ দলের জয় ছিল অপেক্ষা মাত্র। শেষ পর্যন্ত ৫০ ওভারে ২০২ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান দল। টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ছিল যাচ্ছেতাই। ১২ রান তুলতেই নেই ৩ উইকেট। সৌম্য ফিরলেন শূন্য রানে। লিটন দাস (৬), এবং মুমিনুল (৫) দু’জনই ব্যার্থ।
এরপরই ত্রাতা হয়ে আসেন মুশফিক। তাকে সঙ্গ দেন মোহাম্মদ মিঠুন। ১৪৪ রানের জুটি বেধে দলকে খাঁদের কিনারা থেকে তুলে আনেন। ৬০ রানে হাসান আলীর বলে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন মিঠুন।
গত ম্যাচে দারুণ পারফম্য করা ইমরুল কায়েস এদিন সুবিধা করতে পারেননি। ৯ রানে এলবিডব্লউ’র ফাঁদে পড়েন শাদাব খানের বলে।
মুশফিককে ১ রানের আফসোসে ফেলে দেন তরুণ পেসার শাহীন আফ্রিদি। ৯৯ রানে উইকেটের পেছনে সরফরাজের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন মুশফিক। ৩১ বলে ২৫ রানে নামেন মাহমুদুল্লাহ। মিরাজ ১২ এবং মাশরাফির ব্যাট থেকে আসে ১৩ রান।৪৮.৫ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ করে ২৩৯ রান।
ক্রীড়া ডেস্ক,বৃহস্পতিবার,২৭ সেপ্টম্বর, এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com