HbNews24.com_দৈনিক হৃদয়ে বাংলাদেশ

পোশাক শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ৮ হাজার টাকা নির্ধারণ করেছে সরকার

পোশাক শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ৮ হাজার টাকা নির্ধারণ করেছে সরকার জানিয়েছেন,শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আগামী ডিসেম্বরে প্রজ্ঞাপন প্রকাশের পর এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।’শ্রমিক অসন্তোষ দূর করার জন্যে গত জানুয়ারিতে পোশাক শ্রমিকদের মজুরি নির্ধারণ করতে বোর্ড গঠন করে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।শ্রম প্রতিমন্ত্রী জানান, আগের ঘোষিত মজুরির চেয়ে নতুন কাঠামোতে মজুরি বেড়েছে ৫১ শতাংশ। আগে ন্যূনতম মজুরি ছিলো পাঁচ হাজার ৩০০ টাকা।
শ্রম আইন অনুযায়ী, ২০১৩ সালে সর্বশেষ এই খাতের জন্য মজুররি বোর্ড গঠন করে মজুরি ঘোষণা করা হয়। আগে ন্যূনতম মজুরি ছিল পাঁচ হাজার ৩০০ টাকা। এবার বেড়েছে দুই হাজার ৭০০ টাকা।
নতুন মজুরিতে ন্যূনতম মূল বেতন চার হাজার ১০০ টাকা, বাড়ি ভাড়া দুই হাজার ৫০ টাকা, চিকিৎসা ভাতা ৬০০, যাতায়াত ভাতা ৩৫০ টাকা, খাদ্য ভাতা ৯০০ টাকা বলে জানিয়েছেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী।সংবাদ সম্মেলনে শ্রম প্রতিমন্ত্রী চুন্নু বলেন, যে শ্রমিক আজকে অ্যাপায়নমেন্ট পাবে সেই শ্রমিক সব মিলিয়ে আট হাজার টাকা পাবে। আর এভাবে গ্রেড অনুযায়ী বেতন আরো বাড়বে। কোনো শ্রমিক যে কোন গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে নতুন ঢুকলে, কোনো মালিক তাকে আট হাজার টাকার নিচে দেওয়ার সুযোগ নাই। এটা আমাদের শ্রমিকদেরও দাবি ছিলো। আমরাও মনে করি প্রধানমন্ত্রী যে সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন সেটা যুযোগপযোগী এবং দুই পক্ষের জন্য যৌক্তিক। ওয়েজ বোর্ডের সদস্যরাও একমত হয়েছেন, আমরা প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে গ্রহণ করেছি।
পাঁচ বছর শেষ হওয়ার পর ডিসেম্বরে এই কাঠামো কার্যকর হবে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী শ্রমিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আশা করি আপনারা এই বেতনে সন্তোষ্ট হবেন এবং উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি করে দেশের অর্থনীতিকে মজবুত করার জন্য কাজ করে যাবেন। মালিক পক্ষের সদস্য ও বিজিএমইএ এর সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বলেন, শত প্রতিকূলতার মাঝেও যেহেতু প্রধানমন্ত্রী আমাদের নির্দেশনা দিয়েছেন সেজন্য আট হাজার টাকা দিতে একমত হয়েছি। এটা আগামী ডিসেম্বরের বেতন থেকে কার্যকর হবে।
সংবাদ সম্মেলনে বোর্ডের নিরপেক্ষ সদস্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. কামাল উদ্দিন, মালিক পক্ষের স্থায়ী প্রতিনিধি সাইফুদ্দিন আহমেদ, জাতীয় শ্রমিক লীগের কার্যকরী সভাপতি আব্দুল হক মন্টু, সরকার পক্ষের প্রতিনিধি হিসেবে শ্রমিক লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার ভূঁইয়া উপস্থিত ছিলেন।
ঢাকা,বৃহস্পতিবার,১৩ সেপ্টম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» পাইপলাইনের নির্মাণকাজ যৌথভাবে উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা ও নরেন্দ্র মোদি

» র‌্যাবের নতুন অতিরিক্ত মহাপরিচালক কর্নেল জাহাঙ্গীর আলম

» হোটেল সারিনার অনুসন্ধান-সংক্রান্ত কাগজপত্র খতিয়ে দেখতে জব্দ করল দুদক

» গাজীপুরে মাদরাসা শিক্ষকের স্ত্রী ও শিশু শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার

» শখ থেকে কোয়েল চাষে স্বপ্ন পূরণ কলাপাড়ায় প্রথম বাণিজ্যিকভাবে চালু হয়েছে খামার

» ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার বিচারকাজ শেষ,রায় আগামী ১০ অক্টোবর

» পবিত্র আশুরা উপলক্ষে তাজিয়া মিছিলকে ঘিরে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা-ডিএমপি কমিশনার

» দলীয় সরকারের অধীনেও সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সম্ভব – টিআইবি

» খুনি নূর চৌধুরীকে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে কানাডা সরকারের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা চলছে

» আশুলিয়ায় প্রাইভেটকার আটকে ২ হিজড়াসহ ৩ জনকে গুলি করেছে দুর্বৃত্তরা

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

পোশাক শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ৮ হাজার টাকা নির্ধারণ করেছে সরকার

পোশাক শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি ৮ হাজার টাকা নির্ধারণ করেছে সরকার জানিয়েছেন,শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আগামী ডিসেম্বরে প্রজ্ঞাপন প্রকাশের পর এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে।’শ্রমিক অসন্তোষ দূর করার জন্যে গত জানুয়ারিতে পোশাক শ্রমিকদের মজুরি নির্ধারণ করতে বোর্ড গঠন করে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।শ্রম প্রতিমন্ত্রী জানান, আগের ঘোষিত মজুরির চেয়ে নতুন কাঠামোতে মজুরি বেড়েছে ৫১ শতাংশ। আগে ন্যূনতম মজুরি ছিলো পাঁচ হাজার ৩০০ টাকা।
শ্রম আইন অনুযায়ী, ২০১৩ সালে সর্বশেষ এই খাতের জন্য মজুররি বোর্ড গঠন করে মজুরি ঘোষণা করা হয়। আগে ন্যূনতম মজুরি ছিল পাঁচ হাজার ৩০০ টাকা। এবার বেড়েছে দুই হাজার ৭০০ টাকা।
নতুন মজুরিতে ন্যূনতম মূল বেতন চার হাজার ১০০ টাকা, বাড়ি ভাড়া দুই হাজার ৫০ টাকা, চিকিৎসা ভাতা ৬০০, যাতায়াত ভাতা ৩৫০ টাকা, খাদ্য ভাতা ৯০০ টাকা বলে জানিয়েছেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী।সংবাদ সম্মেলনে শ্রম প্রতিমন্ত্রী চুন্নু বলেন, যে শ্রমিক আজকে অ্যাপায়নমেন্ট পাবে সেই শ্রমিক সব মিলিয়ে আট হাজার টাকা পাবে। আর এভাবে গ্রেড অনুযায়ী বেতন আরো বাড়বে। কোনো শ্রমিক যে কোন গার্মেন্টস ফ্যাক্টরিতে নতুন ঢুকলে, কোনো মালিক তাকে আট হাজার টাকার নিচে দেওয়ার সুযোগ নাই। এটা আমাদের শ্রমিকদেরও দাবি ছিলো। আমরাও মনে করি প্রধানমন্ত্রী যে সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন সেটা যুযোগপযোগী এবং দুই পক্ষের জন্য যৌক্তিক। ওয়েজ বোর্ডের সদস্যরাও একমত হয়েছেন, আমরা প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে গ্রহণ করেছি।
পাঁচ বছর শেষ হওয়ার পর ডিসেম্বরে এই কাঠামো কার্যকর হবে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী শ্রমিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আশা করি আপনারা এই বেতনে সন্তোষ্ট হবেন এবং উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি করে দেশের অর্থনীতিকে মজবুত করার জন্য কাজ করে যাবেন। মালিক পক্ষের সদস্য ও বিজিএমইএ এর সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বলেন, শত প্রতিকূলতার মাঝেও যেহেতু প্রধানমন্ত্রী আমাদের নির্দেশনা দিয়েছেন সেজন্য আট হাজার টাকা দিতে একমত হয়েছি। এটা আগামী ডিসেম্বরের বেতন থেকে কার্যকর হবে।
সংবাদ সম্মেলনে বোর্ডের নিরপেক্ষ সদস্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. কামাল উদ্দিন, মালিক পক্ষের স্থায়ী প্রতিনিধি সাইফুদ্দিন আহমেদ, জাতীয় শ্রমিক লীগের কার্যকরী সভাপতি আব্দুল হক মন্টু, সরকার পক্ষের প্রতিনিধি হিসেবে শ্রমিক লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক শামসুন্নাহার ভূঁইয়া উপস্থিত ছিলেন।
ঢাকা,বৃহস্পতিবার,১৩ সেপ্টম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY Abir bbm