বেগম জিয়ার শারীরিক অবস্থার এমন কোনো অবনতি হয়নি যে তাকে বিদেশ পাঠাতে হবে

Spread the love

বেগম জিয়ার শারীরিক অবস্থার এমন কোনো অবনতি হয়নি যে তাকে বিদেশ পাঠাতে হবে। মেডিকেল বোর্ডে বেগম খালেদা জিয়ার পছন্দের ডাক্তার রয়েছেন। সেই মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা বলছেন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ভালো আছে এবং তিনি সুচিকিৎসা পাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নিয়ে দলটি রাজনীতি করছে এমন মন্তব্য করেন তিনি।শনিবার (০২ নভেম্বর) দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকায় নতুন বাস্তবায়ন হওয়া সড়ক পরিবহন নিরাপত্তা আইনের কার্যকরের ব্যাপারে বিআরটিএ’র ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম পরিদর্শনে এসে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে গঠিত মেডিক্যাল বোর্ডের বক্তব্যের সঙ্গে বিএনপির বক্তব্যের কোনো মিল নেই। তার শারীরিক অবস্থার এমন কোনো অবনতি হয়নি যে তাকে বিদেশ পাঠাতে হবে। মেডিক্যাল বোর্ডে খালেদা জিয়ার পছন্দের ডাক্তার রয়েছেন। সেই মেডিক্যাল বোর্ডের সদস্যরা বলছেন তার শারীরিক অবস্থা ভালো আছে এবং তিনি সুচিকিৎসা পাচ্ছেন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন প্রসঙ্গে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের অভিযোগের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের পাল্টা প্রশ্ন তুলে বলেন, নির্বাচন যদি সুষ্ঠু না হতো তাহলে মির্জা ফখরুলসহ বিএনপি কেন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছে? তিনি বলেন, মির্জা ফখরুলের ভাষায় বর্তমান সংসদ যদি অবৈধ হয়ে থাকে তাহলে সংসদে যোগ দেওয়া বিএনপির সাতজন সংসদ সদস্য অবৈধ।বিএনপি প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে তারা নেতাকর্মীদের চাঙ্গা রাখতে এখন গলাবাজি করছে। জনগণ তাদের আন্দোলনে সাড়া না দেওয়ায় নেতৃত্বে ব্যর্থ হয়ে তারা এখন মানুষের কাছে নালিশ করছে। বিএনপি’র এই নালিশ “অভিযোগের রোগে” পরিণত হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।দেশের চলমান শুদ্ধি অভিযান প্রসংগে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, সারাদেশে তৃণমূল পর্যায়ে শুদ্ধি অভিযান চলছে।এরই মধ্যে জেলা ও তৃণমূল পর্যায়ে ভূমিদস্যু, মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে তাদের সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে। আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের সম্মেলনে এসব ভূমিদস্যু, সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজরা যাতে স্থান না পায় সে বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ পুরোপুরিভাবে বাস্তবায়িত হলে দেশে দুর্ঘটনা অনেক হ্রাস পাবে এবং সড়ক-মহাসড়কগুলোতে শৃংখলা ফিরে আসবে বলে মনে করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ প্রসংগে মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সড়কে শৃংখলা ফেরাতে সড়ক পরিবহন আইন পহেলা নভেম্বর থেকেই কার্যকর করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এজন্য সারাদেশে সচেতনতামূলক প্রচারণা চালানো হচ্ছে।

মন্ত্রী জানান, এই প্রচার প্রচারণা আগামী সাতদিন পর্যন্ত চলবে এবং এই সময়ের মধ্যে কোন পরিবহনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের না করতে সংশ্লিষদের নির্দেশ দিয়েছেন।এর আগে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে বিআরটিএ’র ভ্রাম্যমান আদালতের কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করেন এবং নিজেও বিভিন্ন পরিবহন চালক ও যাত্রীদের হাতে সচেতনতা লমূলক লিফলেট তুলে দেন।
ঢাকা,শনিবার, ০২ নভেম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» ইডেন গার্ডেন্সে দিবারাত্রি টেস্ট খেলা দেখতে কলকাতা পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

» বাংলাদেশে ব্যবসা বাণিজ্য পরিচালনার জন্য নিজস্ব কার্লয় স্থাপন করতে চায় তুরস্ক

» জাতিগঠনে অনন্য ভূমিকা রাখতে সক্ষম আমাদের টেলিভিশন:তথ্যমন্ত্রী

» আন্তর্জাতিক মানে উপনীত হলো ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তন

» নতুন সড়ক পরিবহন আইন প্রয়োগে বাড়াবাড়ি করা হবে না-ওবায়দুল কাদের

» ভৈরবে চট্টগ্রামগামী নাসিরাবাদ মেইল ট্রেনের একটি বগি লাইনচ্যুত

» অপপ্রচার চালিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা হয়। এই অপপ্রচারে কান দেবেন না-প্রধানমন্ত্রী

» শিখা অনির্বাণে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী

» ৯০ শতাংশ শ্রমিককে ডিজিটাল ওয়েজ পেমেন্টের আওতায় আনা হবে

» পাকিস্তান থেকে ৮২ টন পেঁয়াজ নিয়ে শাহজালালে পৌঁছেছে কার্গো উড়োজাহাজ

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শুক্রবার, ২২ নভেম্বর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বেগম জিয়ার শারীরিক অবস্থার এমন কোনো অবনতি হয়নি যে তাকে বিদেশ পাঠাতে হবে

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

বেগম জিয়ার শারীরিক অবস্থার এমন কোনো অবনতি হয়নি যে তাকে বিদেশ পাঠাতে হবে। মেডিকেল বোর্ডে বেগম খালেদা জিয়ার পছন্দের ডাক্তার রয়েছেন। সেই মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা বলছেন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা ভালো আছে এবং তিনি সুচিকিৎসা পাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নিয়ে দলটি রাজনীতি করছে এমন মন্তব্য করেন তিনি।শনিবার (০২ নভেম্বর) দুপুরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড এলাকায় নতুন বাস্তবায়ন হওয়া সড়ক পরিবহন নিরাপত্তা আইনের কার্যকরের ব্যাপারে বিআরটিএ’র ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম পরিদর্শনে এসে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে গঠিত মেডিক্যাল বোর্ডের বক্তব্যের সঙ্গে বিএনপির বক্তব্যের কোনো মিল নেই। তার শারীরিক অবস্থার এমন কোনো অবনতি হয়নি যে তাকে বিদেশ পাঠাতে হবে। মেডিক্যাল বোর্ডে খালেদা জিয়ার পছন্দের ডাক্তার রয়েছেন। সেই মেডিক্যাল বোর্ডের সদস্যরা বলছেন তার শারীরিক অবস্থা ভালো আছে এবং তিনি সুচিকিৎসা পাচ্ছেন।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন প্রসঙ্গে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের অভিযোগের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের পাল্টা প্রশ্ন তুলে বলেন, নির্বাচন যদি সুষ্ঠু না হতো তাহলে মির্জা ফখরুলসহ বিএনপি কেন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছে? তিনি বলেন, মির্জা ফখরুলের ভাষায় বর্তমান সংসদ যদি অবৈধ হয়ে থাকে তাহলে সংসদে যোগ দেওয়া বিএনপির সাতজন সংসদ সদস্য অবৈধ।বিএনপি প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে তারা নেতাকর্মীদের চাঙ্গা রাখতে এখন গলাবাজি করছে। জনগণ তাদের আন্দোলনে সাড়া না দেওয়ায় নেতৃত্বে ব্যর্থ হয়ে তারা এখন মানুষের কাছে নালিশ করছে। বিএনপি’র এই নালিশ “অভিযোগের রোগে” পরিণত হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।দেশের চলমান শুদ্ধি অভিযান প্রসংগে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, সারাদেশে তৃণমূল পর্যায়ে শুদ্ধি অভিযান চলছে।এরই মধ্যে জেলা ও তৃণমূল পর্যায়ে ভূমিদস্যু, মাদক ব্যবসায়ী, সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজদের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে তাদের সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে। আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের সম্মেলনে এসব ভূমিদস্যু, সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজরা যাতে স্থান না পায় সে বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ পুরোপুরিভাবে বাস্তবায়িত হলে দেশে দুর্ঘটনা অনেক হ্রাস পাবে এবং সড়ক-মহাসড়কগুলোতে শৃংখলা ফিরে আসবে বলে মনে করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ প্রসংগে মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সড়কে শৃংখলা ফেরাতে সড়ক পরিবহন আইন পহেলা নভেম্বর থেকেই কার্যকর করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এজন্য সারাদেশে সচেতনতামূলক প্রচারণা চালানো হচ্ছে।

মন্ত্রী জানান, এই প্রচার প্রচারণা আগামী সাতদিন পর্যন্ত চলবে এবং এই সময়ের মধ্যে কোন পরিবহনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের না করতে সংশ্লিষদের নির্দেশ দিয়েছেন।এর আগে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কে বিআরটিএ’র ভ্রাম্যমান আদালতের কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ করেন এবং নিজেও বিভিন্ন পরিবহন চালক ও যাত্রীদের হাতে সচেতনতা লমূলক লিফলেট তুলে দেন।
ঢাকা,শনিবার, ০২ নভেম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com