X

২৪ জুন ২০১৭ ৯:৩৩:১৬ | ১০ আষাড় ১৪২৪ শনিবার | ২৯ রমজান ১৪৩৮

প্রচ্ছদ  »   লাইফ স্টাইল

ঝাঁঝাঁলো পেঁয়াজ মানবদেহের জন্য অত্যন্ত উপকারি

ঝাঁঝাঁলো পেঁয়াজ মানবদেহের জন্য অত্যন্ত উপকারি

ঢাকা: পেঁয়াজ খেলে মুখ থেকে দূর্গন্ধ বের হয় বলে অনেকে সালাদ হিসেবে পেয়াজ খেতে পছন্দ করেন না। কিন্তু এ পেঁয়াজের উপকারিতা জানলে হয়তো অনেকেই পেঁয়াজ থেকে উৎসাহবোধ করবেন। কেননা লাল ঝাঁঝাঁলো পেঁয়াজ মানবদেহের জন্য অত্যন্ত উপকারি।প্রয়োজনীয় পুষ্টিগুনের সঙ্গে এতে কাইটোকেমিক্যাল রয়েছে। যা আমাদের শরীরের নানা উপকারে লাগে। স্যালাড থেকে স্যান্ডউইচ কিংবা স্রেফ মুড়িতে মেখে যেমন নানা বাভে পেঁয়াজ খাওয়া যায়, তেমনি এর নানা গুন রয়েছে।
১. সংক্রমণ রোগ সারায়: এর মধ্যে কার্মিনেটিভ, অ্যান্টিমাইক্রোবায়াল, অ্যান্টিসেপ্টিক এবং অ্যান্টিবায়োটিক জাতীয় পদার্থ মজুদ রয়েছে। তাই শরীরের কোথাও সংক্রমণ ঘটে থাকলে কাঁচা পেঁয়াজ একটু বেশি খান। চটজলদি উপকার পাবেন।
২. পুষ্টিগুন সম্বৃদ্ধ: প্রচুর পরিমাণে বিভিন্ন ভিটামিন, মিনারেল, ফাইবার, ক্যালসিয়াম, সালফার, ভিটামিন বি এবং সি থাকে।
৩. জ্বর-সর্দিতে পেঁয়াজের কার্যকারিতা: ঠান্ডা লাগার ফলে গলা ব্যথা, সর্দি-কাশি, জ্বর অ্যালার্জি বা সামান্য গা ব্যথায় পেঁয়াজের কার্যকারিতা খুব প্রখর। সামান্য পেঁয়াজের রসের সঙ্গে একটু মধূ মিশিয়ে খেলে দ্রুত কাজ করবে।
৪. শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে পেঁয়াজ: শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণেও পেঁয়াজ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। অনেকে জানেন যে, বগলে খানিকটা পেঁয়াজ চেপে রাখলে কিছুক্ষণের মধ্যে দেহের তাপমাত্রা বেড়ে যায়। তবে অনেকেই জানেন না। জ্বরে দেহের তাপমাত্রা বেশি হলে পাতলা করে কাটা পেঁয়াজ কপালে রাখলে কিছুক্ষণের মধ্যে দেহের তাপমাত্রা কমিয়ে আনবে।
৫. নাক দিয়ে রক্ত পড়া বন্ধে পেঁয়াজ: গ্রীষ্ম বা শীতে অনেকের নাক থেকে রক্তক্ষরণ হয়। যদি এ সময়ে কাছাকাছি পেঁয়াজ থাকে তাড়াতাড়ি কেটে তার ঝাঁজ নিতে থাকুন। রক্তক্ষরণ বন্ধ হয়ে যাবে।
এছাড়াও পেঁয়াজ হজমশক্তি, ত্বকের সমস্যা, ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণ, হৃদপৃন্ড এবং হাড় ভালো রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।
লাইফস্টাইল,, শনিবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি, এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

User Comments

  • লাইফ স্টাইল