X

২৪ জুন ২০১৭ ৯:২৯:৫৮ | ১০ আষাড় ১৪২৪ শনিবার | ২৯ রমজান ১৪৩৮

প্রচ্ছদ  »   অর্থনীতি

বিদেশ থেকে আপাতত ১০ লাখ টন চাল আমদানি করা হচ্ছে।

বিদেশ থেকে আপাতত ১০ লাখ টন চাল আমদানি করা হচ্ছে।

বিদেশ থেকে ৪ লাখ টন চাল আমদানির প্রক্রিয়া চূড়ান্ত করা হয়েছে। আগামীতে আনা হবে আরও ৬ লাখ টন। বাজারে চালের কোন সংকট নেই। এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী ও মিল মালিকরা কারসাজি করে চালের দাম বাড়িয়েছে।'খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম সচিবালয়ে আজ সাংবাদিকদের বলেন,বিদেশ থেকে আপাতত ১০ লাখ টন চাল আমদানি করা হচ্ছে। এর মধ্যে ৪ লাখ টন পাইপলাইনে রয়েছে। প্রয়োজনে আরও আমদানি করা হবে।খাদ্যমন্ত্রী আরও বলেন, বাজারে চালের কোন সংকট নেই। এক শ্রেণির অসাধু ব্যবসায়ী ও মিল মালিকরা কারসাজি করে চালের দাম বাড়িয়েছে।চলতি বোরো মৌসুমে ১ কোটি ৯১ লাখ টন ধান উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও, অতিবৃষ্টি ও বন্যায় হাওড় অঞ্চলসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে উৎপাদনের সে লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়নি। উৎপাদন ঘাটতি মেটাতে ইতোমধ্যে ১০ লাখ টন চাল আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এরমধ্যে চার লাখ টন চাল আমদানির প্রক্রিয়া চূড়ান্ত হয়েছে বলে জানান খাদ্যমন্ত্রী।
এবছর চাল সংগ্রহ অভিযানে যেসব মিলাররা চাল সরবরাহ করেনি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথাও জানান তিনি।
বর্তমানে চাল ও গম মিলিয়ে প্রায় পাঁচ লাখ টন খাদ্যশস্য মজুদ রয়েছে বলেও জানান খাদ্যমন্ত্রী।
ঢাকা,সোমবার, ১২ জুন, এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

User Comments

  • অর্থনীতি