করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলাদেশে

নতুন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু
৫৪০ ৫,৪৯,৭২৪ ৫,০১,৯৬৬ ৮৪৫১

দুই শিক্ষার্থী মৃত্যুর ঘটনায় রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা

বাসচাপায় শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী মৃত্যুর ঘটনায় তৃতীয়দিনের মতো রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় বেশ কয়েকটি বাসে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুর চালান বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে শিক্ষার্থীদের লাঠিচার্জ করার ঘটনাও ঘটেছে। এছাড়া বেশ কয়েকটি স্থানে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। ৯ দফা দাবিতে মঙ্গলবার (৩১ জুলাই) সকাল থেকে ভিবিন্নস্থানে বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা।সাইন্সল্যাব মোড় ও উত্তরার জসিম উদ্দিন রোড মোড়ে সবচেয়ে বেশি বিশৃঙ্খলা হলেও শিক্ষার্থীদের অবস্থানে অন্যান্য সড়কগুলোও বন্ধ হয়ে যায়। ঘাতক চালকের ফাঁসি ও নৌমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিতে পুরো রাজধানীর যান চলাচল স্থবির হয়ে পড়ে। সকাল ১০টার দিকে রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের শিক্ষার্থীরা মুখে কালো কাপড় বেঁধে দুর্ঘটনাস্থলে মানববন্ধন করার চেষ্টা করেন। কিন্তু পুলিশি বাধায় তাদের কর্মসূচি পণ্ড হয়ে যায়।

এদিকে সকাল থেকে ফার্মগেট ওভার ব্রিজের নিচে রাস্তা বন্ধ করে অবস্থান নেন সরকারি বিজ্ঞান কলেজসহ আশপাশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। প্রায় ২ ঘণ্টা রাস্তা বন্ধ করে রাখলেও সেখানে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।এদিকে, মিরপুর-১ নম্বর সনি সিনেমা হলের সামনে এবং মিরপুর-১০ নম্বর গোল চত্বরে অবস্থান নেন কমার্স কলেজ, শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজসহ কয়েকটি শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। মিরপুর ১০ নম্বরে বিক্ষোভরত ছাত্রদের ওপর পুলিশ চড়াও হলে এক শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। এছাড়া মিরপুর ১ নম্বরে শিক্ষার্থীরা কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করলেও পুলিশের তৎপরতায় ঘণ্টাখানেক পর রাস্তা থেকে সরে যান তারা।বেলা ১২টার দিকে মতিঝিল শাপলা চত্বর মোড় অবরোধ করে অবস্থান নেন নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থীরা। প্রায় পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থীদের অবস্থানে রাজধানীর বাণিজ্যিক এলাকা মতিঝিলের যোগাযোগ অচল হয়ে পড়ে।সাইন্সল্যাব মোড়ে সিটি কলেজের শিক্ষার্থীরা অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ ও গাড়ি ভাংচুর চালিয়েছেন। এ সময় পুলিশের সঙ্গ বেশ কয়েকবার ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। বেলা আড়াইটার দিকে পুলিশের ধাওয়ায় ছাত্ররা সরে গেলে ওই সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়ে যায়।রামপুরা ব্রিজের উপর ইস্টওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয় ও মধ্যবাড্ডায় গুলশান কমার্স কলেজ শিক্ষার্থীরা অবস্থান নিলে পুরো মালিবাগ-বাড্ডা পর্যন্ত অচালবস্থা সৃষ্টি হয়। এ সড়কে দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত দফায় দফায় শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের খবর পাওয়া গেছে।৬টার দিকে অবরোধ ছেড়ে দিলে যান চলাচল সাভাবিক হয়। উত্তরার জসিমউদ্দিন রোড মোড়ে বিজিএমইএ বিশ্ববিদ্যালয় ও উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়সহ আশে-পাশের ৮-১০টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা রাস্তা বন্ধ করে বিক্ষোভ করে। এ সময় বুশরা পরিবহন ও এনা পরিবহনের দুইটি বাসে অগ্নিসংযোগ করেন শিক্ষার্থীরা। এছাড়া বেশ কয়েকটি বাস ও ট্রাকে ভাঙচুর চালায় শিক্ষার্থীরা।
ঢাকা,মঙ্গলবার,৩১ জুলাই,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» সিরাজগঞ্জে বাড়ি থেকেই চুরি হলো কাওসার নামে ২৩ দিন বয়সী একটি শিশু

» নতুন করে আরও ৫৪০ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত,মৃত্যু ১০ জন

» ভয়ঙ্কর একটি শক্তি সরকারকে পিছন থেকে ইন্ধন দিচ্ছে

» ডিজিটাল আইনটা কিসের? ডিজিটাল অ্যাক্টে আমাদের জেলে যেতে হবে। আমরা কথাই বলতে পারবো না

» বিএনপি ৭ মার্চের কর্মসূচি পালন করছে যা ভণ্ডামি ছাড়া আর কিছুই নয়

» গাজীপুরে কারখানায় আগুন, দগ্ধ হয়ে একজনের মৃত্যু

» ঢাকায় এসে পৌঁছেছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের নতুন উড়োজাহাজ ‘শ্বেতবলাকা’

» নতুন করে আরও ৬৩৫ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত,মৃত্যু ৬ জন

» করোনার টিকা নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

» নতুন করে আরও ৬১৯ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত,মৃত্যু ৭ জন

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শনিবার, ৬ মার্চ ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ, ২১শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

দুই শিক্ষার্থী মৃত্যুর ঘটনায় রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

বাসচাপায় শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থী মৃত্যুর ঘটনায় তৃতীয়দিনের মতো রাজধানীর বিভিন্ন সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় বেশ কয়েকটি বাসে অগ্নিসংযোগ ও ভাঙচুর চালান বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে শিক্ষার্থীদের লাঠিচার্জ করার ঘটনাও ঘটেছে। এছাড়া বেশ কয়েকটি স্থানে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। ৯ দফা দাবিতে মঙ্গলবার (৩১ জুলাই) সকাল থেকে ভিবিন্নস্থানে বিক্ষোভ করেন শিক্ষার্থীরা।সাইন্সল্যাব মোড় ও উত্তরার জসিম উদ্দিন রোড মোড়ে সবচেয়ে বেশি বিশৃঙ্খলা হলেও শিক্ষার্থীদের অবস্থানে অন্যান্য সড়কগুলোও বন্ধ হয়ে যায়। ঘাতক চালকের ফাঁসি ও নৌমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবিতে পুরো রাজধানীর যান চলাচল স্থবির হয়ে পড়ে। সকাল ১০টার দিকে রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের শিক্ষার্থীরা মুখে কালো কাপড় বেঁধে দুর্ঘটনাস্থলে মানববন্ধন করার চেষ্টা করেন। কিন্তু পুলিশি বাধায় তাদের কর্মসূচি পণ্ড হয়ে যায়।

এদিকে সকাল থেকে ফার্মগেট ওভার ব্রিজের নিচে রাস্তা বন্ধ করে অবস্থান নেন সরকারি বিজ্ঞান কলেজসহ আশপাশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। প্রায় ২ ঘণ্টা রাস্তা বন্ধ করে রাখলেও সেখানে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।এদিকে, মিরপুর-১ নম্বর সনি সিনেমা হলের সামনে এবং মিরপুর-১০ নম্বর গোল চত্বরে অবস্থান নেন কমার্স কলেজ, শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজসহ কয়েকটি শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা। মিরপুর ১০ নম্বরে বিক্ষোভরত ছাত্রদের ওপর পুলিশ চড়াও হলে এক শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন। এছাড়া মিরপুর ১ নম্বরে শিক্ষার্থীরা কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করলেও পুলিশের তৎপরতায় ঘণ্টাখানেক পর রাস্তা থেকে সরে যান তারা।বেলা ১২টার দিকে মতিঝিল শাপলা চত্বর মোড় অবরোধ করে অবস্থান নেন নটরডেম কলেজের শিক্ষার্থীরা। প্রায় পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থীদের অবস্থানে রাজধানীর বাণিজ্যিক এলাকা মতিঝিলের যোগাযোগ অচল হয়ে পড়ে।সাইন্সল্যাব মোড়ে সিটি কলেজের শিক্ষার্থীরা অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ ও গাড়ি ভাংচুর চালিয়েছেন। এ সময় পুলিশের সঙ্গ বেশ কয়েকবার ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। বেলা আড়াইটার দিকে পুলিশের ধাওয়ায় ছাত্ররা সরে গেলে ওই সড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়ে যায়।রামপুরা ব্রিজের উপর ইস্টওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয় ও মধ্যবাড্ডায় গুলশান কমার্স কলেজ শিক্ষার্থীরা অবস্থান নিলে পুরো মালিবাগ-বাড্ডা পর্যন্ত অচালবস্থা সৃষ্টি হয়। এ সড়কে দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত দফায় দফায় শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের খবর পাওয়া গেছে।৬টার দিকে অবরোধ ছেড়ে দিলে যান চলাচল সাভাবিক হয়। উত্তরার জসিমউদ্দিন রোড মোড়ে বিজিএমইএ বিশ্ববিদ্যালয় ও উত্তরা বিশ্ববিদ্যালয়সহ আশে-পাশের ৮-১০টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা রাস্তা বন্ধ করে বিক্ষোভ করে। এ সময় বুশরা পরিবহন ও এনা পরিবহনের দুইটি বাসে অগ্নিসংযোগ করেন শিক্ষার্থীরা। এছাড়া বেশ কয়েকটি বাস ও ট্রাকে ভাঙচুর চালায় শিক্ষার্থীরা।
ঢাকা,মঙ্গলবার,৩১ জুলাই,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com

Translate »
error: Alert: Content is protected !!