প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে পোশাক শ্রমিকদের ৬টি গ্রেডে বেতন বেতন বৃদ্ধি করা হয়েছে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে মজুরি কাঠামোর ৭টি গ্রেডের মধ্যে ৬টি গ্রেডের বেতন বৃদ্ধি করা হয়েছে। এতে সর্বোচ্চ বেতন বেড়েছে ৫২৫৭ টাকা। আর সর্বনিন্ম ২৭০০ টাকা। রোববার (১৩ জানুয়ারি) বিকেলে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে নতুন প্রস্তাবিত মজুরি কাঠামোর বিস্তারিত তুলে ধরেন শ্রম সচিব আফরোজা খানম। সচিব আফরোজা খান বলেন, ২০১৩ সালে ৭ম গ্রেডে বেতন ছিল ৫ হাজার ৩০০ টাকা। ২০১৮ সালে সেটি করা হয় ৮ হাজার টাকা। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এটি ৮ হাজার টাকাই রাখা হয়েছে।
২০১৩ সালে ৬ষ্ঠ গ্রেডে বেতন ছিল ৫ হাজার ৬৭৮ টাকা। ২০১৮ সালে সেটি করা হয় ৮ হাজার ৪০৫ টাকা। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এটি ৮ হাজার ৪২০ টাকা করা হয়েছে। ২০১৩ সালে ৫ম গ্রেডে বেতন ছিল ৬ হাজার ৪২ টাকা। ২০১৮ সালে সেটি করা হয় ৮ হাজার ৮৫৫ টাকা। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এটি ৮ হাজার ৮৭৫ টাকা করা হয়েছে।
২০১৩ সালে ৪র্থ গ্রেডে বেতন ছিল ৬ হাজার ৪২০ টাকা। ২০১৮ সালে সেটি করা হয় ৯ হাজার ২৪৫ টাকা। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এটি ৯ হাজার ৩৪৭ টাকা করা হয়েছে। ২০১৩ সালে তৃতীয় গ্রেডে বেতন ছিল ৬ হাজার ৪০৫ টাকা। ২০১৮ সালে সেটি করা হয় ৯ হাজার ৫৯০ টাকা। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এটি ৯ হাজার ৮৪৫ টাকা করা হয়েছে।
২০১৩ সালে ২য় গ্রেডে বেতন ছিল ১০ হাজার ৯০০ টাকা। ২০১৮ সালে সেটি করা হয় ১৪ হাজার ৬৩০ টাকা। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এটি ১৫ হাজার ৪১৬ টাকা করা হয়েছে। ২০১৩ সালে ১ম গ্রেডে বেতন ছিল ১৩ হাজার টাকা। ২০১৮ সালে সেটি করা হয় ১৭ হাজার ৫১০ টাকা। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এটি ১৮ হাজার ২৫৭ টাকা করা হয়েছে।
এসময় বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই দ্রুত সমস্যা সমাধানে নতুন প্রস্তাব দেয়া হচ্ছে। নতুন কাঠামোতে সর্বোচ্চ বেতন বেড়েছে ৫ হাজার ২৫৭ এবং সর্বনিম্ন দুই হাজার সাতশো টাকা।’
বাণিজ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ‘যে অবস্থাতেই হোক, আমরা একটি পরিস্থিতিতে এসে দাঁড়িয়েছি। সেটা হয়তো কারো ১০০ ভাগ হওয়া সম্ভব না। আমরা মনে করি, একটা জায়গায় পৌঁছাতে পেরেছি। এছাড়া এই বিষয় নিয়ে গতকাল প্রধানমন্ত্রীর কাছেও গিয়েছি।’দু’একদিনের মধ্যে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। নতুন মজুরি কাঠামো গত ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হবে। যা আগামী ফেব্রুয়ারির মাসের বেতনের সঙ্গে সমন্বয় করা হবে বলেও জানান মন্ত্রী।
ঢাকা,রোববার,১৩ জানুয়ারি,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» জার্মানি ও সংযুক্ত আরব আমিরাত সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

» রংপুর-কুড়িগ্রাম মহাসড়কের লালমনিরহাটের বড়বাড়িতে বাসের সঙ্গে সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩

» ঐক্যফ্রন্টের গণশুনানি ২৪ ফেব্রুয়ারির পরিবর্তে ২২ ফেব্রুয়ারি

» মেয়র পদপ্রার্থী আতিকুর রহমানের আগামী প্রজন্মের স্বপ্নের ঢাকা শীর্ষক গোল টেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত

» ডাকসু’র নির্বাচনের মনোনয়নপত্র বিতরণ শুরু

» খাগড়াছড়িতে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে সাতজন দগ্ধ

» জাজিরা প্রান্তে বসছে স্বপ্নের পদ্মা সেতুর সপ্তম স্প্যান

» শাজাহান খানের নেতৃত্বে সড়কে শৃঙ্খলার কমিটি হাস্যকর ও তামাশা : রিজভী

» একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে মহানগরীর নিরাপত্তায় ১৬ হাজার পুলিশ

» বিশ্বশান্তি ও কল্যাণ কামনায় আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো এবারের ইজতেমা

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে পোশাক শ্রমিকদের ৬টি গ্রেডে বেতন বেতন বৃদ্ধি করা হয়েছে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে মজুরি কাঠামোর ৭টি গ্রেডের মধ্যে ৬টি গ্রেডের বেতন বৃদ্ধি করা হয়েছে। এতে সর্বোচ্চ বেতন বেড়েছে ৫২৫৭ টাকা। আর সর্বনিন্ম ২৭০০ টাকা। রোববার (১৩ জানুয়ারি) বিকেলে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে নতুন প্রস্তাবিত মজুরি কাঠামোর বিস্তারিত তুলে ধরেন শ্রম সচিব আফরোজা খানম। সচিব আফরোজা খান বলেন, ২০১৩ সালে ৭ম গ্রেডে বেতন ছিল ৫ হাজার ৩০০ টাকা। ২০১৮ সালে সেটি করা হয় ৮ হাজার টাকা। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এটি ৮ হাজার টাকাই রাখা হয়েছে।
২০১৩ সালে ৬ষ্ঠ গ্রেডে বেতন ছিল ৫ হাজার ৬৭৮ টাকা। ২০১৮ সালে সেটি করা হয় ৮ হাজার ৪০৫ টাকা। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এটি ৮ হাজার ৪২০ টাকা করা হয়েছে। ২০১৩ সালে ৫ম গ্রেডে বেতন ছিল ৬ হাজার ৪২ টাকা। ২০১৮ সালে সেটি করা হয় ৮ হাজার ৮৫৫ টাকা। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এটি ৮ হাজার ৮৭৫ টাকা করা হয়েছে।
২০১৩ সালে ৪র্থ গ্রেডে বেতন ছিল ৬ হাজার ৪২০ টাকা। ২০১৮ সালে সেটি করা হয় ৯ হাজার ২৪৫ টাকা। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এটি ৯ হাজার ৩৪৭ টাকা করা হয়েছে। ২০১৩ সালে তৃতীয় গ্রেডে বেতন ছিল ৬ হাজার ৪০৫ টাকা। ২০১৮ সালে সেটি করা হয় ৯ হাজার ৫৯০ টাকা। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এটি ৯ হাজার ৮৪৫ টাকা করা হয়েছে।
২০১৩ সালে ২য় গ্রেডে বেতন ছিল ১০ হাজার ৯০০ টাকা। ২০১৮ সালে সেটি করা হয় ১৪ হাজার ৬৩০ টাকা। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এটি ১৫ হাজার ৪১৬ টাকা করা হয়েছে। ২০১৩ সালে ১ম গ্রেডে বেতন ছিল ১৩ হাজার টাকা। ২০১৮ সালে সেটি করা হয় ১৭ হাজার ৫১০ টাকা। চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে এটি ১৮ হাজার ২৫৭ টাকা করা হয়েছে।
এসময় বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই দ্রুত সমস্যা সমাধানে নতুন প্রস্তাব দেয়া হচ্ছে। নতুন কাঠামোতে সর্বোচ্চ বেতন বেড়েছে ৫ হাজার ২৫৭ এবং সর্বনিম্ন দুই হাজার সাতশো টাকা।’
বাণিজ্যমন্ত্রী আরো বলেন, ‘যে অবস্থাতেই হোক, আমরা একটি পরিস্থিতিতে এসে দাঁড়িয়েছি। সেটা হয়তো কারো ১০০ ভাগ হওয়া সম্ভব না। আমরা মনে করি, একটা জায়গায় পৌঁছাতে পেরেছি। এছাড়া এই বিষয় নিয়ে গতকাল প্রধানমন্ত্রীর কাছেও গিয়েছি।’দু’একদিনের মধ্যে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। নতুন মজুরি কাঠামো গত ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হবে। যা আগামী ফেব্রুয়ারির মাসের বেতনের সঙ্গে সমন্বয় করা হবে বলেও জানান মন্ত্রী।
ঢাকা,রোববার,১৩ জানুয়ারি,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY PopularITLimited