কুয়াকাটা সৈকতে অসংখ্য মৃত জেলিফিশ

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,২৭ফেব্রুয়ারি।। বঙ্গোপসাগর থেকে অসংখ্য মৃত জলিফিশ ভেসে আসছে পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটার সৈকতে। গত তিন দিন ধরে জোয়ারের সময় সাগরের ঢেউয়ে দীর্ঘ ১৮ কিলোমিটার সৈকতের একাধিক পয়েন্টে ভেসে আসছে এসব জলজ প্রাণী আটকা পরছে। কোনটা আকারে ছোট। কোনটা বড়। দেখতে অনেকটা অক্টোপাসের মতো। তবে এগুলো কি কারণে মারা যাচ্ছে, এর সঠিক কারণ কেউ বলতে পারছে না।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোমবার বিকাল থেকে স্থানীয় ও পর্যটকরা সৈকতের বিভিন্ন পয়েন্টে এ জেলিফিশগুলো দেখতে পাচ্ছে। উত্তাল সাগরের ঢেউয়ে ভেসে তীরবর্তী এলাকায় এসে আটকা পড়ছে। ৪ বছর আগেও এমন মৃত জেলিফিশ কুয়াকাটা সি-বীচে দেখা যায়। তবে তা পরিমানে এত বেশি ছিল না। স্থানীয় জেলেদের কাছে জেলিফিশ সাগরের লোনা হিসেবে পরিচিত। গভীর সমুদ্রে জেলেদের জালে এসব জেলিফিশ আটকা পড়ে মারা যেতে পাড়ে বলে ধারনা স্থানীয়দের।
আগত পর্যটক রায়হান জানান, তিনি জেলিফিশের নাম শুনেছেন, এই প্রথম দেখেছি। এ গুলো দ্রুত সরিয়ে না নিলে পঁচে সৈকতের পরিবেশ দূষিত করবে। জেলে মো.কাওসার হোসেন জানান, গত ৪/৫ বছর আগে তার জালে ব্যাপক পরিমান জেলিফিশ ধরা পড়েছিল। সে জাল পরে আর ব্যবহার করতে পারেননি। কুয়াকাটা নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো.কামরুজ্জামান বলেন, আমিও গত কয়েকদিন যাবৎ সৈকতের একাধিক পয়েন্টে অসংখ্য জেলিফিশ বালুতে আটকে পড়ে থাকতে দেখছি। উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মনোজ কুমার সাহা জানান, প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে এ ঘটনা ঘটতে পারে। তবে এ বিষয়ে কোন গবেষণা না থাকায় বিষয়টি সম্পর্কে অবগত নয় বলেও তিনি সাংবাদিকদের জানান। কুয়াকাটা পৌরসভার মেয়র আবদুল বারেক মোল্লা জানান, মৃত জেলিফিশের কারণে পর্যটকদের যাতে কোন ক্ষতি না হয়, সেজন্য এ গুলো সরিয়ে মাটিতে পুঁতে ফেলার ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, জেলিফিশ বিভিন্ন প্রজাতির। দলবদ্ধভাবে চলাফেরার
কারণে সমুদ্রে মৎস্য শিকারীদের জালে ধরা পড়ছে। জেলিফিশ কোনটি ডোরাকাটা আবার কোনটি একেবারে সাদা। এগুলোর শরীরের ৯০ ভাগই জল। জালে একবার আটকে গেলে তা ছাড়ানো সম্ভব হয় না। ফলে বেশিরভাগ সময়ই জেলেদের জাল সমুদ্র বক্ষে কেটে ফেলে দিতে বাধ্য হয়। কেননা, এসব জাল পুনরায় ব্যবহার উপযোগী থাকে না।
উত্তম কুমার হাওলাদার,কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,
পটুয়াখালী,বুধবার,২৭ ফেব্রুয়ারি,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» মানিকগঞ্জে বাসের চাপায় বাবা-ছেলে ও নারায়ণগঞ্জে বাসের ধাক্কায় মা ও মেয়ে নিহত

» ছোটখাটো ইস্যুতে বিএনপির উস্কানি দিচ্ছে -মাহবুব উল আলম হানিফ

» বর্তমান সরকারের অধীনে আর ভোটের ব্যাপারে জনগণের ন্যূনতম আস্থা নেই-রুহুল কবির রিজভী

» দেশের চলমান উন্নয়নকাজের কারণে সাধারণ মানুষ যেন ক্ষতির শিকার না হয়-প্রধানমন্ত্রী

» সাভারের তালবাগে একটি ভবনের ওপর হেলে পড়েছে ছয়তলা ভবন, বাসিন্দাদের নিরাপদে ভবন ছাড়ার নির্দেশ পৌর মেয়রের

» চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা

» আমার মতো অত্যাচারিত, নির্যাতিত ও নিষ্পেষিত নেতা আর কেউ নেই-হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ

» ড. ওয়াজেদ মিয়া ছিলেন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্বপ্নদ্রষ্টা- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

» বাসের চাপায় নিহত আবরারের ঘাতক চালকের ৭ দিনের রিমান্ড

» রাজধানীর প্রগতি সরণি এলাকায় সুপ্রভাত পরিবহনের একটি বাসের চাপায় নিহত আবরারের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা দেয়ার নির্দেশ

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

কুয়াকাটা সৈকতে অসংখ্য মৃত জেলিফিশ

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,২৭ফেব্রুয়ারি।। বঙ্গোপসাগর থেকে অসংখ্য মৃত জলিফিশ ভেসে আসছে পর্যটন কেন্দ্র কুয়াকাটার সৈকতে। গত তিন দিন ধরে জোয়ারের সময় সাগরের ঢেউয়ে দীর্ঘ ১৮ কিলোমিটার সৈকতের একাধিক পয়েন্টে ভেসে আসছে এসব জলজ প্রাণী আটকা পরছে। কোনটা আকারে ছোট। কোনটা বড়। দেখতে অনেকটা অক্টোপাসের মতো। তবে এগুলো কি কারণে মারা যাচ্ছে, এর সঠিক কারণ কেউ বলতে পারছে না।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সোমবার বিকাল থেকে স্থানীয় ও পর্যটকরা সৈকতের বিভিন্ন পয়েন্টে এ জেলিফিশগুলো দেখতে পাচ্ছে। উত্তাল সাগরের ঢেউয়ে ভেসে তীরবর্তী এলাকায় এসে আটকা পড়ছে। ৪ বছর আগেও এমন মৃত জেলিফিশ কুয়াকাটা সি-বীচে দেখা যায়। তবে তা পরিমানে এত বেশি ছিল না। স্থানীয় জেলেদের কাছে জেলিফিশ সাগরের লোনা হিসেবে পরিচিত। গভীর সমুদ্রে জেলেদের জালে এসব জেলিফিশ আটকা পড়ে মারা যেতে পাড়ে বলে ধারনা স্থানীয়দের।
আগত পর্যটক রায়হান জানান, তিনি জেলিফিশের নাম শুনেছেন, এই প্রথম দেখেছি। এ গুলো দ্রুত সরিয়ে না নিলে পঁচে সৈকতের পরিবেশ দূষিত করবে। জেলে মো.কাওসার হোসেন জানান, গত ৪/৫ বছর আগে তার জালে ব্যাপক পরিমান জেলিফিশ ধরা পড়েছিল। সে জাল পরে আর ব্যবহার করতে পারেননি। কুয়াকাটা নৌ-পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো.কামরুজ্জামান বলেন, আমিও গত কয়েকদিন যাবৎ সৈকতের একাধিক পয়েন্টে অসংখ্য জেলিফিশ বালুতে আটকে পড়ে থাকতে দেখছি। উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মনোজ কুমার সাহা জানান, প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে এ ঘটনা ঘটতে পারে। তবে এ বিষয়ে কোন গবেষণা না থাকায় বিষয়টি সম্পর্কে অবগত নয় বলেও তিনি সাংবাদিকদের জানান। কুয়াকাটা পৌরসভার মেয়র আবদুল বারেক মোল্লা জানান, মৃত জেলিফিশের কারণে পর্যটকদের যাতে কোন ক্ষতি না হয়, সেজন্য এ গুলো সরিয়ে মাটিতে পুঁতে ফেলার ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, জেলিফিশ বিভিন্ন প্রজাতির। দলবদ্ধভাবে চলাফেরার
কারণে সমুদ্রে মৎস্য শিকারীদের জালে ধরা পড়ছে। জেলিফিশ কোনটি ডোরাকাটা আবার কোনটি একেবারে সাদা। এগুলোর শরীরের ৯০ ভাগই জল। জালে একবার আটকে গেলে তা ছাড়ানো সম্ভব হয় না। ফলে বেশিরভাগ সময়ই জেলেদের জাল সমুদ্র বক্ষে কেটে ফেলে দিতে বাধ্য হয়। কেননা, এসব জাল পুনরায় ব্যবহার উপযোগী থাকে না।
উত্তম কুমার হাওলাদার,কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,
পটুয়াখালী,বুধবার,২৭ ফেব্রুয়ারি,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY PopularITLimited