পুরো দেশে এক রেটে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দিতে কাজ করছে সরকার-মোস্তাফা জব্বার।

২০২৩ সালের মধ্যে ফাইভ-জি চালুর সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে সব পক্ষকে আহ্বান জানিয়েছেন তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।মঙ্গলবার (১২ মার্চ) রাজধানীর হোটেল লা ভিঞ্চিতে টেলিকম খাতের সাংবাদিকদের সংগঠন টেলিকম রিপোর্টার্স নেটওয়ার্ক বাংলাদেশের (টিআরএনবি) আয়োজনে ‘ডিজিটাল সেবায় ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক: বর্তমান ও ভবিষ্যৎ’ শীর্ষক এক গোলটেবিল আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মোস্তাফা জব্বার। এ সময় নেটওয়ার্কিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো পরস্পরের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ করে।তিনি বলেন,পুরো দেশে এক রেটে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দিতে কাজ করছে সরকার।
ন্যাশন ওয়াইড টেলিকমিউনিকেশন ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক বা এনটিটিএন অপারেটর বাড়ালে উচ্চগতির ও সাশ্রয়ী মূল্যে ইন্টারনেট সেবা দেয়া যেত বলে মত দেন অনেকে। দাবি ওঠে গ্রাহক হয়রানির জন্য কোন পক্ষ দায়ী তা যাচাই-বাছাই করে চিহ্নিত করার।
বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, তারাও রেট কমাতে চান। বর্তমানে বছরে ১০ হাজার কোটি টাকা রাজস্ব আহরিত হয় উল্লেখ করে বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, ব্যবসার ক্ষতি করে রাজস্ব সংগ্রহ করতে চায়না সরকার। তবে কারো উপর যেমন সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেয়া হবে না তেমনি গ্রাহকেরও কোন ক্ষতি মেনে নেয়া হবে না বলেও উল্লেখ করেন তিনি। বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, আমরা চাই আপনারা ভালো ব্যবসা করেন। ভুল বুঝাবুঝি হলে সবাই মিলে বসলে ভুল বুঝাবুঝি ঠিক হবে।
মন্ত্রী বলেন, গ্রামে শহরের সুবিধা পৌঁছে দিতে এবং সব নাগরিককে একই রেটে ইন্টারনেট সেবা দিতে বদ্ধপরিকর সরকার। সেই সঙ্গে ২০২৩ সালের মধ্যে ফাইভ-জি সেবা দেয়ার সক্ষমতা অর্জনের জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী আরো বলেন, বাড়ি দুর্গম অঞ্চলে হলেই বাড়তি টাকা দিতে হবে তা গ্রহণযোগ্য না। আমাদের মধ্যে যে সমস্যা আছে তা আমরা কথা বলে সমাধান করবো। তিনি বলেন, ইন্টারনেট সেবায় শুধু অপারেটরদের নয়, এনটিটিএনদেরও ধরতে হবে। যেটুকু অপারেটর ও এনটিটিএনদের ক্ষমতায় আছে তা জনগণকে সর্বাচ্চ মান নিশ্চিত করতে হবে, কোনো রকমের অজুহাত দেওয়া যাবে না।
ঢাকা,মঙ্গলবার,১২ মার্চ,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» মানিকগঞ্জে বাসের চাপায় বাবা-ছেলে ও নারায়ণগঞ্জে বাসের ধাক্কায় মা ও মেয়ে নিহত

» ছোটখাটো ইস্যুতে বিএনপির উস্কানি দিচ্ছে -মাহবুব উল আলম হানিফ

» বর্তমান সরকারের অধীনে আর ভোটের ব্যাপারে জনগণের ন্যূনতম আস্থা নেই-রুহুল কবির রিজভী

» দেশের চলমান উন্নয়নকাজের কারণে সাধারণ মানুষ যেন ক্ষতির শিকার না হয়-প্রধানমন্ত্রী

» সাভারের তালবাগে একটি ভবনের ওপর হেলে পড়েছে ছয়তলা ভবন, বাসিন্দাদের নিরাপদে ভবন ছাড়ার নির্দেশ পৌর মেয়রের

» চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার পর স্বামীর আত্মহত্যা

» আমার মতো অত্যাচারিত, নির্যাতিত ও নিষ্পেষিত নেতা আর কেউ নেই-হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ

» ড. ওয়াজেদ মিয়া ছিলেন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্বপ্নদ্রষ্টা- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

» বাসের চাপায় নিহত আবরারের ঘাতক চালকের ৭ দিনের রিমান্ড

» রাজধানীর প্রগতি সরণি এলাকায় সুপ্রভাত পরিবহনের একটি বাসের চাপায় নিহত আবরারের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা দেয়ার নির্দেশ

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

পুরো দেশে এক রেটে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দিতে কাজ করছে সরকার-মোস্তাফা জব্বার।

২০২৩ সালের মধ্যে ফাইভ-জি চালুর সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে সব পক্ষকে আহ্বান জানিয়েছেন তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।মঙ্গলবার (১২ মার্চ) রাজধানীর হোটেল লা ভিঞ্চিতে টেলিকম খাতের সাংবাদিকদের সংগঠন টেলিকম রিপোর্টার্স নেটওয়ার্ক বাংলাদেশের (টিআরএনবি) আয়োজনে ‘ডিজিটাল সেবায় ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক: বর্তমান ও ভবিষ্যৎ’ শীর্ষক এক গোলটেবিল আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন মোস্তাফা জব্বার। এ সময় নেটওয়ার্কিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো পরস্পরের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ করে।তিনি বলেন,পুরো দেশে এক রেটে ইন্টারনেট সেবা পৌঁছে দিতে কাজ করছে সরকার।
ন্যাশন ওয়াইড টেলিকমিউনিকেশন ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ক বা এনটিটিএন অপারেটর বাড়ালে উচ্চগতির ও সাশ্রয়ী মূল্যে ইন্টারনেট সেবা দেয়া যেত বলে মত দেন অনেকে। দাবি ওঠে গ্রাহক হয়রানির জন্য কোন পক্ষ দায়ী তা যাচাই-বাছাই করে চিহ্নিত করার।
বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, তারাও রেট কমাতে চান। বর্তমানে বছরে ১০ হাজার কোটি টাকা রাজস্ব আহরিত হয় উল্লেখ করে বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, ব্যবসার ক্ষতি করে রাজস্ব সংগ্রহ করতে চায়না সরকার। তবে কারো উপর যেমন সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেয়া হবে না তেমনি গ্রাহকেরও কোন ক্ষতি মেনে নেয়া হবে না বলেও উল্লেখ করেন তিনি। বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, আমরা চাই আপনারা ভালো ব্যবসা করেন। ভুল বুঝাবুঝি হলে সবাই মিলে বসলে ভুল বুঝাবুঝি ঠিক হবে।
মন্ত্রী বলেন, গ্রামে শহরের সুবিধা পৌঁছে দিতে এবং সব নাগরিককে একই রেটে ইন্টারনেট সেবা দিতে বদ্ধপরিকর সরকার। সেই সঙ্গে ২০২৩ সালের মধ্যে ফাইভ-জি সেবা দেয়ার সক্ষমতা অর্জনের জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী আরো বলেন, বাড়ি দুর্গম অঞ্চলে হলেই বাড়তি টাকা দিতে হবে তা গ্রহণযোগ্য না। আমাদের মধ্যে যে সমস্যা আছে তা আমরা কথা বলে সমাধান করবো। তিনি বলেন, ইন্টারনেট সেবায় শুধু অপারেটরদের নয়, এনটিটিএনদেরও ধরতে হবে। যেটুকু অপারেটর ও এনটিটিএনদের ক্ষমতায় আছে তা জনগণকে সর্বাচ্চ মান নিশ্চিত করতে হবে, কোনো রকমের অজুহাত দেওয়া যাবে না।
ঢাকা,মঙ্গলবার,১২ মার্চ,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY PopularITLimited