করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলাদেশে

নতুন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু
১৫৫৭ ৩,৫২,১৭৮ ২,৬০,৭৯০ ৫০০৭

নিয়মিত হেঁটেই নিজেকে সুস্থ রাখতে পারেন।

হাঁটা এমন একটি ব্যায়াম যা সব বয়সের জন্যই চলে। এর উপকারিতাও অনেক। নিয়মিত হেঁটেই নিজেকে সুস্থ রাখতে পারেন।কিন্তু ভালো থাকার জন্য নিয়মিত একটু হলেও শারীরিক পরিশ্রম জরুরি। চিকিৎসকেরা বলেন, হাঁটা এমন একটা উপায়, যার মাধ্যমে কষ্টসাধ্য পরিশ্রম ছাড়াও সহজেই সুস্থ থাকা যায়।হাঁটতে গেলে প্রথমেই যে ভাবনাটা আসে সেটা হলো; কখন হাঁটবেন? চিকিৎসকেরা বলছেন, যেকোনো সময়েই হাঁটতে পারেন। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে যখন আপনি হাঁটার জন্য যখন সময় বের করতে পারবেন, তখনই হাঁটবেন। তবে হাঁটার জন্য সবচেয়ে ভালো সময় বিকেল।

যারা সকালে হাঁটতে যান, তাদের জন্য পরামর্শ, ঘুম থেকে উঠেই হাঁটতে যাওয়া ঠিক না। ঘুম থেকে ওঠার কমপক্ষে ৩০ মিনিট পর হাঁটতে বের হওয়া উচিত।প্রতিদিন কমপক্ষে ৩০ মিনিট হাঁটা উচিত। তবে আপনি চাইলে সপ্তাহে প্রতিদিন নাও হাঁটতে পারেন। পাঁচ দিন ৩০ মিনিট করে ১৫০ মিনিট হাঁটলেও আপনি সুস্থ থাকবেন। মানে একজন মানুষের সপ্তাহে ১৫০ মিনিট হাঁটা জরুরি।

শারীরিক অবস্থা ভালো থাকলে আরও বেশি সময় ধরে আপনি হাঁটতে পারেন। তবে কখনোই ৩০ মিনিটের কম হাঁটা উচিত হবে না।

একবারে ৩০ মিনিট হাঁটার শারীরিক ক্ষমতা না থাকলে তিনবার ১০ মিনিট করে ৩০ মিনিট হাঁটতে পারেন। অথবা একবার ২০ মিনিট, অন্যবার ১০ মিনিট করে মোট ৩০ মিনিট করে নিতে পারেন।হাঁটার উপকারিতা :
১. ভালো ঘুমে সাহায্য করে
২. হাড় ও পেশি মজবুত করে
৩. ১৫ মিনিট হাঁটলে ৫৬ ক্যালোরি শক্তি খরচ হয়, ওজন কমে
৪. সৃজনশীল চিন্তা করতে সাহায্য করে
৫. মানসিক চাপ, উদ্বেগ ও টেনশন দূর করে শরীর-মন প্রাণবন্ত রাখে
৬. রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে
৭. ধমনির চাপ কমিয়ে হৃদরোগ প্রতিহত করে
৮. স্মৃতিশক্তি বাড়ায়

খাওয়ার ঠিক আগে বা খাওয়া শেষ করেই হাঁটা উচিত না। যারা সকাল-বিকেল বা সন্ধ্যার পর হাঁটতে সময় পান না, তারা তিন বেলা খাওয়ার পর ১০ মিনিট করে হাঁটতে পারেন।
লাইফস্টাইল,সোমবার, ১৩ জানুয়ারি, এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» করোনা মানুষের জীবনের মতো মেট্রোরেলেরও সবকিছু ওলট-পালট করে দিয়েছে

» দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়ে গেছে সংক্রমণরোধে স্বাস্থ্যবিভাগ প্রস্তুত

» সাভারে স্কুলছাত্রী হত্যার ঘটনায় বখাটে মিজানের সহযোগী সেলিম আটক

» আগামী ৪ অক্টোবর থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে উমরাহ পালনের জন্য খুলছে কাবাঘর

» প্লেনের টিকিটের দাবিতে প্রবাসীদের বিক্ষোভ

» নতুন করে আরও ১৫৫৭ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত,মৃত্যু ২৮ জন

» অস্ট্রেলিয়ার তাসমানিয়া উপকূলে প্রায় ৯০ টি তিমি মরে ভেসে উঠেছে

» নুরুল হক নুরের বিরুদ্ধে এবার অপহরণ-ধর্ষণ ও ডিজিটাল আইনে আরেক মামলা

» সাবেজ ডিআইজি প্রিজনস বজলুর র‌শিদের সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ,জামিন নামঞ্জুর

» মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরো একজনের মৃত্যু

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com




আজ বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ, ৮ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

নিয়মিত হেঁটেই নিজেকে সুস্থ রাখতে পারেন।

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

হাঁটা এমন একটি ব্যায়াম যা সব বয়সের জন্যই চলে। এর উপকারিতাও অনেক। নিয়মিত হেঁটেই নিজেকে সুস্থ রাখতে পারেন।কিন্তু ভালো থাকার জন্য নিয়মিত একটু হলেও শারীরিক পরিশ্রম জরুরি। চিকিৎসকেরা বলেন, হাঁটা এমন একটা উপায়, যার মাধ্যমে কষ্টসাধ্য পরিশ্রম ছাড়াও সহজেই সুস্থ থাকা যায়।হাঁটতে গেলে প্রথমেই যে ভাবনাটা আসে সেটা হলো; কখন হাঁটবেন? চিকিৎসকেরা বলছেন, যেকোনো সময়েই হাঁটতে পারেন। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে যখন আপনি হাঁটার জন্য যখন সময় বের করতে পারবেন, তখনই হাঁটবেন। তবে হাঁটার জন্য সবচেয়ে ভালো সময় বিকেল।

যারা সকালে হাঁটতে যান, তাদের জন্য পরামর্শ, ঘুম থেকে উঠেই হাঁটতে যাওয়া ঠিক না। ঘুম থেকে ওঠার কমপক্ষে ৩০ মিনিট পর হাঁটতে বের হওয়া উচিত।প্রতিদিন কমপক্ষে ৩০ মিনিট হাঁটা উচিত। তবে আপনি চাইলে সপ্তাহে প্রতিদিন নাও হাঁটতে পারেন। পাঁচ দিন ৩০ মিনিট করে ১৫০ মিনিট হাঁটলেও আপনি সুস্থ থাকবেন। মানে একজন মানুষের সপ্তাহে ১৫০ মিনিট হাঁটা জরুরি।

শারীরিক অবস্থা ভালো থাকলে আরও বেশি সময় ধরে আপনি হাঁটতে পারেন। তবে কখনোই ৩০ মিনিটের কম হাঁটা উচিত হবে না।

একবারে ৩০ মিনিট হাঁটার শারীরিক ক্ষমতা না থাকলে তিনবার ১০ মিনিট করে ৩০ মিনিট হাঁটতে পারেন। অথবা একবার ২০ মিনিট, অন্যবার ১০ মিনিট করে মোট ৩০ মিনিট করে নিতে পারেন।হাঁটার উপকারিতা :
১. ভালো ঘুমে সাহায্য করে
২. হাড় ও পেশি মজবুত করে
৩. ১৫ মিনিট হাঁটলে ৫৬ ক্যালোরি শক্তি খরচ হয়, ওজন কমে
৪. সৃজনশীল চিন্তা করতে সাহায্য করে
৫. মানসিক চাপ, উদ্বেগ ও টেনশন দূর করে শরীর-মন প্রাণবন্ত রাখে
৬. রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে
৭. ধমনির চাপ কমিয়ে হৃদরোগ প্রতিহত করে
৮. স্মৃতিশক্তি বাড়ায়

খাওয়ার ঠিক আগে বা খাওয়া শেষ করেই হাঁটা উচিত না। যারা সকাল-বিকেল বা সন্ধ্যার পর হাঁটতে সময় পান না, তারা তিন বেলা খাওয়ার পর ১০ মিনিট করে হাঁটতে পারেন।
লাইফস্টাইল,সোমবার, ১৩ জানুয়ারি, এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com

Translate »