করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলাদেশে

নতুন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু
১২৭৪৪ ১৩,২২,৬৫৪ ১১,৫৬,৯৪৩ ২১,৯০২

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রিজভী আহমেদসহ বিএনপির সব বক্তব্য খুনি ও খুনের পক্ষে

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রিজভী আহমেদসহ বিএনপি আবোল তাবোল বকা শুরু করেছে এবং তাদের এই বক্তব্য হচ্ছে খুনি ও খুনের পক্ষে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।বুধবার (১৯ আগস্ট) তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অভিনয় শিল্পী সংঘের সাথে সভার শুরুতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, জিয়াউর রহমানের সম্পৃক্ততা যখন দিবালোকের মতো স্পষ্ট হয়ে গেছে তখন তারা আবোল তাবোল বকা শুরু করেছে।মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রিজভী আহমেদসহ বিএনপি আবোল তাবোল বকা শুরু করেছে এবং তাদের এই বক্তব্য হচ্ছে খুনি ও খুনের পক্ষে। আমি তাদের অনুরোধ জানাব, তারা যেন খুনি ও খুনের পক্ষ অবস্থান না নেন।ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ষড়যন্ত্রের রাজনীতি তো বিএনপিই করে। বিএনপির পুরো রাজনীতি হচ্ছে ষড়যন্ত্রের উপর ভিত্তি করে। আর মিথ্যার রাজনীতি ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতি হচ্ছে বিএনপির রাজনীতির মূল প্রতিপাদ্য। আজকে যখন সব কিছু দিবালোকের মতো পরিষ্কার হয়ে গেছে জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের অন্যতম প্রধান কুশীলব ও হত্যাকাণ্ডের সাথে ওতপ্রোতভাবে যুক্ত ছিলেন। জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় আসার পর বঙ্গবন্ধু হত্যাকারীদের তিনি পুরষ্কৃত করে বিদেশি মিশনে চাকরি দিয়েছিলেন। ক্ষমতায় আসার পর ’৭৯ সালের পার্লামেন্টে ইনডেমনিটি অধ্যাদেশকে আইনে পরিণত করেছিলেন, যাতে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচার না হয়। ঘটনার প্রবাহ সাক্ষ্য দেয় জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত।

তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, আমি কাগজে ও টেলিভিশনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্য শুনেছি, দেখেছি ও পড়েছি। একই সাথে বিএনপির অন্যান্য নেকাকর্মীদের বক্তব্যও পড়েছি। জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সাথে অতপ্রোতভাবে জড়িত সেটা আজকে দিবালোকের মতো স্পষ্ট। আপনারা জানেন কর্নেল ফারুক রশিদ বিবিসির সাক্ষাৎকারে বলেছেন, তারা এই ষড়যন্ত্র যখন শুরু করে পাকাপোক্ত করে তখন জিয়াউর রহমানের কাছে গিয়েছিল। জিয়াউর রহমান তাদের এগিয়ে যেতে বলেছিলেন। তিনি পর্দার অন্তরালে থাকবেন। তার বক্তব্যটা এমনই ছিল— আমি যেহেতু সিনিয়র অফিসার আমি পর্দার অন্তরালে, তোমরা এগিয়ে যাও।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ক্যাপটেন মাজেদ যিনি বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের দন্ডপ্রাপ্ত আসামি। যার দণ্ড কিছুদিন আগে কার্যকর হয়েছে। তিনি তার ফাঁসির আগে যে বক্তব্য রেখেছেন এতেও স্পষ্ট জিয়াউর রহমান কীভাবে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সাথে যুক্ত ছিলেন।
ঢাকা,বুধবার, ১৯ আগষ্ট,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments Box

সর্বশেষ আপডেট



» ২০১৬ সাল থেকে নিয়মতি অ্যালকোহল সেবনে আসক্ত হয়ে পড়েন পরীমনি

» মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসার দুই সহযোগীর বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড মঞ্জুর

» নতুন করে আরও ১২৭৪৪ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত,মৃত্যু ২৬৪ জন

» সিঙ্গারের গোডাউনের লাগা আগুন দীর্ঘ ছয় ঘণ্টার চেষ্টায় নিভেছে

» চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে চেকপোস্টে মাইক্রোবাস চাপায় একজন পুলিশ সদস্য নিহত

» গণটিকা কার্যক্রম ৭ আগস্টের পরিবর্তে কার্যক্রম শুরু হবে ১৪ আগস্ট

» ৭ই সেপ্টেম্বরের আগে সিলেট-৩ আসনে উপ-নির্বাচনের জন্য নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট

» কাপাসিয়া উপজেলার রায়েদ এলাকায় এক গৃহবধূ খুন

» ১৫ আগস্টের ঘটনা জাতির পিতা ও দেশের মানুষের সঙ্গে চরম বিশ্বাসঘাতকতা

» আজ ৫ আগস্ট শেখ কামালের আজ ৭২তম জন্মদিন

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বৃহস্পতিবার, ৫ আগস্ট ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ, ২১শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রিজভী আহমেদসহ বিএনপির সব বক্তব্য খুনি ও খুনের পক্ষে




মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রিজভী আহমেদসহ বিএনপি আবোল তাবোল বকা শুরু করেছে এবং তাদের এই বক্তব্য হচ্ছে খুনি ও খুনের পক্ষে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।বুধবার (১৯ আগস্ট) তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অভিনয় শিল্পী সংঘের সাথে সভার শুরুতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, জিয়াউর রহমানের সম্পৃক্ততা যখন দিবালোকের মতো স্পষ্ট হয়ে গেছে তখন তারা আবোল তাবোল বকা শুরু করেছে।মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রিজভী আহমেদসহ বিএনপি আবোল তাবোল বকা শুরু করেছে এবং তাদের এই বক্তব্য হচ্ছে খুনি ও খুনের পক্ষে। আমি তাদের অনুরোধ জানাব, তারা যেন খুনি ও খুনের পক্ষ অবস্থান না নেন।ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ষড়যন্ত্রের রাজনীতি তো বিএনপিই করে। বিএনপির পুরো রাজনীতি হচ্ছে ষড়যন্ত্রের উপর ভিত্তি করে। আর মিথ্যার রাজনীতি ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতি হচ্ছে বিএনপির রাজনীতির মূল প্রতিপাদ্য। আজকে যখন সব কিছু দিবালোকের মতো পরিষ্কার হয়ে গেছে জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের অন্যতম প্রধান কুশীলব ও হত্যাকাণ্ডের সাথে ওতপ্রোতভাবে যুক্ত ছিলেন। জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় আসার পর বঙ্গবন্ধু হত্যাকারীদের তিনি পুরষ্কৃত করে বিদেশি মিশনে চাকরি দিয়েছিলেন। ক্ষমতায় আসার পর ’৭৯ সালের পার্লামেন্টে ইনডেমনিটি অধ্যাদেশকে আইনে পরিণত করেছিলেন, যাতে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচার না হয়। ঘটনার প্রবাহ সাক্ষ্য দেয় জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত।

তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, আমি কাগজে ও টেলিভিশনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্য শুনেছি, দেখেছি ও পড়েছি। একই সাথে বিএনপির অন্যান্য নেকাকর্মীদের বক্তব্যও পড়েছি। জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সাথে অতপ্রোতভাবে জড়িত সেটা আজকে দিবালোকের মতো স্পষ্ট। আপনারা জানেন কর্নেল ফারুক রশিদ বিবিসির সাক্ষাৎকারে বলেছেন, তারা এই ষড়যন্ত্র যখন শুরু করে পাকাপোক্ত করে তখন জিয়াউর রহমানের কাছে গিয়েছিল। জিয়াউর রহমান তাদের এগিয়ে যেতে বলেছিলেন। তিনি পর্দার অন্তরালে থাকবেন। তার বক্তব্যটা এমনই ছিল— আমি যেহেতু সিনিয়র অফিসার আমি পর্দার অন্তরালে, তোমরা এগিয়ে যাও।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ক্যাপটেন মাজেদ যিনি বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের দন্ডপ্রাপ্ত আসামি। যার দণ্ড কিছুদিন আগে কার্যকর হয়েছে। তিনি তার ফাঁসির আগে যে বক্তব্য রেখেছেন এতেও স্পষ্ট জিয়াউর রহমান কীভাবে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সাথে যুক্ত ছিলেন।
ঢাকা,বুধবার, ১৯ আগষ্ট,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Hbnews24 || Phone: +8801714043198, email: hbnews24@gmail.com

Translate »
error: Alert: Content is protected !!