করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলাদেশে

নতুন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু
১৫৪৪ ৩,৪৮,৯১৬ ২,৫৬,৫৬৫ ৪৯৩৯

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রিজভী আহমেদসহ বিএনপির সব বক্তব্য খুনি ও খুনের পক্ষে

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রিজভী আহমেদসহ বিএনপি আবোল তাবোল বকা শুরু করেছে এবং তাদের এই বক্তব্য হচ্ছে খুনি ও খুনের পক্ষে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।বুধবার (১৯ আগস্ট) তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অভিনয় শিল্পী সংঘের সাথে সভার শুরুতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, জিয়াউর রহমানের সম্পৃক্ততা যখন দিবালোকের মতো স্পষ্ট হয়ে গেছে তখন তারা আবোল তাবোল বকা শুরু করেছে।মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রিজভী আহমেদসহ বিএনপি আবোল তাবোল বকা শুরু করেছে এবং তাদের এই বক্তব্য হচ্ছে খুনি ও খুনের পক্ষে। আমি তাদের অনুরোধ জানাব, তারা যেন খুনি ও খুনের পক্ষ অবস্থান না নেন।ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ষড়যন্ত্রের রাজনীতি তো বিএনপিই করে। বিএনপির পুরো রাজনীতি হচ্ছে ষড়যন্ত্রের উপর ভিত্তি করে। আর মিথ্যার রাজনীতি ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতি হচ্ছে বিএনপির রাজনীতির মূল প্রতিপাদ্য। আজকে যখন সব কিছু দিবালোকের মতো পরিষ্কার হয়ে গেছে জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের অন্যতম প্রধান কুশীলব ও হত্যাকাণ্ডের সাথে ওতপ্রোতভাবে যুক্ত ছিলেন। জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় আসার পর বঙ্গবন্ধু হত্যাকারীদের তিনি পুরষ্কৃত করে বিদেশি মিশনে চাকরি দিয়েছিলেন। ক্ষমতায় আসার পর ’৭৯ সালের পার্লামেন্টে ইনডেমনিটি অধ্যাদেশকে আইনে পরিণত করেছিলেন, যাতে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচার না হয়। ঘটনার প্রবাহ সাক্ষ্য দেয় জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত।

তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, আমি কাগজে ও টেলিভিশনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্য শুনেছি, দেখেছি ও পড়েছি। একই সাথে বিএনপির অন্যান্য নেকাকর্মীদের বক্তব্যও পড়েছি। জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সাথে অতপ্রোতভাবে জড়িত সেটা আজকে দিবালোকের মতো স্পষ্ট। আপনারা জানেন কর্নেল ফারুক রশিদ বিবিসির সাক্ষাৎকারে বলেছেন, তারা এই ষড়যন্ত্র যখন শুরু করে পাকাপোক্ত করে তখন জিয়াউর রহমানের কাছে গিয়েছিল। জিয়াউর রহমান তাদের এগিয়ে যেতে বলেছিলেন। তিনি পর্দার অন্তরালে থাকবেন। তার বক্তব্যটা এমনই ছিল— আমি যেহেতু সিনিয়র অফিসার আমি পর্দার অন্তরালে, তোমরা এগিয়ে যাও।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ক্যাপটেন মাজেদ যিনি বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের দন্ডপ্রাপ্ত আসামি। যার দণ্ড কিছুদিন আগে কার্যকর হয়েছে। তিনি তার ফাঁসির আগে যে বক্তব্য রেখেছেন এতেও স্পষ্ট জিয়াউর রহমান কীভাবে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সাথে যুক্ত ছিলেন।
ঢাকা,বুধবার, ১৯ আগষ্ট,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» শত কোটি টাকার মালিক স্বাস্থ্যের ডিজির ড্রাইভার আব্দুল মালেক গ্রেপ্তার

» নতুন করে আরও ১৫৪৪ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত,মৃত্যু ২৬ জন

» মির্জা ফখরুলসহ অন্যান্য নেতাদের বক্তব্যে খালেদা জিয়াকে ফের কারাগারে পাঠানোর জন্য দাবি উঠতে পারে

» বিএনপির আন্দোলনের হাক-ডাক আর তর্জন গর্জনই শুধু শোনা যায়, কিন্তু বর্ষণ দেখা যায় না

» বেগম খালেদা জিয়ার নাশকতার তিন ও মানহানির এক মামলায় কার্যক্রমের স্থগিতাদেশ বহাল

» আবরার হত্যা: বাদি অসুস্থ থাকায় পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণ ৫ অক্টোবর

» রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান শাহেদের অস্ত্র মামলার রায় ২৮শে সেপ্টেম্বর

» রাজধানীর ডেমরায় স্টিল মিলে লোহা গলানোর ভাট্টি বিস্ফোরণ, ৫জন দগ্ধ

» রাজধানীর বনানীর আহমেদ টাওয়ারের আগুন নিয়ন্ত্রণে

» ময়মনসিংহে মাইক্রোবাস ও পিকআপ ভ্যানের সংঘর্ষে বাবা ও ছেলের মৃত্যু

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com




আজ সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ, ৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রিজভী আহমেদসহ বিএনপির সব বক্তব্য খুনি ও খুনের পক্ষে

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রিজভী আহমেদসহ বিএনপি আবোল তাবোল বকা শুরু করেছে এবং তাদের এই বক্তব্য হচ্ছে খুনি ও খুনের পক্ষে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।বুধবার (১৯ আগস্ট) তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অভিনয় শিল্পী সংঘের সাথে সভার শুরুতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তথ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, জিয়াউর রহমানের সম্পৃক্ততা যখন দিবালোকের মতো স্পষ্ট হয়ে গেছে তখন তারা আবোল তাবোল বকা শুরু করেছে।মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও রিজভী আহমেদসহ বিএনপি আবোল তাবোল বকা শুরু করেছে এবং তাদের এই বক্তব্য হচ্ছে খুনি ও খুনের পক্ষে। আমি তাদের অনুরোধ জানাব, তারা যেন খুনি ও খুনের পক্ষ অবস্থান না নেন।ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ষড়যন্ত্রের রাজনীতি তো বিএনপিই করে। বিএনপির পুরো রাজনীতি হচ্ছে ষড়যন্ত্রের উপর ভিত্তি করে। আর মিথ্যার রাজনীতি ও ষড়যন্ত্রের রাজনীতি হচ্ছে বিএনপির রাজনীতির মূল প্রতিপাদ্য। আজকে যখন সব কিছু দিবালোকের মতো পরিষ্কার হয়ে গেছে জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের অন্যতম প্রধান কুশীলব ও হত্যাকাণ্ডের সাথে ওতপ্রোতভাবে যুক্ত ছিলেন। জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় আসার পর বঙ্গবন্ধু হত্যাকারীদের তিনি পুরষ্কৃত করে বিদেশি মিশনে চাকরি দিয়েছিলেন। ক্ষমতায় আসার পর ’৭৯ সালের পার্লামেন্টে ইনডেমনিটি অধ্যাদেশকে আইনে পরিণত করেছিলেন, যাতে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচার না হয়। ঘটনার প্রবাহ সাক্ষ্য দেয় জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত।

তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, আমি কাগজে ও টেলিভিশনে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্য শুনেছি, দেখেছি ও পড়েছি। একই সাথে বিএনপির অন্যান্য নেকাকর্মীদের বক্তব্যও পড়েছি। জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সাথে অতপ্রোতভাবে জড়িত সেটা আজকে দিবালোকের মতো স্পষ্ট। আপনারা জানেন কর্নেল ফারুক রশিদ বিবিসির সাক্ষাৎকারে বলেছেন, তারা এই ষড়যন্ত্র যখন শুরু করে পাকাপোক্ত করে তখন জিয়াউর রহমানের কাছে গিয়েছিল। জিয়াউর রহমান তাদের এগিয়ে যেতে বলেছিলেন। তিনি পর্দার অন্তরালে থাকবেন। তার বক্তব্যটা এমনই ছিল— আমি যেহেতু সিনিয়র অফিসার আমি পর্দার অন্তরালে, তোমরা এগিয়ে যাও।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ক্যাপটেন মাজেদ যিনি বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের দন্ডপ্রাপ্ত আসামি। যার দণ্ড কিছুদিন আগে কার্যকর হয়েছে। তিনি তার ফাঁসির আগে যে বক্তব্য রেখেছেন এতেও স্পষ্ট জিয়াউর রহমান কীভাবে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সাথে যুক্ত ছিলেন।
ঢাকা,বুধবার, ১৯ আগষ্ট,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com

Translate »