ঘুমই বলে দেবে আপনি সুস্থ কিনা

নিজেদের যত্ন নিতে, স্বাস্থ্য ভাল রাখতে আমরা ডায়েট, জিম করা নিয়ে যতটা মাথা ঘামাই, ঘুমকে ঠিক ততটাই অবহেলা করি। অথচ আধুনিক বিশেষজ্ঞরা সুস্থ থাকার জন্য সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব ঘুমকেই দেন। তাঁরা জানাচ্ছেন, ভাল ঘুম যেন আমাদের স্বাস্থ্য ভাল রাখে তেমনই এতে আমাদের কর্মক্ষমতা বাড়ে। যাঁদের অফিসে কাজের শিফট পরিবর্তিত হয় তাঁদের ঘুম নানা ভাবে বিঘ্নিত হয়। কারণ, ভাল ঘুম হওয়ার জন্য বিশেষজ্ঞদের প্রাথমিক শর্তই হল ঘুমাতে যাওয়ার নির্দিষ্ট সময় মেনে চলা।
কীভাবে বুঝবেন আপনার যথেষ্ট ভাল ঘুম হচ্ছে কিনা? যদি বিছানায় শোওয়ার ৩০ মিনিটের মধ্যেই ঘুমিয়ে পড়েন ও রাতে একবারের বেশি ঘুম না ভাঙে তাহলে আপনার অভ্যাস ভাল ও স্বাস্থ্যকর ঘুম হচ্ছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশলান স্লিপ ফাউন্ডেশন (এনএসএফ) প্রকাশিত রিপোর্টে বলা হয়েছে, যতক্ষণ আপনি
বিছানায় শুয়ে রয়েছেন তার ৮৫% সময় যদি টানা ঘুম হয় এবং মাঝ রাতে ঘুম ভেঙে গেলে ২০ মিনিটের মধ্যে যদি আবার ঘুমিয়ে পড়তে পারেন তাহলে ঘুম আপনার স্বাস্থ্য ভাল প্রভাব ফেলবে।ঘুম কম হলে কী কী সমস্যা হতে পারে? গবেষকরা জানাচ্ছেন, ঘুম কম হলে মেজাজ হারানো, অবসাদ, হার্টের
সমস্যা, মোটা হয়ে যাওয়া, হঠাৎ দুর্বল হয়ে পড়ার মতো সমস্যা হতে পারে। এনএসএফ-এর সাম্প্রতিক স্লিপ হেলথ ইনডেক্স বলছে, সারা বিশ্বের ২৭ শতাংশ মানুষের বিছানায় শোওয়ার পর ঘুম আসতে ৩০ মিনিটের বেশি সময় লাগে। আর তাই বাড়ছে স্লিপ ডিজঅর্ডারের সমস্যা। কেন বর্তমান প্রজন্ম এত বেশি স্লিপ ডিজঅর্ডারের শিকার? মূলত অতিরিক্ত স্ট্রেস ও টেকনোলজি নির্ভরশীলতাই এর কারণ বলছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে নিজেদের ঘুমের মান পরীক্ষা করতে টেকনোলজির সাহায্যই নিতে বলছেন তাঁরা। মার্কিন গবেষকরা তৈরি করেছেন স্লিপ টেকনোলজি ডিভাইস। ঘুমের সময় যদি এই গ্যাজেট পরে নেয়া হয় বা খাটের পাশের টেবলে রাখা হয় তাহলে এই গ্যাজেটই বলে দেবে আপনি কতক্ষণ
ঘুমাচ্ছেন, কতক্ষণ সময় গভীর ঘুম হচ্ছে, কতক্ষণ সময় হালকা ঘুম হচ্ছে, কত বার ঘুম ভাঙছে ও আবার ঘুমিয়ে পড়তে কতক্ষণ সময় লাগছে। স্লিপ হেলথ জার্নালে এই গবেষণার ফল প্রকাশিত হয়েছে।
মঞ্জুর আহমেদ শামিম
লাইফস্টাইল,বৃহস্পতিবার, ০২ মার্চ, এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» ভারতের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি জোটের বিশাল জয়, নরেন্দ্র মোদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অভিনন্দন

» আসন্ন ঈদ উপলক্ষে নগরীতে জনগণের নিরাপত্তা বিধানে সবধরণের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে-ডিএমপি কমিশনার

» ঈদযাত্রা স্বস্তির করতে সম্মিলিত উদ্যোগ নিতে হবে-ওবায়দুল কাদের

» ৫২টি মানহীন পণ্যের একটিও বাজার থেকে না সরানোয় নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যানকে হাইকোর্টে তলব

» ব্যাংককে চিকিৎসা শেষে আজ সন্ধায় দেশে ফিরবেন মির্জা ফখরুল

» নির্বাচনে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনের পথে এগিয়ে চলেছে বিজেপি

» সংগীতশিল্পী খালিদ হোসেনকে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা

» গাজীপুরে সিলিন্ডার লিকেজ থেকে অগ্নিকাণ্ড দুই শিশুসহ এক পরিবারের চারজনের মৃত্যু

» রাজধানীর বনশ্রী এলাকায় কাভার্ড ভ্যানচাপায় এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু

» কুয়াকাটা সৈকতে ভেসে আসছে মৃত কচ্ছপ

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

ঘুমই বলে দেবে আপনি সুস্থ কিনা

নিজেদের যত্ন নিতে, স্বাস্থ্য ভাল রাখতে আমরা ডায়েট, জিম করা নিয়ে যতটা মাথা ঘামাই, ঘুমকে ঠিক ততটাই অবহেলা করি। অথচ আধুনিক বিশেষজ্ঞরা সুস্থ থাকার জন্য সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব ঘুমকেই দেন। তাঁরা জানাচ্ছেন, ভাল ঘুম যেন আমাদের স্বাস্থ্য ভাল রাখে তেমনই এতে আমাদের কর্মক্ষমতা বাড়ে। যাঁদের অফিসে কাজের শিফট পরিবর্তিত হয় তাঁদের ঘুম নানা ভাবে বিঘ্নিত হয়। কারণ, ভাল ঘুম হওয়ার জন্য বিশেষজ্ঞদের প্রাথমিক শর্তই হল ঘুমাতে যাওয়ার নির্দিষ্ট সময় মেনে চলা।
কীভাবে বুঝবেন আপনার যথেষ্ট ভাল ঘুম হচ্ছে কিনা? যদি বিছানায় শোওয়ার ৩০ মিনিটের মধ্যেই ঘুমিয়ে পড়েন ও রাতে একবারের বেশি ঘুম না ভাঙে তাহলে আপনার অভ্যাস ভাল ও স্বাস্থ্যকর ঘুম হচ্ছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশলান স্লিপ ফাউন্ডেশন (এনএসএফ) প্রকাশিত রিপোর্টে বলা হয়েছে, যতক্ষণ আপনি
বিছানায় শুয়ে রয়েছেন তার ৮৫% সময় যদি টানা ঘুম হয় এবং মাঝ রাতে ঘুম ভেঙে গেলে ২০ মিনিটের মধ্যে যদি আবার ঘুমিয়ে পড়তে পারেন তাহলে ঘুম আপনার স্বাস্থ্য ভাল প্রভাব ফেলবে।ঘুম কম হলে কী কী সমস্যা হতে পারে? গবেষকরা জানাচ্ছেন, ঘুম কম হলে মেজাজ হারানো, অবসাদ, হার্টের
সমস্যা, মোটা হয়ে যাওয়া, হঠাৎ দুর্বল হয়ে পড়ার মতো সমস্যা হতে পারে। এনএসএফ-এর সাম্প্রতিক স্লিপ হেলথ ইনডেক্স বলছে, সারা বিশ্বের ২৭ শতাংশ মানুষের বিছানায় শোওয়ার পর ঘুম আসতে ৩০ মিনিটের বেশি সময় লাগে। আর তাই বাড়ছে স্লিপ ডিজঅর্ডারের সমস্যা। কেন বর্তমান প্রজন্ম এত বেশি স্লিপ ডিজঅর্ডারের শিকার? মূলত অতিরিক্ত স্ট্রেস ও টেকনোলজি নির্ভরশীলতাই এর কারণ বলছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে নিজেদের ঘুমের মান পরীক্ষা করতে টেকনোলজির সাহায্যই নিতে বলছেন তাঁরা। মার্কিন গবেষকরা তৈরি করেছেন স্লিপ টেকনোলজি ডিভাইস। ঘুমের সময় যদি এই গ্যাজেট পরে নেয়া হয় বা খাটের পাশের টেবলে রাখা হয় তাহলে এই গ্যাজেটই বলে দেবে আপনি কতক্ষণ
ঘুমাচ্ছেন, কতক্ষণ সময় গভীর ঘুম হচ্ছে, কতক্ষণ সময় হালকা ঘুম হচ্ছে, কত বার ঘুম ভাঙছে ও আবার ঘুমিয়ে পড়তে কতক্ষণ সময় লাগছে। স্লিপ হেলথ জার্নালে এই গবেষণার ফল প্রকাশিত হয়েছে।
মঞ্জুর আহমেদ শামিম
লাইফস্টাইল,বৃহস্পতিবার, ০২ মার্চ, এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY PopularITLimited