করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলাদেশে

নতুন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু
৬১৪ ৫,৪৭,৯৩০ ৪,৯৯,৬২৭ ৮৪২৮

শহীদ আসাদ দিবস আজ

১৯৬৯ সালের ২০ই জানুয়ারী পাকিস্তানি স্বৈরশাসকরে বিরুদ্ধে এ দেশের ছাত্র সমাজের ১১-দফা দাবির মিছিলে নেতৃত্ব দিতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে শহীদ হন ছাত্রনেতা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী আসাদ।
শহীদ আসাদের মৃত্যুতে শুধু তৎকালীন সামরিক সরকার আইয়ুব খানের পতন নয়- একধাপ এগোয় বঙ্গবন্ধুর স্বাধীন বাংলার স্বপ্নও। এর জের ধরেই ২৪শে জানুয়ারি সংঘঠিত হয় গণ অভ্যুত্থান। আজ শহীদ আসাদ দিবস, বাঙালীর মুক্তি সংগ্রামের ইতিহাসের তাৎপর্যপূর্ণ একটি দিন।

১৯৬৬ সালে বাঙালীর নেতা শেখ মুজিবের মুক্তির সনদ ৬ দফা ঘোষণা। তার কৌশলী স্বাধীনতা প্রস্তাবে নড়েচড়ে বসে স্বৈরশাসক আইয়ুব সরকার। পাকিস্তান সামরিক জান্তা আগড়তলা ষড়যন্ত্র মামলায় ফাঁসিয়ে দেয় বঙ্গবন্ধুসহ ৩৮ জনকে। বিক্ষোভে ফেটে পড়ে পুরো জাতি।

১৯৬৯ সালের প্রথম সপ্তাহে সর্বদলীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ ১১ দফা পেশ করে। পূর্ব পরিকবল্পনা অনুযায়ী ১৯৬৯ সালের ২০শে জানুয়ারি স্বৈরাচার আইয়ুব সরকারের বিরুদ্ধে ছাত্রসমাজের ১১ দফা বাস্তবায়নে মিছিলে একাংশের নেতৃত্বে ছিলেন আসাদ। ঢাকা মেডিক্যাল হয়ে মিছিল চানখাঁর পুলের দিকে অগ্রসর হলে বাধা দেয় পুলিশ। শুরু হয় সংঘর্ষ। পুলিশের গুলিবর্ষণ। এমন সময় পুলিশের গুলির আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন আসাদ।

আসাদের শোকে ২৪শে জানুয়ারী বঙ্গবন্ধুর ৬দফা ও ছাত্রসমাজের ১১ দফা সমন্বয়ে উত্তাল হয়ে উঠে ঢাকাসহ সারা বাংলা। সংঘটিত হয় ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান। পতন ঘটে আইয়ুব খানের। আরেক স্বৈরশাসক ইয়াহিয়া খান ক্ষমতায় বসে সাধারণ নির্বাচনের ঘোষণা দেন। পরে সত্তরের অভূতপূর্ব নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়। কিন্তু ইয়াহিয়া ক্ষমতা না ছাড়ার জন্য নানা টালবাহানা শুরু করেন। সেই ধারাবাহিকতায় একাত্তরে শুরু হয় মুক্তিযুদ্ধ।

ঢাকা,বুধবার,২০ জানুয়ারি,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» বাস-মাইক্রোবাস সংঘর্ষে ফরিদপুর নগরকান্দা পৌর মেয়রের স্ত্রীসহ তিনজন নিহত

» প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

» প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম আর নেই

» ষষ্ঠধাপে আগামী ১১ এপ্রিল ৩৭১ ইউপি ও ১১ পৌরসভায় ভোট

» নতুন করে আরও ৬১৪ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত,মৃত্যু ৫ জন

» মাহবুব তালুকদার ইসি ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করেননি,বরং সিইসিই নির্বাচন ব্যবস্থা ধ্বংস করে দিয়েছেন

» পঞ্চম দফায় ২ হাজার ২৬০ জন ভাসানচরে রওনা হয়েছেন

» কার্টুনিস্ট আহমেদ কবির কিশোরকে ৬ মাসের জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট

» সাতছড়ি গহীন জঙ্গলে ভারী অস্ত্রের সন্ধানে অভিযান,রকেট লঞ্চারের গোলা উদ্ধার

» স্পেৎসিয়ার বিপক্ষে সিরি আর ম্যাচটি ৩-০ গোলে জিতেছে জুভেন্টাস

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বৃহস্পতিবার, ৪ মার্চ ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ, ১৯শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শহীদ আসাদ দিবস আজ

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

১৯৬৯ সালের ২০ই জানুয়ারী পাকিস্তানি স্বৈরশাসকরে বিরুদ্ধে এ দেশের ছাত্র সমাজের ১১-দফা দাবির মিছিলে নেতৃত্ব দিতে গিয়ে পুলিশের গুলিতে শহীদ হন ছাত্রনেতা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী আসাদ।
শহীদ আসাদের মৃত্যুতে শুধু তৎকালীন সামরিক সরকার আইয়ুব খানের পতন নয়- একধাপ এগোয় বঙ্গবন্ধুর স্বাধীন বাংলার স্বপ্নও। এর জের ধরেই ২৪শে জানুয়ারি সংঘঠিত হয় গণ অভ্যুত্থান। আজ শহীদ আসাদ দিবস, বাঙালীর মুক্তি সংগ্রামের ইতিহাসের তাৎপর্যপূর্ণ একটি দিন।

১৯৬৬ সালে বাঙালীর নেতা শেখ মুজিবের মুক্তির সনদ ৬ দফা ঘোষণা। তার কৌশলী স্বাধীনতা প্রস্তাবে নড়েচড়ে বসে স্বৈরশাসক আইয়ুব সরকার। পাকিস্তান সামরিক জান্তা আগড়তলা ষড়যন্ত্র মামলায় ফাঁসিয়ে দেয় বঙ্গবন্ধুসহ ৩৮ জনকে। বিক্ষোভে ফেটে পড়ে পুরো জাতি।

১৯৬৯ সালের প্রথম সপ্তাহে সর্বদলীয় ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ ১১ দফা পেশ করে। পূর্ব পরিকবল্পনা অনুযায়ী ১৯৬৯ সালের ২০শে জানুয়ারি স্বৈরাচার আইয়ুব সরকারের বিরুদ্ধে ছাত্রসমাজের ১১ দফা বাস্তবায়নে মিছিলে একাংশের নেতৃত্বে ছিলেন আসাদ। ঢাকা মেডিক্যাল হয়ে মিছিল চানখাঁর পুলের দিকে অগ্রসর হলে বাধা দেয় পুলিশ। শুরু হয় সংঘর্ষ। পুলিশের গুলিবর্ষণ। এমন সময় পুলিশের গুলির আঘাতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন আসাদ।

আসাদের শোকে ২৪শে জানুয়ারী বঙ্গবন্ধুর ৬দফা ও ছাত্রসমাজের ১১ দফা সমন্বয়ে উত্তাল হয়ে উঠে ঢাকাসহ সারা বাংলা। সংঘটিত হয় ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান। পতন ঘটে আইয়ুব খানের। আরেক স্বৈরশাসক ইয়াহিয়া খান ক্ষমতায় বসে সাধারণ নির্বাচনের ঘোষণা দেন। পরে সত্তরের অভূতপূর্ব নির্বাচনে আওয়ামী লীগ নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়। কিন্তু ইয়াহিয়া ক্ষমতা না ছাড়ার জন্য নানা টালবাহানা শুরু করেন। সেই ধারাবাহিকতায় একাত্তরে শুরু হয় মুক্তিযুদ্ধ।

ঢাকা,বুধবার,২০ জানুয়ারি,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com

Translate »
error: Alert: Content is protected !!