করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলাদেশে

নতুন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু
১৮৬২ ১৫,৩৮,২০৩ ১৪,৯৪,০৯০ ২৭,১০৯

সব ধর্মের মানুষের মিলিত রক্তস্রোতের বিনিময়ে বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে-তথ্যমন্ত্রী

সব ধর্মের মানুষের মিলিত রক্তস্রোতের বিনিময়ে বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্য এবং সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।বুধবার (২৬ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানী শাহবাগ জাতীয় যাদুঘরের সামনে শুভ বৌদ্ধ পূর্ণিমা জাতীয় সম্মিলিত প্রতীকী শান্তি শোভাযাত্রা ও সম্প্রীতি উৎসব এর উদ্বোধন উপলক্ষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।তথ্য এবং সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আমাদের এ দেশ রচিত হয়েছে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ও মুসলমান সবার মিলিত রক্তস্রোতের বিনিময়ে। বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার অন্যতম মূল কারণ ছিল সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র ব্যবস্থা পাকিস্তান থেকে বেরিয়ে অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রের রচনা। সেজন্যই আমাদের সংবিধানে ধর্মনিরপেক্ষতা আছে। ধর্ম নিরপেক্ষতার অনেক অপব্যাখ্যা দেওয়া হয়। ধর্মনিরপেক্ষতা মানে প্রত্যেকে স্বাধীনভাবে নিজ নিজ ধর্ম পালন করবে। ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রেও ধর্ম নিরপেক্ষতা হয়েছে, ইরাক রাষ্ট্রেও ধর্মনিরপেক্ষতা রয়েছে।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান বলেন, আমাদের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায়, সব ধর্ম এবং মতামতের অধিকার প্রতিষ্ঠায় অনেকগুলো যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। সাম্প্রদায়িক অপশক্তি মাঝেমধ্যে মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে, সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প ছড়ানোর অপচেষ্টা চালায়, আমাদের সরকার সব সময় সেটা কঠোর হস্তে দমন করেছে। ভবিষ্যতেও সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে কঠোর হস্তে দমন করা হবে।

তিনি বলেন, আমাদের প্রথম পরিচয় হচ্ছে আমরা বাঙালি। এরপর আমাদের পরিচয় হচ্ছে আমরা মুসলমান, কেউ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান। কিন্তু বাংলাদেশের একটি পক্ষ রয়েছে, যারা তাদের ধর্মীয় পরিচয়কে প্রথম পরিচয় মনে করেন। তাদের দ্বিতীয় পরিচয় বাঙালি না বাংলাদেশি এটা নিয়ে তারা সার্বক্ষণিক দ্বিধাদ্বন্দ্বে থাকেন। সেখানেই তাদের সঙ্গে আমাদের পার্থক্য।

‘সব ধর্মের মর্ম বাণী হচ্ছে মানুষের মধ্যে সম্প্রীতি ও সাম্য প্রতিষ্ঠা করা। বৌদ্ধধর্ম আরো একধাপ এগিয়ে সব জীবের কল্যাণের কথা বলেছে। আমরা যদি ধর্মের মর্ম বাণী বুকে ধারণ করে সেটা অনুশীলন করি তাহলে পৃথিবীতে হানাহানি কখনোই থাকতো না। তাই আজকের দিনে আমি সবার প্রতি অনুরোধ করবো আমরা যেন ধর্মের মর্ম বাণী বুকে ধারণ করে সবার জন্য সাম্য এবং সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায় কাজ করি।

সব ধর্মের মানুষের প্রতি তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান আহ্বান জানিয়ে বলেন, যে চেতনার ভিত্তিতে আমাদের পূর্বসূরী মুক্তিযোদ্ধারা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলাদেশ রচনা করেছিল, সেই চেতনার গায়ে কেউ যেন কালিমা লেপন করতে না পারে, সেই চেতনাকে কেউ যেন নস্যাৎ করতে না পারে, সেজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।উদ্বোধন ও আলোচনা সভা শেষে মানবিক সহায়তা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ২৫০টি পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়।
এরপর প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিসহ সবাই প্রতীকী শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন।
ঢাকা,বুধবার,২৬ মে,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

সর্বশেষ আপডেট



» নতুন করে আরও ১৩৮৩ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত,মৃত্যু ৪৩ জন

» ফোনে আড়িপাতা বন্ধে করা রিটের আদেশ ২৯শে সেপ্টেম্বর

» সাবেক ডিআইজি প্রিজন্স পার্থগোপাল বণিকেকে আত্মসমর্পণের পর কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত

» ইভ্যালির রাসেল দম্পতির বিরুদ্ধে ধানমন্ডি থানায় আরেক মামলা

» সাংবাদিকদের ব্যাংক হিসাব তলবের প্রতিবাদে জাতীয় প্রেসক্লাবে সমাবেশ

» বিএনপির ৩৯ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি ২১শে নভেম্বর

» খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিতের মেয়াদ আরও ছয় মাস বাড়ানো হয়েছে

» বান্দরবানে দর্শনার্থীদের জিপকে লক্ষ্য করে গুলি সন্ত্রাসীদের গুলি, আহত ২

» নতুন করে আরও ১১৯০ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত,মৃত্যু ৩৫ জন

» ১২ থেকে ১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে ফাইজারের টিকা দেওয়া হবে

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ, ৫ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

সব ধর্মের মানুষের মিলিত রক্তস্রোতের বিনিময়ে বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে-তথ্যমন্ত্রী




সব ধর্মের মানুষের মিলিত রক্তস্রোতের বিনিময়ে বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বলে উল্লেখ করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্য এবং সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।বুধবার (২৬ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানী শাহবাগ জাতীয় যাদুঘরের সামনে শুভ বৌদ্ধ পূর্ণিমা জাতীয় সম্মিলিত প্রতীকী শান্তি শোভাযাত্রা ও সম্প্রীতি উৎসব এর উদ্বোধন উপলক্ষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।তথ্য এবং সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, আমাদের এ দেশ রচিত হয়েছে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ও মুসলমান সবার মিলিত রক্তস্রোতের বিনিময়ে। বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার অন্যতম মূল কারণ ছিল সাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র ব্যবস্থা পাকিস্তান থেকে বেরিয়ে অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্রের রচনা। সেজন্যই আমাদের সংবিধানে ধর্মনিরপেক্ষতা আছে। ধর্ম নিরপেক্ষতার অনেক অপব্যাখ্যা দেওয়া হয়। ধর্মনিরপেক্ষতা মানে প্রত্যেকে স্বাধীনভাবে নিজ নিজ ধর্ম পালন করবে। ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রেও ধর্ম নিরপেক্ষতা হয়েছে, ইরাক রাষ্ট্রেও ধর্মনিরপেক্ষতা রয়েছে।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান বলেন, আমাদের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায়, সব ধর্ম এবং মতামতের অধিকার প্রতিষ্ঠায় অনেকগুলো যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। সাম্প্রদায়িক অপশক্তি মাঝেমধ্যে মাথাচাড়া দিয়ে ওঠে, সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প ছড়ানোর অপচেষ্টা চালায়, আমাদের সরকার সব সময় সেটা কঠোর হস্তে দমন করেছে। ভবিষ্যতেও সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে কঠোর হস্তে দমন করা হবে।

তিনি বলেন, আমাদের প্রথম পরিচয় হচ্ছে আমরা বাঙালি। এরপর আমাদের পরিচয় হচ্ছে আমরা মুসলমান, কেউ হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান। কিন্তু বাংলাদেশের একটি পক্ষ রয়েছে, যারা তাদের ধর্মীয় পরিচয়কে প্রথম পরিচয় মনে করেন। তাদের দ্বিতীয় পরিচয় বাঙালি না বাংলাদেশি এটা নিয়ে তারা সার্বক্ষণিক দ্বিধাদ্বন্দ্বে থাকেন। সেখানেই তাদের সঙ্গে আমাদের পার্থক্য।

‘সব ধর্মের মর্ম বাণী হচ্ছে মানুষের মধ্যে সম্প্রীতি ও সাম্য প্রতিষ্ঠা করা। বৌদ্ধধর্ম আরো একধাপ এগিয়ে সব জীবের কল্যাণের কথা বলেছে। আমরা যদি ধর্মের মর্ম বাণী বুকে ধারণ করে সেটা অনুশীলন করি তাহলে পৃথিবীতে হানাহানি কখনোই থাকতো না। তাই আজকের দিনে আমি সবার প্রতি অনুরোধ করবো আমরা যেন ধর্মের মর্ম বাণী বুকে ধারণ করে সবার জন্য সাম্য এবং সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠায় কাজ করি।

সব ধর্মের মানুষের প্রতি তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান আহ্বান জানিয়ে বলেন, যে চেতনার ভিত্তিতে আমাদের পূর্বসূরী মুক্তিযোদ্ধারা বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলাদেশ রচনা করেছিল, সেই চেতনার গায়ে কেউ যেন কালিমা লেপন করতে না পারে, সেই চেতনাকে কেউ যেন নস্যাৎ করতে না পারে, সেজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।উদ্বোধন ও আলোচনা সভা শেষে মানবিক সহায়তা কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ২৫০টি পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়।
এরপর প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিসহ সবাই প্রতীকী শোভাযাত্রায় অংশগ্রহণ করেন।
ঢাকা,বুধবার,২৬ মে,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Hbnews24 || Phone: +8801714043198, email: hbnews24@gmail.com