করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলাদেশে

নতুন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু
১৮৬২ ১৫,৩৮,২০৩ ১৪,৯৪,০৯০ ২৭,১০৯

বিদেশি চ্যানেলগুলো ক্লিনফিড যখন পাঠাবে তখনই সেগুলোর সম্প্রচার শুরু হবে আর কোনো সময় দেওয়া হবে না

বিদেশি চ্যানেলগুলো ক্লিনফিড (বিজ্ঞাপন ছাড়া অনুষ্ঠান) যখন পাঠাবে তখনই সেগুলোর সম্প্রচার শুরু হবে। এবিষয়ে আর কোনো সময় দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।বুধবার (৬ অক্টোবর) সচিবালয়ে গণমাধ্যম কেন্দ্রে বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরাম (বিএসআরএফ) আয়োজিত ‘বিএসআরএফ সংলাপ’ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় বিএসআরএফ সভাপতি তপন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মাসউদুল হকের সঞ্চালনায় সংলাপে আরও উপস্থিত ছিলেন প্রধান তথ্য কর্মকর্তা মো. শাহেনুর মিয়া।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ক্যাবল অপারেটরদের দু-বছর আগে থেকে তাগাদা দিয়েছি, বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী বিদেশি চ্যানেলগুলোকে ক্লিনফিড চালাতে হবে। তাগাদা দেওয়ার পর বেশ কয়েকবার তাদের সঙ্গে বসেছি। মাস দেড়েক আগে সবার সঙ্গে বসেছিলাম, সিদ্ধান্ত ছিল ১ অক্টোবর থেকে ক্লিনফিড কার্যকর হবে। এটি ছিল সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত।

তিনি বলেন, এখন আমাকে ক্যাবল অপারেটররা বলছেন, বিদেশি টেলিভিশনগুলো এখন ক্লিনফিড পাঠাবে। আমি বলেছি, ক্লিডফিড পাঠালে আমরা চালাবো, এত দিন পাঠায়নি কেন? ক্লিনফিড পাঠানোর দায়িত্ব তো তাদেরই। তারা অন্যান্য দেশে পাঠায় আমাদের এখানে পাঠাবে না কেন? তারা (বিদেশি চ্যানেলগুলো) পাঠানোর (ক্লিন ফিড) উদ্যোগ নিয়েছে, পাঠাবে। যখন পাঠাবে তখনই সম্প্রচার শুরু হবে। এর আগে আমি কোনো সময় দেওয়ার পক্ষপাতী নই। অনেকগুলো চ্যানেল ক্লিনফিডসহ সম্প্রচার হচ্ছে।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, যারা ক্লিনফিড করে চ্যানেল চালু করতে পারবে তারা চালু করবে, যে পারবে না সে প্রচারেও যেতে পারবে না। এটির উপকার পুরো গণমাধ্যম পাবে। খুব সহসা এটির উপকার আপনারা দেখতে পাবেন। এটি দেশের স্বার্থেই করা হয়েছে। তবে ক্লিনফিড হলেও এমন কোনো অনুষ্ঠান প্রচার করা যাবে না, যেগুলো সমাজে বিরূপ প্রভাব ফেলবে। সেটিও আমরা দেখবো’।

তিনি বলেন, আমরা ডেটলাইন করে দিয়েছি ১ অক্টোবর। এরপর থেকে সবাইকে ক্লিনফিড চালাতে হবে। এখন এই ডেটলাইন ফলো করে, যে ক্লিনফিড চালু করতে পারবে তারা চালু করবে। আর যে পারবে না, তো পারবেই না। আর নতুন কোনো ডেটলাইনের দরকার নেই। তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, দেশের অনলাইন গণমাধ্যম কোনো শৃঙ্খলায় ছিল না। একজন একটি ল্যাপটপ দিয়ে অনলাইন শুরু করে দিয়েছিল। আমরা অনলাইন নিবন্ধন শুরু করেছি। অনেকগুলোর নিবন্ধন দেওয়া হয়েছে। অনেকগুলো বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে এবং অনেকগুলো বন্ধ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, পত্রিকা প্রকাশে প্রথমে ডিক্লেয়ারেশন নিতে হয়। এছাড়া কেউ পত্রিকা প্রকাশ করতে পারে না। অনলাইনের ক্ষেত্রে সেটা হওয়া সমীচিন। আমরা মন্ত্রণালয় ও অংশীজনদের সঙ্গে আলোচনা করেছি। আগামী বছর থেকে অনলাইন আত্মপ্রকাশের আগেই নিবন্ধন নিতে হবে। তারপর আত্মপ্রকাশ করবে।

তিনি আরও বলেন, অনেকগুলো অনলাইন চালু রয়েছে। আমরাও নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু করেছি, অনলাইন চালুর অনেক পরে। আগামী বছর থেকে যখন নিবন্ধন প্রক্রিয়া মোটামুটি সম্পন্ন হবে। তখন থেকে কোনো অনলাইন নতুনভাবে প্রকাশ করতে হলে তাদের প্রথমে নিবন্ধন নিতে হবে। তারপর অনলাইন প্রকাশ করতে পারবে৷ তাহলে অনলাইনে একটা শৃঙ্খলা আসবে।
ঢাকা,বুধবার,০৬ অক্টোবর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

সর্বশেষ আপডেট



» নতুন করে আরও ২৩২ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত,মৃত্যু ৪ জন

» দীপাবলীর উৎসব বর্জনের ঘোষণা বাংলাদেশ পূজা পরিষদ

» বিআরটিএ’তে যারা অপকর্ম করে তাদের বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেবার নির্দেশ

» কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ৭

» ফেনীর বোগদাদিয়া এলাকায় পিকআপ ভ্যান নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে তিনজন নিহত

» মণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনায় কক্সবাজার থেকে আটক ইকবাল কুমিল্লায়

» কুমিল্লায় ধর্ম অবমাননায় অভিযুক্ত ইকবাল সন্দেহে কক্সবাজারে এক যুবককে আটক

» পাপুয়া নিউ গিনির বিপক্ষে জয় পেল ৮৪ রানের বড় ব্যবধানে টাইগাররা

» জয়ের জন্য ১৮২ রান করতে হবে পিএনজিকে

» নতুন করে আরও ২৪৩ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত,মৃত্যু ১০ জন

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ, ৭ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বিদেশি চ্যানেলগুলো ক্লিনফিড যখন পাঠাবে তখনই সেগুলোর সম্প্রচার শুরু হবে আর কোনো সময় দেওয়া হবে না




বিদেশি চ্যানেলগুলো ক্লিনফিড (বিজ্ঞাপন ছাড়া অনুষ্ঠান) যখন পাঠাবে তখনই সেগুলোর সম্প্রচার শুরু হবে। এবিষয়ে আর কোনো সময় দেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।বুধবার (৬ অক্টোবর) সচিবালয়ে গণমাধ্যম কেন্দ্রে বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরাম (বিএসআরএফ) আয়োজিত ‘বিএসআরএফ সংলাপ’ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় বিএসআরএফ সভাপতি তপন বিশ্বাসের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মাসউদুল হকের সঞ্চালনায় সংলাপে আরও উপস্থিত ছিলেন প্রধান তথ্য কর্মকর্তা মো. শাহেনুর মিয়া।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ক্যাবল অপারেটরদের দু-বছর আগে থেকে তাগাদা দিয়েছি, বাংলাদেশের আইন অনুযায়ী বিদেশি চ্যানেলগুলোকে ক্লিনফিড চালাতে হবে। তাগাদা দেওয়ার পর বেশ কয়েকবার তাদের সঙ্গে বসেছি। মাস দেড়েক আগে সবার সঙ্গে বসেছিলাম, সিদ্ধান্ত ছিল ১ অক্টোবর থেকে ক্লিনফিড কার্যকর হবে। এটি ছিল সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত।

তিনি বলেন, এখন আমাকে ক্যাবল অপারেটররা বলছেন, বিদেশি টেলিভিশনগুলো এখন ক্লিনফিড পাঠাবে। আমি বলেছি, ক্লিডফিড পাঠালে আমরা চালাবো, এত দিন পাঠায়নি কেন? ক্লিনফিড পাঠানোর দায়িত্ব তো তাদেরই। তারা অন্যান্য দেশে পাঠায় আমাদের এখানে পাঠাবে না কেন? তারা (বিদেশি চ্যানেলগুলো) পাঠানোর (ক্লিন ফিড) উদ্যোগ নিয়েছে, পাঠাবে। যখন পাঠাবে তখনই সম্প্রচার শুরু হবে। এর আগে আমি কোনো সময় দেওয়ার পক্ষপাতী নই। অনেকগুলো চ্যানেল ক্লিনফিডসহ সম্প্রচার হচ্ছে।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, যারা ক্লিনফিড করে চ্যানেল চালু করতে পারবে তারা চালু করবে, যে পারবে না সে প্রচারেও যেতে পারবে না। এটির উপকার পুরো গণমাধ্যম পাবে। খুব সহসা এটির উপকার আপনারা দেখতে পাবেন। এটি দেশের স্বার্থেই করা হয়েছে। তবে ক্লিনফিড হলেও এমন কোনো অনুষ্ঠান প্রচার করা যাবে না, যেগুলো সমাজে বিরূপ প্রভাব ফেলবে। সেটিও আমরা দেখবো’।

তিনি বলেন, আমরা ডেটলাইন করে দিয়েছি ১ অক্টোবর। এরপর থেকে সবাইকে ক্লিনফিড চালাতে হবে। এখন এই ডেটলাইন ফলো করে, যে ক্লিনফিড চালু করতে পারবে তারা চালু করবে। আর যে পারবে না, তো পারবেই না। আর নতুন কোনো ডেটলাইনের দরকার নেই। তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, দেশের অনলাইন গণমাধ্যম কোনো শৃঙ্খলায় ছিল না। একজন একটি ল্যাপটপ দিয়ে অনলাইন শুরু করে দিয়েছিল। আমরা অনলাইন নিবন্ধন শুরু করেছি। অনেকগুলোর নিবন্ধন দেওয়া হয়েছে। অনেকগুলো বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে এবং অনেকগুলো বন্ধ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, পত্রিকা প্রকাশে প্রথমে ডিক্লেয়ারেশন নিতে হয়। এছাড়া কেউ পত্রিকা প্রকাশ করতে পারে না। অনলাইনের ক্ষেত্রে সেটা হওয়া সমীচিন। আমরা মন্ত্রণালয় ও অংশীজনদের সঙ্গে আলোচনা করেছি। আগামী বছর থেকে অনলাইন আত্মপ্রকাশের আগেই নিবন্ধন নিতে হবে। তারপর আত্মপ্রকাশ করবে।

তিনি আরও বলেন, অনেকগুলো অনলাইন চালু রয়েছে। আমরাও নিবন্ধন প্রক্রিয়া শুরু করেছি, অনলাইন চালুর অনেক পরে। আগামী বছর থেকে যখন নিবন্ধন প্রক্রিয়া মোটামুটি সম্পন্ন হবে। তখন থেকে কোনো অনলাইন নতুনভাবে প্রকাশ করতে হলে তাদের প্রথমে নিবন্ধন নিতে হবে। তারপর অনলাইন প্রকাশ করতে পারবে৷ তাহলে অনলাইনে একটা শৃঙ্খলা আসবে।
ঢাকা,বুধবার,০৬ অক্টোবর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Hbnews24 || Phone: +8801714043198, email: hbnews24@gmail.com