করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলাদেশে

নতুন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু
১৮৬২ ১৫,৩৮,২০৩ ১৪,৯৪,০৯০ ২৭,১০৯

এই সরকারকে কোনোভাবেই আর সময় দেওয়া যাবে না-মির্জা ফখরুল

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনি ব্যবস্থা ভেঙে দিয়ে বর্তমান সরকার তামাশার নির্বাচন করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল।
জনগণ যেন নিজ ইচ্ছায় ভোট দিতে পারে সেজন্য নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন করে নির্বাচন দিতে হবে বলেও মন্তব্য করেছেন মির্জা ফখরুল।রোববার (১০ অক্টোবর) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে জেহাদ দিবস উপলক্ষে শহীদ জেহাদ স্মৃতি পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।বর্তমান সরকারকে আর সময় দেয়া যাবে না হুঁশিয়ারি দিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, অর্থনীতিসহ সব ব্যবস্থাকে ভেঙে দিয়েছে তারা। আবারও একটি গণঅভ্যুত্থানের সময় এসেছে জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আওয়ামী লীগকে বিদায় করতে তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে।

বলেন, স্বাধীনতা অর্জনের পর ১৯৯০ সালে একটি গণঅভ্যুত্থান বাংলাদেশের রাষ্ট্রব্যবস্থায় পরিবর্তন এনে দিয়েছিল। দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হয়েছিল। সেদিন বেগম খালেদা জিয়া নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। আজকে আবার সেই সময় এসেছে। আরো দৃঢ়তার সাথে আরেকটি গণঅভ্যুত্থান ঘটাতে হবে। আদালতকে ব্যবহার করে দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করেছে। এরপর থেকে বেআইনিভাবে ক্ষমতা দখল করে আছে।বিএনপি মহাসচিব বলেন, ১৯৭১ সালে আমরা স্বাধীনতাযুদ্ধ করেছিলাম। লাখ লাখ মানুষের জীবনের বিনিময়ে আমরা সেদিন স্বাধীনতাকে ছিনিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছিলাম। পরে ১৯৯০ সালে একটি গণঅভ্যুত্থান বাংলাদেশের রাষ্ট্রব্যবস্থায় পরিবর্তন এনে দিয়েছিল। দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। সেদিন দেশনেত্রী খালেদা জিয়া নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। আজকে আবার সেই সময় এসেছে। আরো দৃঢ়তার সঙ্গে আরেকটি গণঅভ্যুত্থান ঘটাতে হবে।

মির্জা ফখরুল বলেন, আপনারা লক্ষ্য করেছেন প্রায় প্রতিটি আন্দোলনে আমাদের ছাত্ররাই সবচেয়ে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। ’৯০-এর গণঅভ্যুত্থানে যেমন আমান উল্লাহ আমানরা তাদের দায়িত্ব পালন করে সফল হয়েছেন, ঠিক একইভাবে ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনে ছাত্ররাই সফল হয়েছিল। এমনকি ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে ছাত্র-যুবকরাই জয়ী হয়েছিল।

তিনি বলেন, আজকে একটা ভয়াবহ পরিস্থিতি। জেহাদ যে কারণে রক্ত দিয়েছিল, সেই গণতন্ত্রকে আজকে আমাদের কাছ থেকে হরণ করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আমাদের অর্জনগুলোকে কেড়ে নেওয়া হয়েছে। ১৯৭১ সালে আমরা যে স্বাধীনতা পেয়েছিলাম সেই স্বাধীনতা এখন আমরা ভোগ করছি না। আমাদের দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব আজকে বিপন্ন হয়েছে। আমরা আজকে একটি নতজানু রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছি।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, স্বাধীনতাযুদ্ধের মাধ্যমে আমরা মানুষের জন্য যে ভালো জিনিসগুলো লাভ করেছিলাম তা এই দানবীয় সরকার কেড়ে নিয়েছে। এই সরকার অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিল করেছে। আদালতকে ব্যবহার করে ২০১২ সালে দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করেছে। তারপর বে-আইনিভাবে প্রায় ১৪ বছর যাবৎ ক্ষমতা দখল করে বসে আছে।
ঢাকা,রোববার,১০ অক্টোবর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

সর্বশেষ আপডেট



» তিস্তার পানি বিপৎসীমার ৬০ সেন্টিমিটার ওপরে,বিভিন্ন ফসল পানির নিচে তলিয়ে গেছে

» আজ বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব প্রবারণা পূর্ণিমা

» পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবি উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন স্থানে অনুষ্ঠিত হলো বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা

» ৯ উইকেটে ১২৭ রানে থামে ওমান। ফলে ২৬ রানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে টাইগাররা

» ওমানকে ১৫৪ রানের টার্গেট দিল টাইগাররা

» কবি সুফিয়া কামাল হলে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে

» নতুন করে আরও ৪৬৯ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত,মৃত্যু ৭ জন

» প্রতি লিটার সয়াবিন তেলের দাম ৭ টাকা করে বাড়ানো হয়েছে

» কুমিল্লার ঘটনার মূল হোতা চিহ্নিত,শিগগিরই তাকে আইনের আওতায় আনা হবে

» জনগণের দৃষ্টি ভিন্নখাতে নিতেই সারাদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করছে

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ, ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

এই সরকারকে কোনোভাবেই আর সময় দেওয়া যাবে না-মির্জা ফখরুল




তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনি ব্যবস্থা ভেঙে দিয়ে বর্তমান সরকার তামাশার নির্বাচন করছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল।
জনগণ যেন নিজ ইচ্ছায় ভোট দিতে পারে সেজন্য নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন করে নির্বাচন দিতে হবে বলেও মন্তব্য করেছেন মির্জা ফখরুল।রোববার (১০ অক্টোবর) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে জেহাদ দিবস উপলক্ষে শহীদ জেহাদ স্মৃতি পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।বর্তমান সরকারকে আর সময় দেয়া যাবে না হুঁশিয়ারি দিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, অর্থনীতিসহ সব ব্যবস্থাকে ভেঙে দিয়েছে তারা। আবারও একটি গণঅভ্যুত্থানের সময় এসেছে জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আওয়ামী লীগকে বিদায় করতে তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে।

বলেন, স্বাধীনতা অর্জনের পর ১৯৯০ সালে একটি গণঅভ্যুত্থান বাংলাদেশের রাষ্ট্রব্যবস্থায় পরিবর্তন এনে দিয়েছিল। দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা হয়েছিল। সেদিন বেগম খালেদা জিয়া নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। আজকে আবার সেই সময় এসেছে। আরো দৃঢ়তার সাথে আরেকটি গণঅভ্যুত্থান ঘটাতে হবে। আদালতকে ব্যবহার করে দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করেছে। এরপর থেকে বেআইনিভাবে ক্ষমতা দখল করে আছে।বিএনপি মহাসচিব বলেন, ১৯৭১ সালে আমরা স্বাধীনতাযুদ্ধ করেছিলাম। লাখ লাখ মানুষের জীবনের বিনিময়ে আমরা সেদিন স্বাধীনতাকে ছিনিয়ে আনতে সক্ষম হয়েছিলাম। পরে ১৯৯০ সালে একটি গণঅভ্যুত্থান বাংলাদেশের রাষ্ট্রব্যবস্থায় পরিবর্তন এনে দিয়েছিল। দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। সেদিন দেশনেত্রী খালেদা জিয়া নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। আজকে আবার সেই সময় এসেছে। আরো দৃঢ়তার সঙ্গে আরেকটি গণঅভ্যুত্থান ঘটাতে হবে।

মির্জা ফখরুল বলেন, আপনারা লক্ষ্য করেছেন প্রায় প্রতিটি আন্দোলনে আমাদের ছাত্ররাই সবচেয়ে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে। ’৯০-এর গণঅভ্যুত্থানে যেমন আমান উল্লাহ আমানরা তাদের দায়িত্ব পালন করে সফল হয়েছেন, ঠিক একইভাবে ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনে ছাত্ররাই সফল হয়েছিল। এমনকি ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে ছাত্র-যুবকরাই জয়ী হয়েছিল।

তিনি বলেন, আজকে একটা ভয়াবহ পরিস্থিতি। জেহাদ যে কারণে রক্ত দিয়েছিল, সেই গণতন্ত্রকে আজকে আমাদের কাছ থেকে হরণ করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। আমাদের অর্জনগুলোকে কেড়ে নেওয়া হয়েছে। ১৯৭১ সালে আমরা যে স্বাধীনতা পেয়েছিলাম সেই স্বাধীনতা এখন আমরা ভোগ করছি না। আমাদের দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব আজকে বিপন্ন হয়েছে। আমরা আজকে একটি নতজানু রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছি।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, স্বাধীনতাযুদ্ধের মাধ্যমে আমরা মানুষের জন্য যে ভালো জিনিসগুলো লাভ করেছিলাম তা এই দানবীয় সরকার কেড়ে নিয়েছে। এই সরকার অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিল করেছে। আদালতকে ব্যবহার করে ২০১২ সালে দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করেছে। তারপর বে-আইনিভাবে প্রায় ১৪ বছর যাবৎ ক্ষমতা দখল করে বসে আছে।
ঢাকা,রোববার,১০ অক্টোবর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Hbnews24 || Phone: +8801714043198, email: hbnews24@gmail.com