কলম থেকেই জন্মাবে গাছ

আজব কলম বটে! লেখা তো হবেই, তবে লেখার কালি শেষ হলেও তার কাজ কিন্তু শেষ নয়। কেননা এই কলম থেকেই জন্ম নিতে পারে আস্ত একটা গাছ। শুনতে অবাক লাগলেও এরকমই আশ্চর্য কলম তৈরি করেছেন ভারতের কেরলার পরিবেশকর্মী লক্ষ্মী মেনন।কীভাবে এই পেন গাছের জন্ম দিতে পারে?কেরলার এই পরিবেশকর্মী এক সংস্থার পরিচালক। যেটির লক্ষ্যই হল প্রাত্যহিক জীবনযাপন যাতে পরিবেশবান্ধব হয়ে ওঠে। এই কাগজের কলম তারই ভাবনাপ্রসূত। লেখার পর তা ফেলে দিলেও পরিবেশের কোন ক্ষতি হচ্ছে না। এতে তো পরিবেশের যা উপকার হওয়ার হচ্ছেই, বাড়তি পাওনা একটি বীজ। তা রাখা আছে কলমের মধ্যেই। পেনের ঠিক পিছনে একটি বীজকে বিশেষ উপায় আটকে রাখা আছে। রাসায়নিকের সাহায্যে সেটিকে এমনভাবে সংরক্ষিত করা হয়েছে, যাতে বীজটি বেশ কিছুদিন তাজা থাকতে পারে। লেখা শেষ হওয়ার পর টবে বীজটি ঠিকভাবে রেখে দিলেই বীজ থেকে চারাগাছ জন্মাবে। প্রতিটি কলমে রাখা থাকছে এক বিশেষ ধরনের গাছের বীজ। ‘হামিংবার্ড ট্রি’নামেই এই গাছ পরিচিত। আয়ুর্বেদ দুনিয়ায় এ গাছের কদরও তুঙ্গে। তিনি নিজে এই কলমের নাম দিয়েছেন এন্ট্রি. কেননা ইকো ফ্রেন্ডলি হওয়ার পথে এই কলমই প্রবেশদ্বার।এ কলম তৈরিতে কাগজ ব্যবহারের জন্য নতুন কোন কাগজ তৈরি করতে হচ্ছে না। পুরনো খবরের কাগজ ব্যবহার করেই তৈরি হচ্ছে এই কলম। যে মেশিনের সাহায্যে কাগজকে কলমের আকার দেওয়া হচ্ছে সেটি তৈরি করেছেন লক্ষ্মী নিজেই। কলম তৈরি করার ক্ষেত্রে উইমেন এমপাওয়ারমেন্টের বিষয়টি খেয়াল রাখা হয়েছে। কলম তৈরিতে নারী, বিশেষত শারীরিকভাবে অক্ষম নারীদের কাজে লাগানো হচ্ছে যাতে তারা এই কলম তৈরির মাধ্যমে স্বনির্ভর হয়ে উঠতে পারেন।আপাতত এই কলমের দাম ধার্য করা হয়েছে ১২ রুপি। তবে প্লাস্টিকের কলমের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় নামতে গেলে আরও দাম কমাতে হবে তা জানেন তিনি। তার জন্য এই কলমের ব্যবহার বাড়াতে হবে। সেই কারণে বড় ক্যাম্পেনও করতে চান লক্ষ্মী। পরিবেশ রক্ষার ক্ষেত্রে অনেকেই অনেক কথা বলেন, অনেক সভা সমাবেশ হয়। কিন্তু তাতে পরিবেশের যে কতটা উপকার হয় তা বোঝা যায় না। কিন্তু লক্ষ্মীর এই পদক্ষেপ যে পরিবেশ রক্ষায়
উল্লেখযোগ্য এক পরিবর্তন আনবে তা বলাই বাহুল্য। ভবিষ্যতে কলমের রিফিলের ক্ষেত্রেও প্লাস্টিক বদলে ফেলা যায় কি না, সে ভাবনাও আছে লক্ষ্মীর।

মঞ্জুর আহমেদ শামিম,প্রতিনিধিঃ
তথ্য-প্রযুক্তি ডেস্ক,মঙ্গলবার, ১৯ জুলাই, এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» রাজনৈতিক কারণে ব্যারিস্টার মইনুলকে ধরা হয়নি।সুনির্দিষ্ট মামলার প্রেক্ষিতে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে

» ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর মালিকানাধীন ফার্মাসিউটিক্যালস ও গণস্বাস্থ্য হাসপাতালকে ১৫ লাখ টাকা জরিমানা

» ওষুধের এক্সপায়ার ডেট ২০১৩, বিক্রি হচ্ছে ২০১৮ সালেও দুই ফার্মেসিকে এক লাখ টাকা জরিমানা

» দুর্নীতিবাজ ও যুদ্ধাপরাধীদের রাজনীতির মাঠে পুনর্বাসনের জন্যই ড. কামাল হোসেন বিএনপির সঙ্গে ঐক্য গড়েছেন

» ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের ফোনালাপের ফাঁস করা অডিও ক্লিপ আমরা বিশ্বাস করি না

» মোবাইলের আইএমইআই পরিবর্তন করে হত্যা, মুক্তিপণ,অপহরণ অপরাধের সাথে জড়িত চক্রের সদস্য ১৫ আটক

» ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ

» আওয়ামী লীগের যৌথসভার পর নির্বাচনকালীন মন্ত্রিসভার বিষয়ে সিদ্ধান্ত

» খালেদা জিয়ার সাজা বৃদ্ধি চেয়ে করা আবেদনের ওপর দুদক এবং রাষ্ট্রপক্ষের শুনানি শেষ আদেশ বুধবার

» যশোরের নওয়াপাড়ায় ট্রাকের সঙ্গে ট্রেনের সংঘর্ষ

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

কলম থেকেই জন্মাবে গাছ

আজব কলম বটে! লেখা তো হবেই, তবে লেখার কালি শেষ হলেও তার কাজ কিন্তু শেষ নয়। কেননা এই কলম থেকেই জন্ম নিতে পারে আস্ত একটা গাছ। শুনতে অবাক লাগলেও এরকমই আশ্চর্য কলম তৈরি করেছেন ভারতের কেরলার পরিবেশকর্মী লক্ষ্মী মেনন।কীভাবে এই পেন গাছের জন্ম দিতে পারে?কেরলার এই পরিবেশকর্মী এক সংস্থার পরিচালক। যেটির লক্ষ্যই হল প্রাত্যহিক জীবনযাপন যাতে পরিবেশবান্ধব হয়ে ওঠে। এই কাগজের কলম তারই ভাবনাপ্রসূত। লেখার পর তা ফেলে দিলেও পরিবেশের কোন ক্ষতি হচ্ছে না। এতে তো পরিবেশের যা উপকার হওয়ার হচ্ছেই, বাড়তি পাওনা একটি বীজ। তা রাখা আছে কলমের মধ্যেই। পেনের ঠিক পিছনে একটি বীজকে বিশেষ উপায় আটকে রাখা আছে। রাসায়নিকের সাহায্যে সেটিকে এমনভাবে সংরক্ষিত করা হয়েছে, যাতে বীজটি বেশ কিছুদিন তাজা থাকতে পারে। লেখা শেষ হওয়ার পর টবে বীজটি ঠিকভাবে রেখে দিলেই বীজ থেকে চারাগাছ জন্মাবে। প্রতিটি কলমে রাখা থাকছে এক বিশেষ ধরনের গাছের বীজ। ‘হামিংবার্ড ট্রি’নামেই এই গাছ পরিচিত। আয়ুর্বেদ দুনিয়ায় এ গাছের কদরও তুঙ্গে। তিনি নিজে এই কলমের নাম দিয়েছেন এন্ট্রি. কেননা ইকো ফ্রেন্ডলি হওয়ার পথে এই কলমই প্রবেশদ্বার।এ কলম তৈরিতে কাগজ ব্যবহারের জন্য নতুন কোন কাগজ তৈরি করতে হচ্ছে না। পুরনো খবরের কাগজ ব্যবহার করেই তৈরি হচ্ছে এই কলম। যে মেশিনের সাহায্যে কাগজকে কলমের আকার দেওয়া হচ্ছে সেটি তৈরি করেছেন লক্ষ্মী নিজেই। কলম তৈরি করার ক্ষেত্রে উইমেন এমপাওয়ারমেন্টের বিষয়টি খেয়াল রাখা হয়েছে। কলম তৈরিতে নারী, বিশেষত শারীরিকভাবে অক্ষম নারীদের কাজে লাগানো হচ্ছে যাতে তারা এই কলম তৈরির মাধ্যমে স্বনির্ভর হয়ে উঠতে পারেন।আপাতত এই কলমের দাম ধার্য করা হয়েছে ১২ রুপি। তবে প্লাস্টিকের কলমের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় নামতে গেলে আরও দাম কমাতে হবে তা জানেন তিনি। তার জন্য এই কলমের ব্যবহার বাড়াতে হবে। সেই কারণে বড় ক্যাম্পেনও করতে চান লক্ষ্মী। পরিবেশ রক্ষার ক্ষেত্রে অনেকেই অনেক কথা বলেন, অনেক সভা সমাবেশ হয়। কিন্তু তাতে পরিবেশের যে কতটা উপকার হয় তা বোঝা যায় না। কিন্তু লক্ষ্মীর এই পদক্ষেপ যে পরিবেশ রক্ষায়
উল্লেখযোগ্য এক পরিবর্তন আনবে তা বলাই বাহুল্য। ভবিষ্যতে কলমের রিফিলের ক্ষেত্রেও প্লাস্টিক বদলে ফেলা যায় কি না, সে ভাবনাও আছে লক্ষ্মীর।

মঞ্জুর আহমেদ শামিম,প্রতিনিধিঃ
তথ্য-প্রযুক্তি ডেস্ক,মঙ্গলবার, ১৯ জুলাই, এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY PopularITLimited