HbNews24.com_দৈনিক হৃদয়ে বাংলাদেশ

মাত্র ৫৬ জন লোক নিয়ে একটা দেশ

পৃথিবীর সবচেয়ে কম জনসংখ্যা দেশটাতে মাত্র ৫৬ জন থাকেন। মূল ভূখণ্ড থেকে বহু বহু দূরে দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের নিরালা-নির্জনে এই দেশ। জানতেন কি এমন একটা দেশের কথা। জেনে নিন এই দেশ সম্পর্কে অজানা আরও কিছু কথাপৃথিবীর সবচেয়ে কম জনবসতি এই দেশটার নাম পিটকার্ন আইল্যান্ডস।জনসংখ্যা মাত্র ৫৬। রাজধানী অ্যাডামস টাউনে এই বাড়িটিই হল প্রশাসনিক ভবন।ছবিতে যে ক’জনকে দেখা যাচ্ছে, তাদের নিয়েই দেশ। চারটি দ্বীপ নিয়ে দেশটা। মোট বাসিন্দা এই ৫৬
জন।ব্রিটেনের অভিভাবকত্বে পিটাকার্ন আইল্যান্ডসের প্রশাসন চলে। তাই উপরের বা দিকের কোণায় ব্রিটেনের পতাকা ইউনিয়ন জ্যাক। দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরে পিটকার্ন আইল্যান্ডসের অবস্থান। সবচেয়ে কাছের দেশ নিউজিল্যান্ড। তাই পিটকার্নে চিঠি পৌঁছয় নিউজিল্যান্ড ঘুরে।আগ্নেয় শিলায় তৈরি চারটি দ্বীপ নিয়ে এই দেশ গঠিত। পিটকার্ন, হেন্ডারসন, ডুসি এবং ওয়েনো। এর মধ্যে শুধুমাত্র পিটকার্নেই বসতি রয়েছে। বাকি তিনটি দ্বীপ পাণ্ডব বর্জিত। পিটকার্ন মাত্র সাড়ে তিন কিলোমিটার লম্বা একটি দ্বীপ।দ্বীপগুলির বেশিরভাগ এলাকাই জঙ্গলে ঢাকা। পাহাড়, জঙ্গল আর সমুদ্র নিয়ে টকার্নের প্রকৃতি অপরূপ।
২০১০ সালে পিটকার্নের জনসংখ্যা ছিল ৪৫। ২০১৩ সালের জনগনণায় দেখা যায় তা একটু বেড়ে ৫৬ হয়েছে।১৭৮৯ সালে পিটকার্ন আইল্যান্ডসে জনবসতি গড়ে ওঠে। এক দল ব্রিটিশ বিদ্রোহী সে বছর এই দ্বীপে আশ্রয় নেন।ব্রিটিশ নৌসেনার এক দল সৈনিক তাহিতি যাওয়ার পথে বিদ্রোহ করেছিল। জাহাজের ক্যাপ্টেনকে ছোট লঞ্চে চড়িয়ে জাহাজ থেকে নামিয়ে দেয়া হয়। বিদ্রোহীরা জাহাজের দখল নিয়ে তাহিতি পৌঁছন।পরে ব্রিটিশ প্রশাসনের হাত থেকে বাঁচতে তাহিতি থেকে ব্রিটিশ বিদ্রোহীরা যখন পিটকার্ন যাচ্ছিলেন, তখন তাহিতির কিছু মানুষও তাদের সঙ্গে যান। সেই ব্রিটিশ বিদ্রোহী এবং তাদের সঙ্গী তাহিতিয়ানদের রাষ্ট্রপুঞ্জ মনে করে, পিটকার্ন আইল্যান্ডস স্বশাসিত রাষ্ট্র হতে পারে না। তাই এই দেশের প্রশাসনকে দেখভালের দায়িত্ব রয়েছে ব্রিটেনের উপর।এখন যে ক’জন মানুষ পিটকার্নে থাকেন, তারা মূলত চারটি পরিবারের
সদস্য।–সংবাদমাধ্যম

মঞ্জুর আহমেদ শামিম
বুধবার, ০৫ অক্টোম্বর, এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» ঈদুল আজহার ছুটি কাটাতে রেলপথে ঢাকা ছাড়ছেন নগরবাসী

» গাজীপুরে বকেয়া বেতন ও বোনাসের দাবিতে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করেছেন শ্রমিকরা

» ভুটানকে ৫-০ গোলে হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছেছে বাংলাদেশের মেয়েরা

» ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী আর নেই

» মিরপুরে বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে সমাহিত হলেন বরেণ্য সাংবাদিক গোলাম সারওয়ার

» ইলেকট্রনিক্স সামগ্রীর আড়ালে ঢাকায় ইয়াবা আসছে-মুফতি মাহমুদ খান

» কলাপাড়ায় স্কুল ছাত্রী ইভা হত্যার ঘটনায় একজন আটক

» খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মামলাগুলো রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে

» গোলাম সারওয়ারের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানাতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জড়ো হয়েছেন বিভিন্ন স্তরের মানুষ।

» বরিশালে দৈনিক সমকালের সম্পাদক গোলাম সারওয়ারের জানাজা সম্পন্ন

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

মাত্র ৫৬ জন লোক নিয়ে একটা দেশ

পৃথিবীর সবচেয়ে কম জনসংখ্যা দেশটাতে মাত্র ৫৬ জন থাকেন। মূল ভূখণ্ড থেকে বহু বহু দূরে দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরের নিরালা-নির্জনে এই দেশ। জানতেন কি এমন একটা দেশের কথা। জেনে নিন এই দেশ সম্পর্কে অজানা আরও কিছু কথাপৃথিবীর সবচেয়ে কম জনবসতি এই দেশটার নাম পিটকার্ন আইল্যান্ডস।জনসংখ্যা মাত্র ৫৬। রাজধানী অ্যাডামস টাউনে এই বাড়িটিই হল প্রশাসনিক ভবন।ছবিতে যে ক’জনকে দেখা যাচ্ছে, তাদের নিয়েই দেশ। চারটি দ্বীপ নিয়ে দেশটা। মোট বাসিন্দা এই ৫৬
জন।ব্রিটেনের অভিভাবকত্বে পিটাকার্ন আইল্যান্ডসের প্রশাসন চলে। তাই উপরের বা দিকের কোণায় ব্রিটেনের পতাকা ইউনিয়ন জ্যাক। দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরে পিটকার্ন আইল্যান্ডসের অবস্থান। সবচেয়ে কাছের দেশ নিউজিল্যান্ড। তাই পিটকার্নে চিঠি পৌঁছয় নিউজিল্যান্ড ঘুরে।আগ্নেয় শিলায় তৈরি চারটি দ্বীপ নিয়ে এই দেশ গঠিত। পিটকার্ন, হেন্ডারসন, ডুসি এবং ওয়েনো। এর মধ্যে শুধুমাত্র পিটকার্নেই বসতি রয়েছে। বাকি তিনটি দ্বীপ পাণ্ডব বর্জিত। পিটকার্ন মাত্র সাড়ে তিন কিলোমিটার লম্বা একটি দ্বীপ।দ্বীপগুলির বেশিরভাগ এলাকাই জঙ্গলে ঢাকা। পাহাড়, জঙ্গল আর সমুদ্র নিয়ে টকার্নের প্রকৃতি অপরূপ।
২০১০ সালে পিটকার্নের জনসংখ্যা ছিল ৪৫। ২০১৩ সালের জনগনণায় দেখা যায় তা একটু বেড়ে ৫৬ হয়েছে।১৭৮৯ সালে পিটকার্ন আইল্যান্ডসে জনবসতি গড়ে ওঠে। এক দল ব্রিটিশ বিদ্রোহী সে বছর এই দ্বীপে আশ্রয় নেন।ব্রিটিশ নৌসেনার এক দল সৈনিক তাহিতি যাওয়ার পথে বিদ্রোহ করেছিল। জাহাজের ক্যাপ্টেনকে ছোট লঞ্চে চড়িয়ে জাহাজ থেকে নামিয়ে দেয়া হয়। বিদ্রোহীরা জাহাজের দখল নিয়ে তাহিতি পৌঁছন।পরে ব্রিটিশ প্রশাসনের হাত থেকে বাঁচতে তাহিতি থেকে ব্রিটিশ বিদ্রোহীরা যখন পিটকার্ন যাচ্ছিলেন, তখন তাহিতির কিছু মানুষও তাদের সঙ্গে যান। সেই ব্রিটিশ বিদ্রোহী এবং তাদের সঙ্গী তাহিতিয়ানদের রাষ্ট্রপুঞ্জ মনে করে, পিটকার্ন আইল্যান্ডস স্বশাসিত রাষ্ট্র হতে পারে না। তাই এই দেশের প্রশাসনকে দেখভালের দায়িত্ব রয়েছে ব্রিটেনের উপর।এখন যে ক’জন মানুষ পিটকার্নে থাকেন, তারা মূলত চারটি পরিবারের
সদস্য।–সংবাদমাধ্যম

মঞ্জুর আহমেদ শামিম
বুধবার, ০৫ অক্টোম্বর, এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY Abir bbm