HbNews24.com_দৈনিক হৃদয়ে বাংলাদেশ

কলাপাড়ায় হাঁস পালন করে মাহবুবের ভাগ্য বদল

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি।। পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় হাঁস পালনে সফলতা পেয়েছেন শিক্ষিত যুবক মাহবুব আলম।
লেখাপড়ার পাশাপাশি সে মাত্র নয় মাস আগে হাঁস পালন শুরু করেন। উপজেলার মহিপুর ইউনিয়নের নিজ শিববাড়িয়া গ্রামের ছোট পরিসরে রুটিন
মাফিক স্বল্প শ্রমে নিজ বাড়িতে গড়ে তোলেন হাঁসের খামার। বর্তমানে তার খামারে প্রায় ৪০০টি হাঁস রয়েছে। নিয়মিত পরিচর্যায় ফলে ক্রমশই বদলে যেতে থাকে তার ভাগ্যের চাকা। প্রত্যেকটি হাঁসই ডিম দিচ্ছে। আর সেই ডিম বিক্রি করে যে টাকা আয় হয় তা দিয়েই চলে লেখাপড়াসহ সংসারের ভরনপোষন। তার এ সফলতা দেখে এলাকার অনেক বেকার যুবক হাঁস পালন শুরু করে দিয়েছে।
মাহবুব আলমের হাঁসের খামার ঘুরে জানা গেছে, উপজেলার মহিপুর ইউনিয়নের নিজ শিববাড়িয়া গ্রামের শাহালম হাওলাদারের পুত্র মাহবুব আলম পটুয়াখালী সরকারি কলেজের মাষ্টার্সে অধ্যয়নরত। সে প্রথমে রাজশাহী থেকে জিনডিং জাতের ১০০ বাচ্চা হাঁস ক্রয় করে নিয়ে আসে। পাঁচ মাসের মাথায় হাঁসগুলো ডিম দেয়া শুরু করে। শিক্ষিত ওই যুবক লাভের মুখ দেখতে পেয়ে তিনি একই জাতের আরও ১০০ হাঁসা ও ২০০ হাঁসি ক্রয় করেন।
সে বর্তমানে প্রতিদিন গড়ে ১৮০ টি ডিম বাজারে বিক্রি করে।
মাহবুব আলম জানান, নয় মাস আগে অনলাইনে একটি প্রতিবেদন দেখে আগ্রহ হয় হাঁস পালনের। চাচাতো ভাই মাসুদ রানার সহযোগিতায় নিজ বাড়ির পুকুর পাড়ে তৈরী করেন হাঁসের খামার। প্রথমে রাজশাহী থেকে জিনডিং জাতের ১০০ বাচ্চা হাঁস ২৮০০ টাকায় ক্রয় করে শুরু করেন লালন- পালন। তবে কোন ব্যাংক অথবা এনজিও থেকে ঋন নিতে পারলে আরও বড় পরিসরে হাঁসের খামার করবেন বলে তিনি জানিয়েছেন।
প্রতিবেশী যুবক মো.আল-আমিন জানান, মাহবুব হাঁসের খামার থেকে অভাবনীয় সফলতা অর্জন করেছে। তার দেখাদেখি আমারও একটি হাঁসের খামার করার ইচ্ছা রয়েছে। আরেক প্রতিবেশী রুহুল আমিন জানান,ইতিমধ্যে আমিও জিনডিং জাতের ১০০ হাঁসের অর্ডার দিয়েছি। উপজেলা প্রানিসম্পদ কর্মকর্তা ডাক্তর মো.হাবিবুর রহমান জানান,মাহবুব আমাদের সাথে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ রেখেছে। সে পরামর্শ অনুযায়ী হাঁস পালন করছে। তার হাঁস পালন দেখে এ উপজেলার অনেক যুবকই হাঁস পালনে আগ্রহী হবে।
উত্তম কুমার হাওলাদার,কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,
পটুয়াখালী,শুক্রবার,২৫ মে , এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» ঈদুল আজহার ছুটি কাটাতে রেলপথে ঢাকা ছাড়ছেন নগরবাসী

» গাজীপুরে বকেয়া বেতন ও বোনাসের দাবিতে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করেছেন শ্রমিকরা

» ভুটানকে ৫-০ গোলে হারিয়ে ফাইনালে পৌঁছেছে বাংলাদেশের মেয়েরা

» ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী আর নেই

» মিরপুরে বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে সমাহিত হলেন বরেণ্য সাংবাদিক গোলাম সারওয়ার

» ইলেকট্রনিক্স সামগ্রীর আড়ালে ঢাকায় ইয়াবা আসছে-মুফতি মাহমুদ খান

» কলাপাড়ায় স্কুল ছাত্রী ইভা হত্যার ঘটনায় একজন আটক

» খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মামলাগুলো রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে

» গোলাম সারওয়ারের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানাতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জড়ো হয়েছেন বিভিন্ন স্তরের মানুষ।

» বরিশালে দৈনিক সমকালের সম্পাদক গোলাম সারওয়ারের জানাজা সম্পন্ন

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

কলাপাড়ায় হাঁস পালন করে মাহবুবের ভাগ্য বদল

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি।। পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় হাঁস পালনে সফলতা পেয়েছেন শিক্ষিত যুবক মাহবুব আলম।
লেখাপড়ার পাশাপাশি সে মাত্র নয় মাস আগে হাঁস পালন শুরু করেন। উপজেলার মহিপুর ইউনিয়নের নিজ শিববাড়িয়া গ্রামের ছোট পরিসরে রুটিন
মাফিক স্বল্প শ্রমে নিজ বাড়িতে গড়ে তোলেন হাঁসের খামার। বর্তমানে তার খামারে প্রায় ৪০০টি হাঁস রয়েছে। নিয়মিত পরিচর্যায় ফলে ক্রমশই বদলে যেতে থাকে তার ভাগ্যের চাকা। প্রত্যেকটি হাঁসই ডিম দিচ্ছে। আর সেই ডিম বিক্রি করে যে টাকা আয় হয় তা দিয়েই চলে লেখাপড়াসহ সংসারের ভরনপোষন। তার এ সফলতা দেখে এলাকার অনেক বেকার যুবক হাঁস পালন শুরু করে দিয়েছে।
মাহবুব আলমের হাঁসের খামার ঘুরে জানা গেছে, উপজেলার মহিপুর ইউনিয়নের নিজ শিববাড়িয়া গ্রামের শাহালম হাওলাদারের পুত্র মাহবুব আলম পটুয়াখালী সরকারি কলেজের মাষ্টার্সে অধ্যয়নরত। সে প্রথমে রাজশাহী থেকে জিনডিং জাতের ১০০ বাচ্চা হাঁস ক্রয় করে নিয়ে আসে। পাঁচ মাসের মাথায় হাঁসগুলো ডিম দেয়া শুরু করে। শিক্ষিত ওই যুবক লাভের মুখ দেখতে পেয়ে তিনি একই জাতের আরও ১০০ হাঁসা ও ২০০ হাঁসি ক্রয় করেন।
সে বর্তমানে প্রতিদিন গড়ে ১৮০ টি ডিম বাজারে বিক্রি করে।
মাহবুব আলম জানান, নয় মাস আগে অনলাইনে একটি প্রতিবেদন দেখে আগ্রহ হয় হাঁস পালনের। চাচাতো ভাই মাসুদ রানার সহযোগিতায় নিজ বাড়ির পুকুর পাড়ে তৈরী করেন হাঁসের খামার। প্রথমে রাজশাহী থেকে জিনডিং জাতের ১০০ বাচ্চা হাঁস ২৮০০ টাকায় ক্রয় করে শুরু করেন লালন- পালন। তবে কোন ব্যাংক অথবা এনজিও থেকে ঋন নিতে পারলে আরও বড় পরিসরে হাঁসের খামার করবেন বলে তিনি জানিয়েছেন।
প্রতিবেশী যুবক মো.আল-আমিন জানান, মাহবুব হাঁসের খামার থেকে অভাবনীয় সফলতা অর্জন করেছে। তার দেখাদেখি আমারও একটি হাঁসের খামার করার ইচ্ছা রয়েছে। আরেক প্রতিবেশী রুহুল আমিন জানান,ইতিমধ্যে আমিও জিনডিং জাতের ১০০ হাঁসের অর্ডার দিয়েছি। উপজেলা প্রানিসম্পদ কর্মকর্তা ডাক্তর মো.হাবিবুর রহমান জানান,মাহবুব আমাদের সাথে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ রেখেছে। সে পরামর্শ অনুযায়ী হাঁস পালন করছে। তার হাঁস পালন দেখে এ উপজেলার অনেক যুবকই হাঁস পালনে আগ্রহী হবে।
উত্তম কুমার হাওলাদার,কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,
পটুয়াখালী,শুক্রবার,২৫ মে , এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY Abir bbm