বিজ্ঞপনে দিয়ে জিনের বাদশা কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ-সিআইডি

Spread the love

সিনিয়ার নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা: গণমাধ্যমে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছে একটি চক্র। তারা কখনও জিনের বাদশা কখনও দয়াল বাবা সেজে প্রতারণা করে থাকেন।
আজ বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১১ টার সময়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানিয়েছেন পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।
রাজধানীর মালিবাগের সিআইডির সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেছেন পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) উপ মহাপরিদর্শক মো. শাহআলম। প্রতিদিন অনেক প্রতারণার ঘটনা ঘটে থাকে। বিভিন্ন গণমাধ্যমের বিজ্ঞাপন দেখে সহজেই প্রতারণার শিকার হয়ে থাকে সাধারণ মানুষেরা। আমরা দেখেছি ঢাকার এক শিক্ষিত গৃহবধূ প্রতারণার শিকার হয়ে প্রায় সাড়ে সাত লাখ টাকার হারিয়েছেন। আমরা এই জিনদের দুইভাগে ভাগ করেছি। তাদের মধ্যে একটি হচ্ছে টিভি জিন আর একটি হচ্ছে মোবাইল জিন। টিভি জিনদের কাছে গিয়ে নিজেরাই প্রতারিত হন। আর মোবাইল জিন ফোন করে ভিকটিমদের প্রতারণা করে থাকেন।
সংবাদ সম্মেলনে সিআইডির সিরিয়াস ক্রাইমের বিশেষ পুলিশ সুপার সৈয়দা জান্নাত আরা বলেন, আসামিরা একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র। তারা বিভিন্ন সময়ে জিনের বাদশা, দয়াল বাবা সেজে বিভিন্ন সমস্যারা সামাধান দেবেবলে বিজ্ঞাপন তৈরি করে।
লটারি,গুপ্তধন, জটিল রোগ থেকে মুক্তি, পাওনা টাকা আদায়,দাম্পত্য কলহ, ভালোবাসার মানুষকে বশে আনা সকল সমস্যার সমাধান করতে পারে। এমন কথা বলে বিভিন্ন হুজুরের ছবি ব্যবহার করে বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে বিজ্ঞাপন প্রচারের সাধারণ মানুষকে প্রলোভন দেখিয়ে মিথ্যা আশ^াস দিয়ে টাকা আত্মসাৎ করে থাকে।
সিআইডির সিরিয়াস ক্রাইমের বিশেষ পুলিশ সুপার বলেন, সোহেল মোল্লা নামের একব্যক্তি এই প্রতারক চক্রের খপ্পড়ে পড়ে ৪২ লাখ ২৫ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে। তাকে লটারি পাইয়ে দেবে বলে ওয়েষ্টার্ন ইউনিয়ন মানি ট্রান্সফার, ব্যাংক ও বিভিন্ন মাধ্যমে ৪২ লাখ ২৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন চক্রটি।
সৈয়দা জান্নাত আরা বলেন, পরে সোহেল মোল্লা গত ২২ জুলাই ভোলার বোরহান উদ্দিন থানায় একটি মামলা করেন। মামলা নম্বর-২৬। ধারা ৪০৬,৪২০ এবং ১০৯ পেনাল কোড। মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব পান সিআইডি।
পরে আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে আটটার সময়ে ঢাকার ফার্মগেট ইন্দ্রপুরী ইন্টারন্যাশনাল হোটেল থেকে ওই মামলার এজাহার নামীয় আসামি ও প্রতারক চক্রের মূল হোতা জুবায়ের আহমেদ সুমনকে গ্রেপ্তার করেছেন।
সিআইডির সিরিয়াস ক্রাইমের বিশেষ পুলিশ সুপার বলেন, গ্রেপ্তারকৃত সুমন জিজ্ঞাসাবাদে সিআইডিকে বলেছেন, মাসিক ২০ হাজার টাকা দিয়ে তৈয়েবুর রহমান নামের এক ব্যক্তির মাধ্যমে সাপ্তাহিক ম্যাগাজিন, বর্তমান দিনকাল, ও চিত্র বাংলা পত্রিকায় বিজ্ঞপন প্রচার করত। ওই বিজ্ঞপনে তারা বিভিন্ন দরবার শরীফের নাম ব্যবহার করে সকল সমস্যার সমাধান দিতে পারে বলেও প্রচার করত। আর এইসব বিজ্ঞাপন দেখে সাধারণ মানুষ তাদের ফোন করলে জুবায়ের ওই ব্যক্তিদের সমস্যার সামাধান করতে পারবে বলে টাকা আত্মসাৎ করতেন।
প্রতারক জুবায়ের আহমেদ সুমনের নামে গত ২০১১ সালে ৫ ডিসেম্বর বোরহান উদ্দিন থানায় আরো একটি মামলা হয়েছিল। ওই মামলার নম্বর-৯। এই মামলায় তার পাঁচ বছরের সাজা হয়। তিনি ওই মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ছিলেন। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে বোরহান উদ্দিন থানায় একধিক মামলা রয়েছে। ইতোমধ্যে প্রতারক জুবায়েরের তিনসহযোগী জাফর ইকবাল ওরফে কাজল, সাগর এবং ছামিরকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি। এরমধ্যে গ্রেপ্তারকৃত জাফর ইকবাল ও সাগর আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছেন।
সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রুহুল আমিন, রাজিব ফারহান। এসআই সিরাজ উদ্দিন।
মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম,
ঢাকা,বৃহস্পতিবার,২৯ নভেম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়েরকৃত এক মামলায় দৈনিক সংগ্রাম পত্রিকার সম্পাদক গ্রেফতার

» শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

» কেরানীগঞ্জের প্লাস্টিক কারখানার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৪

» অগণতান্ত্রিক সরকার মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করেছে-মির্জা ফখরুল

» যুদ্ধাপরাধী কাদের মোল্লাকে শহীদ আখ্যা দিয়ে ধৃষ্টতা দেখিয়েছে সংগ্রাম পত্রিকা

» বুদ্ধিজীবী হত্যাকারীদের দেশে ফিরিয়ে আনার কূটনৈতিক তৎপরতা চলছে-ওবায়দুল কাদের

» শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে মিরপুর বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

» আজ শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস

» কুমিল্লাকে ২০ রানে হারিয়ে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছে মাশরাফির ঢাকা প্লাটুন

» দৈনিক সংগ্রাম কার্যালয় ঘেরাও ও ভাংচুর পুলিশ হেফাজতে সম্পাদক

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ২৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিজ্ঞপনে দিয়ে জিনের বাদশা কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ-সিআইডি

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

সিনিয়ার নিজস্ব প্রতিবেদক,ঢাকা: গণমাধ্যমে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছে একটি চক্র। তারা কখনও জিনের বাদশা কখনও দয়াল বাবা সেজে প্রতারণা করে থাকেন।
আজ বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া ১১ টার সময়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানিয়েছেন পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)।
রাজধানীর মালিবাগের সিআইডির সদর দপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেছেন পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) উপ মহাপরিদর্শক মো. শাহআলম। প্রতিদিন অনেক প্রতারণার ঘটনা ঘটে থাকে। বিভিন্ন গণমাধ্যমের বিজ্ঞাপন দেখে সহজেই প্রতারণার শিকার হয়ে থাকে সাধারণ মানুষেরা। আমরা দেখেছি ঢাকার এক শিক্ষিত গৃহবধূ প্রতারণার শিকার হয়ে প্রায় সাড়ে সাত লাখ টাকার হারিয়েছেন। আমরা এই জিনদের দুইভাগে ভাগ করেছি। তাদের মধ্যে একটি হচ্ছে টিভি জিন আর একটি হচ্ছে মোবাইল জিন। টিভি জিনদের কাছে গিয়ে নিজেরাই প্রতারিত হন। আর মোবাইল জিন ফোন করে ভিকটিমদের প্রতারণা করে থাকেন।
সংবাদ সম্মেলনে সিআইডির সিরিয়াস ক্রাইমের বিশেষ পুলিশ সুপার সৈয়দা জান্নাত আরা বলেন, আসামিরা একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র। তারা বিভিন্ন সময়ে জিনের বাদশা, দয়াল বাবা সেজে বিভিন্ন সমস্যারা সামাধান দেবেবলে বিজ্ঞাপন তৈরি করে।
লটারি,গুপ্তধন, জটিল রোগ থেকে মুক্তি, পাওনা টাকা আদায়,দাম্পত্য কলহ, ভালোবাসার মানুষকে বশে আনা সকল সমস্যার সমাধান করতে পারে। এমন কথা বলে বিভিন্ন হুজুরের ছবি ব্যবহার করে বিভিন্ন টিভি চ্যানেলে বিজ্ঞাপন প্রচারের সাধারণ মানুষকে প্রলোভন দেখিয়ে মিথ্যা আশ^াস দিয়ে টাকা আত্মসাৎ করে থাকে।
সিআইডির সিরিয়াস ক্রাইমের বিশেষ পুলিশ সুপার বলেন, সোহেল মোল্লা নামের একব্যক্তি এই প্রতারক চক্রের খপ্পড়ে পড়ে ৪২ লাখ ২৫ হাজার টাকার ক্ষতি হয়েছে। তাকে লটারি পাইয়ে দেবে বলে ওয়েষ্টার্ন ইউনিয়ন মানি ট্রান্সফার, ব্যাংক ও বিভিন্ন মাধ্যমে ৪২ লাখ ২৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন চক্রটি।
সৈয়দা জান্নাত আরা বলেন, পরে সোহেল মোল্লা গত ২২ জুলাই ভোলার বোরহান উদ্দিন থানায় একটি মামলা করেন। মামলা নম্বর-২৬। ধারা ৪০৬,৪২০ এবং ১০৯ পেনাল কোড। মামলাটির তদন্তের দায়িত্ব পান সিআইডি।
পরে আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে আটটার সময়ে ঢাকার ফার্মগেট ইন্দ্রপুরী ইন্টারন্যাশনাল হোটেল থেকে ওই মামলার এজাহার নামীয় আসামি ও প্রতারক চক্রের মূল হোতা জুবায়ের আহমেদ সুমনকে গ্রেপ্তার করেছেন।
সিআইডির সিরিয়াস ক্রাইমের বিশেষ পুলিশ সুপার বলেন, গ্রেপ্তারকৃত সুমন জিজ্ঞাসাবাদে সিআইডিকে বলেছেন, মাসিক ২০ হাজার টাকা দিয়ে তৈয়েবুর রহমান নামের এক ব্যক্তির মাধ্যমে সাপ্তাহিক ম্যাগাজিন, বর্তমান দিনকাল, ও চিত্র বাংলা পত্রিকায় বিজ্ঞপন প্রচার করত। ওই বিজ্ঞপনে তারা বিভিন্ন দরবার শরীফের নাম ব্যবহার করে সকল সমস্যার সমাধান দিতে পারে বলেও প্রচার করত। আর এইসব বিজ্ঞাপন দেখে সাধারণ মানুষ তাদের ফোন করলে জুবায়ের ওই ব্যক্তিদের সমস্যার সামাধান করতে পারবে বলে টাকা আত্মসাৎ করতেন।
প্রতারক জুবায়ের আহমেদ সুমনের নামে গত ২০১১ সালে ৫ ডিসেম্বর বোরহান উদ্দিন থানায় আরো একটি মামলা হয়েছিল। ওই মামলার নম্বর-৯। এই মামলায় তার পাঁচ বছরের সাজা হয়। তিনি ওই মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ছিলেন। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে বোরহান উদ্দিন থানায় একধিক মামলা রয়েছে। ইতোমধ্যে প্রতারক জুবায়েরের তিনসহযোগী জাফর ইকবাল ওরফে কাজল, সাগর এবং ছামিরকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি। এরমধ্যে গ্রেপ্তারকৃত জাফর ইকবাল ও সাগর আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছেন।
সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রুহুল আমিন, রাজিব ফারহান। এসআই সিরাজ উদ্দিন।
মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম,
ঢাকা,বৃহস্পতিবার,২৯ নভেম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com