ড. ওয়াজেদ মিয়া ছিলেন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্বপ্নদ্রষ্টা- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

ড. ওয়াজেদ মিয়া ছিলেন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্বপ্নদ্রষ্টা- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী 90

সিনিয়র রিপোর্টার, ঢাকা: সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি বলেছেন, ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া ছিলেন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্বপ্নদ্রষ্টা এবং বাংলাদেশের আধুনিক পরমাণু বিজ্ঞানের প্রাণপুরুষ। তাঁর নেতৃত্বেই এদেশের পারমাণবিক খাতে উন্নয়ন ও গবেষণা হয়েছে। তাঁর তখনকার উদ্যোগের ফলে আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র আলোর মুখ দেখেছে। এ পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র পূর্ণোদ্যমে উৎপাদনে গেলে বাংলাদেশের বিদ্যুৎ খাত আরো স্বয়ংসম্পূর্ণ হবে। বিজ্ঞান চর্চায় বিশেষ করে পরমাণু বিজ্ঞানে বিশেষ অবদানের জন্য ঢাকাস্থ অ্যাটমিক এনার্জি সেন্টার অথবা রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র এর নাম ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার নামে নামকরণ করা যেতে পারে।
প্রতিমন্ত্রী আজ বিকালে রাজধানীর বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর এর কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে জাতীয় জাদুঘর আয়োজিত “ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া : বাংলাদেশের আধুনিক পরমাণু বিজ্ঞানের প্রাণপুরুষ” শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
প্রধান অতিথি বলেন, ড. ওয়াজেদ মিয়া ছিলেন একজন ব্যতিক্রমী নিভৃতচারী মানুষ। তিনি লোকচক্ষুর আড়ালে অনাড়ম্বর জীবনযাপন করেছেন। সারাজীবন তিনি জ্ঞানার্জন ও গবেষণার মাধ্যমে জাতিকে দিয়ে গেছেন। প্রতিমন্ত্রী ড. ওয়াজেদ মিয়াকে স্মরণীয় করে রাখার মাধ্যমে তাঁর জীবন ও কর্ম নতুন প্রজন্মের সামনে শিক্ষণীয়ভাবে উপস্থাপনে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণের জন্য সংস্কৃতি সচিবকে নির্দেশনা প্রদান করেন।
বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর সদস্য অধ্যাপক ড. সুলতানা শফি‘র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব ড. মো. আবু হেনা মোস্তফা কামাল এনডিসি।
সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন (মূল বক্তা) থিংকট্যাঙ্ক জন্মভূমি রিসার্চ সেন্টার এর কর্মাধ্যক্ষ আসিফ কবীর।
সেমিনারে আলোচক হিসেবে আলোচনা করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাবেক বিশেষ সহকারী অধ্যাপক সেলিমা খাতুন ও বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ এর চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. নঈম চৌধুরী।
সেমিনারে স্বাগত বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর এর মহাপরিচালক মো.রিয়াজ আহম্মদ এবং ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর এর সচিব মো. আবদুল মজিদ।
মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম,
ঢাকা,বুধবার, ২০ মার্চ,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments
Download WordPress Themes Free
Free Download WordPress Themes
Download Premium WordPress Themes Free
Download WordPress Themes Free
free download udemy paid course

সর্বশেষ আপডেট



» বাংলাদেশকে ৪৮ রানে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া

» বাংলাদেশকে ৪৮ রানে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া

» ওয়ানডে ক্যারিয়ারে সপ্তম এবং বিশ্বকাপে প্রথম সেঞ্চুরি করলেন মুশফিকুর রহিম

» ডিএনসিসি নতুন অন্তর্ভুক্ত দুই ওয়ার্ড পরিদর্শন করলেন মেয়র আতিকুল ইসলাম।

» ১ উইকেটে ২৮ ওভার শেষে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ১৫৩ রান

» প্রত্যেকেই নিজের কর্মস্থল ও বাসস্থানে গাছ লাগাবেন,ছেলে-মেয়েদেরও বৃক্ষরোপণ শেখাতে হবে-প্রধানমন্ত্রী

» রাজধানীর পরীবাগে একটি বহুতল ভবনের আগুন নিয়ন্ত্রণে

» দুদকের মামলায় সাবেক বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী কারাগারে

» নটিংহামে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে অস্ট্রেলিয়া

» দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় সাবেক বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

ড. ওয়াজেদ মিয়া ছিলেন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্বপ্নদ্রষ্টা- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

ড. ওয়াজেদ মিয়া ছিলেন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্বপ্নদ্রষ্টা- সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী 90

সিনিয়র রিপোর্টার, ঢাকা: সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি বলেছেন, ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া ছিলেন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের স্বপ্নদ্রষ্টা এবং বাংলাদেশের আধুনিক পরমাণু বিজ্ঞানের প্রাণপুরুষ। তাঁর নেতৃত্বেই এদেশের পারমাণবিক খাতে উন্নয়ন ও গবেষণা হয়েছে। তাঁর তখনকার উদ্যোগের ফলে আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র আলোর মুখ দেখেছে। এ পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র পূর্ণোদ্যমে উৎপাদনে গেলে বাংলাদেশের বিদ্যুৎ খাত আরো স্বয়ংসম্পূর্ণ হবে। বিজ্ঞান চর্চায় বিশেষ করে পরমাণু বিজ্ঞানে বিশেষ অবদানের জন্য ঢাকাস্থ অ্যাটমিক এনার্জি সেন্টার অথবা রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র এর নাম ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়ার নামে নামকরণ করা যেতে পারে।
প্রতিমন্ত্রী আজ বিকালে রাজধানীর বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর এর কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে জাতীয় জাদুঘর আয়োজিত “ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া : বাংলাদেশের আধুনিক পরমাণু বিজ্ঞানের প্রাণপুরুষ” শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।
প্রধান অতিথি বলেন, ড. ওয়াজেদ মিয়া ছিলেন একজন ব্যতিক্রমী নিভৃতচারী মানুষ। তিনি লোকচক্ষুর আড়ালে অনাড়ম্বর জীবনযাপন করেছেন। সারাজীবন তিনি জ্ঞানার্জন ও গবেষণার মাধ্যমে জাতিকে দিয়ে গেছেন। প্রতিমন্ত্রী ড. ওয়াজেদ মিয়াকে স্মরণীয় করে রাখার মাধ্যমে তাঁর জীবন ও কর্ম নতুন প্রজন্মের সামনে শিক্ষণীয়ভাবে উপস্থাপনে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণের জন্য সংস্কৃতি সচিবকে নির্দেশনা প্রদান করেন।
বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর সদস্য অধ্যাপক ড. সুলতানা শফি‘র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব ড. মো. আবু হেনা মোস্তফা কামাল এনডিসি।
সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন (মূল বক্তা) থিংকট্যাঙ্ক জন্মভূমি রিসার্চ সেন্টার এর কর্মাধ্যক্ষ আসিফ কবীর।
সেমিনারে আলোচক হিসেবে আলোচনা করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাবেক বিশেষ সহকারী অধ্যাপক সেলিমা খাতুন ও বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ এর চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. নঈম চৌধুরী।
সেমিনারে স্বাগত বক্তৃতা করেন বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর এর মহাপরিচালক মো.রিয়াজ আহম্মদ এবং ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর এর সচিব মো. আবদুল মজিদ।
মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম,
ঢাকা,বুধবার, ২০ মার্চ,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY PopularITLimited