ছয় শতাধিক চরমপন্থী অস্ত্র জমা দিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আত্মসমর্পণ

ছয় শতাধিক চরমপন্থী অস্ত্র জমা দিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আত্মসমর্পণ 25

দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ছয় শতাধিক চরমপন্থী অস্ত্র জমা দিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আত্মসমর্পণ করেছে।মঙ্গলবার (০৯ এপ্রিল) বিকেলে পাবনা জেলা স্টেডিয়ামে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আত্মসমর্পণ করেন স্থানীয় ২৫ চরমপন্থী। এসময় প্রায় ১০০টি আগ্নেয়াস্ত্র জমা দেন তারা। পরে অন্যরাও আত্মসমর্পণ করেন।
স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ১৫ জেলার ছয় শতাধিক চরমপন্থী আত্মসমর্পণ করেছেন। অনুষ্ঠানে যেসব জেলা থেকে চরমপন্থীরা আত্মসমর্পণ করেছেন সেই জেলাগুলো হচ্ছে- পাবনা, ফরিদপুর, রাজবাড়ী, সিরাজগঞ্জ, নাটোর, নওগাঁ, রংপুর, বগুড়া, টাঙ্গাইল, রাজশাহী, খুলনা, নড়াইল, যশোর, সাতক্ষীরা ও জয়পুরহাট। প্রাথমিক পর্যায়ে এসব জেলা থেকে প্রায় সাড়ে ৬শ’ চরমপন্থী আত্মসমর্পণ করার তালিকা করা হয়। এ সময় পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারীসহ পাবনা ও রাজশাহীর জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। এই অনুষ্ঠানকে ঘিরে গত এক সপ্তাহ ধরে পাবনা উৎসবের নগরীতে পরিণত হয়।
পুলিশ জানায়, অন্ধকারের পথ ছেড়ে স্বাভাবিক জীবনে ফেরার ঘোষণা দিয়ে আত্মসমর্পণের সিদ্ধান্ত নেন পাবনাসহ উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের ১৫ জেলার পূর্ববাংলার সর্বহারা পার্টি, পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টি (এমএল লাল পতাকা), নিউ পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টি ও কাদামাটি নামের চারটি নিষিদ্ধ ঘোষিত চরমপন্থী সংগঠনের ৬১৪ জন সদস্য। এদের মধ্যে মঙ্গলবার ৫৯৫ জন আত্মসমর্পণ করে। অন্য ১৯ জন আইনি প্রক্রিয়ার পর আত্মসমর্পণ করবে বলে আশা করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।এ উপলক্ষে মঙ্গলবার বিকেলে পাবনার শহীদ অ্যাডভোকেট আমিন উদ্দিন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। প্রধান বক্তা ছিলেন আইজিপি ড. জাবেদ পাটোয়ারী। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, সাংসদ শামসুর রহমান শরীফ ডিলু, গোলাম ফারুক প্রিন্স, শামসুল হক টুকু, মকবুল হোসেন, আহমেদ ফিরোজ কবির, ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক ও নাদিরা ইয়াসমিন জলি, রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি এম খুরশিদ হোসেন, পাবনার জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন, আত্মসমর্পণকারী পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টির (এমএল লাল পতাকা) আঞ্চলিক নেতা আব্দুর রাজ্জাক ওরফে আর্ট বাবু, পূর্ব বাংলার সর্বহারা পার্টির পাবনার আঞ্চলিক নেতা ইউসুফ আলী ফকির ওরফে মিন্টু ফকিরের স্ত্রী রত্না বেগম।
পাবনা,মঙ্গলবার,০৯ এপ্রিল,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments
Download WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
Premium WordPress Themes Download
Download Best WordPress Themes Free Download
free download udemy paid course

সর্বশেষ আপডেট



» বাংলাদেশকে ৪৮ রানে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া

» বাংলাদেশকে ৪৮ রানে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া

» ওয়ানডে ক্যারিয়ারে সপ্তম এবং বিশ্বকাপে প্রথম সেঞ্চুরি করলেন মুশফিকুর রহিম

» ডিএনসিসি নতুন অন্তর্ভুক্ত দুই ওয়ার্ড পরিদর্শন করলেন মেয়র আতিকুল ইসলাম।

» ১ উইকেটে ২৮ ওভার শেষে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ১৫৩ রান

» প্রত্যেকেই নিজের কর্মস্থল ও বাসস্থানে গাছ লাগাবেন,ছেলে-মেয়েদেরও বৃক্ষরোপণ শেখাতে হবে-প্রধানমন্ত্রী

» রাজধানীর পরীবাগে একটি বহুতল ভবনের আগুন নিয়ন্ত্রণে

» দুদকের মামলায় সাবেক বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকী কারাগারে

» নটিংহামে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে অস্ট্রেলিয়া

» দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় সাবেক বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী আবদুল লতিফ সিদ্দিকীকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

ছয় শতাধিক চরমপন্থী অস্ত্র জমা দিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আত্মসমর্পণ

ছয় শতাধিক চরমপন্থী অস্ত্র জমা দিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আত্মসমর্পণ 25

দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ছয় শতাধিক চরমপন্থী অস্ত্র জমা দিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আত্মসমর্পণ করেছে।মঙ্গলবার (০৯ এপ্রিল) বিকেলে পাবনা জেলা স্টেডিয়ামে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে আত্মসমর্পণ করেন স্থানীয় ২৫ চরমপন্থী। এসময় প্রায় ১০০টি আগ্নেয়াস্ত্র জমা দেন তারা। পরে অন্যরাও আত্মসমর্পণ করেন।
স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ১৫ জেলার ছয় শতাধিক চরমপন্থী আত্মসমর্পণ করেছেন। অনুষ্ঠানে যেসব জেলা থেকে চরমপন্থীরা আত্মসমর্পণ করেছেন সেই জেলাগুলো হচ্ছে- পাবনা, ফরিদপুর, রাজবাড়ী, সিরাজগঞ্জ, নাটোর, নওগাঁ, রংপুর, বগুড়া, টাঙ্গাইল, রাজশাহী, খুলনা, নড়াইল, যশোর, সাতক্ষীরা ও জয়পুরহাট। প্রাথমিক পর্যায়ে এসব জেলা থেকে প্রায় সাড়ে ৬শ’ চরমপন্থী আত্মসমর্পণ করার তালিকা করা হয়। এ সময় পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারীসহ পাবনা ও রাজশাহীর জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। এই অনুষ্ঠানকে ঘিরে গত এক সপ্তাহ ধরে পাবনা উৎসবের নগরীতে পরিণত হয়।
পুলিশ জানায়, অন্ধকারের পথ ছেড়ে স্বাভাবিক জীবনে ফেরার ঘোষণা দিয়ে আত্মসমর্পণের সিদ্ধান্ত নেন পাবনাসহ উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের ১৫ জেলার পূর্ববাংলার সর্বহারা পার্টি, পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টি (এমএল লাল পতাকা), নিউ পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টি ও কাদামাটি নামের চারটি নিষিদ্ধ ঘোষিত চরমপন্থী সংগঠনের ৬১৪ জন সদস্য। এদের মধ্যে মঙ্গলবার ৫৯৫ জন আত্মসমর্পণ করে। অন্য ১৯ জন আইনি প্রক্রিয়ার পর আত্মসমর্পণ করবে বলে আশা করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।এ উপলক্ষে মঙ্গলবার বিকেলে পাবনার শহীদ অ্যাডভোকেট আমিন উদ্দিন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। প্রধান বক্তা ছিলেন আইজিপি ড. জাবেদ পাটোয়ারী। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন, সাংসদ শামসুর রহমান শরীফ ডিলু, গোলাম ফারুক প্রিন্স, শামসুল হক টুকু, মকবুল হোসেন, আহমেদ ফিরোজ কবির, ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক ও নাদিরা ইয়াসমিন জলি, রাজশাহী রেঞ্জের ডিআইজি এম খুরশিদ হোসেন, পাবনার জেলা প্রশাসক মো. জসিম উদ্দিন, আত্মসমর্পণকারী পূর্ববাংলার কমিউনিস্ট পার্টির (এমএল লাল পতাকা) আঞ্চলিক নেতা আব্দুর রাজ্জাক ওরফে আর্ট বাবু, পূর্ব বাংলার সর্বহারা পার্টির পাবনার আঞ্চলিক নেতা ইউসুফ আলী ফকির ওরফে মিন্টু ফকিরের স্ত্রী রত্না বেগম।
পাবনা,মঙ্গলবার,০৯ এপ্রিল,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY PopularITLimited