২০ ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের পর ভিডিও ধারণ,অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে শিক্ষক আটক

নারায়ণগঞ্জে ফাঁদে ফেলে ২০ ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের পর ভিডিও ধারণ করে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত শিক্ষককে গণপিটুনি দিয়ে র‌্যাবের ২০ ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের পর ভিডিও ধারণ,অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে শিক্ষক আটক 123

নারায়ণগঞ্জে ফাঁদে ফেলে ২০ ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের পর ভিডিও ধারণ করে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত শিক্ষককে গণপিটুনি দিয়ে র‌্যাবের হাতের তুলে দেন এলাকাবাসী। মদদ দেয়ার অভিযোগে আটক হয়েছেন বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষকও।র‌্যাব জানায়, দীর্ঘদিন ধরে ছাত্রীদের সঙ্গে বিভিন্নভাবে প্রতারণা করে আসছিলেন সিদ্ধিরগঞ্জ অক্সফোর্ড হাইস্কুলের শিক্ষক আশরাফুল আরিফ। নানা কৌশলে তাদেরকে ফাঁদে পেলে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তুলতেন তিনি।
এমনকি সেই ভিডিওচিত্র ধারণের পর মোটা অংকের অর্থ আদায় করতেন তিনি। এমন অভিযোগে সকালে স্কুলে গিয়ে ওই শিক্ষককে আটকের পর মোবাইল ফোন যাচাই করেন এলাকাবাসী। এক পর্যায়ে তাকে গণপিটুনি দেয়া হয়।
খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আশরাফুলকে আটক করে র‌্যাব। এসময় মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপসহ বিভিন্ন ডিভাইস জব্দ করা হয়।তাকে সহযোগিতা করার অভিযোগে স্কুলটির প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম জুলফিকারকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে।আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি এলাকায় ওই স্কুলে অভিযান চালায় র‍্যাব ও পুলিশ। ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। খবর ছড়িয়ে পড়লে শত শত অভিভাবক ও এলাকাবাসী ছুটে গিয়ে স্কুল ঘেরাও করে বিক্ষোভে ফেটে পড়ে। দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে তারা।ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে সিদ্ধিরগঞ্জের কান্দাপাড়ার মিজমিজি এলাকায় অবস্থিত বেসরকারি ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।র‍্যাবের দেওয়া তথ্য মতে, স্কুলের গণিত বিষয়ের সহকারী শিক্ষক আরিফুল ইসলাম সরকার ওরফে আশরাফুল কোমলমতি শিশুদের যৌন নিপীড়ন করে তা আবার মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করে রাখেন। দীর্ঘ পাঁচ বছর ধরে তিনি এমন কাণ্ড ঘটিয়ে আসছিলেন। একবার দুইবার বা পাঁচ-দশবারেই শেষ নয়। যে শিশুটি পঞ্চম শ্রেণি শেষ করে অন্য স্কুলে ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হয়ে আজ নবম শ্রেণিতে পড়ছে সেই মেয়েটিও পাষণ্ড ওই শিক্ষকের লালসা থেকে বের হতে পারছে না। তাকে ভয় দেখানো হচ্ছে ভিডিও ফাঁস করে দেওয়ার। এভাবে ২০টিরও বেশি শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ বা যৌন নিপীড়ন অব্যাহত রেখেছে। স্কুলের প্রধান শিক্ষক বিষয়টি দেখেও যেন না দেখার ভান করতেন।
র‍্যাব ১১-এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলেপ উদ্দিন বলেন, ‘আজ বৃহস্পতিবার সকালে আমরা খবর পাই যে সিদ্ধিরগঞ্জের অক্সফোর্ড স্কুলের একজন শিক্ষক কিছু ছাত্রীকে যৌন হেনস্তা করেছেন। তার মোবাইল ফোন নিয়ে সার্চ করে আমরা হতবাক হয়ে যাই। ২০ জনেরও বেশি ছাত্রীর ভিডিও তার মোবাইল ও ল্যাপটপে রয়েছে। কোচিংয়ের নামে নিজের ফ্ল্যাটে নিয়ে এসব করে ভিডিও ছবি ধারণ করে ব্ল্যাকমেইল করতেন। এরপর যৌন নিপীড়নের ভিডিও ও স্থিরচিত্র তা মোবাইল ও ল্যাপটপে সংরক্ষণ করে রাখতেন। আমরা প্রধান শিক্ষককেও গ্রেপ্তার করেছি। কারণ তিনি এ বিষয়টি জানা সত্ত্বেও কোনো ব্যবস্থা নেননি বলে প্রমাণ মিলেছে।’
র‍্যাব কর্মকর্তা জানান, সহকারী শিক্ষক আরিফুল পাঁচ বছর ধরে অপকর্ম করে আসছেন তা জানতেন প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম জুলফিকার। এজন্য তাঁকেও গ্রেপ্তার করা হয়।
নারায়ণগঞ্জ,বৃহস্পতিবার,২৭ জুন,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments
Download WordPress Themes
Free Download WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Download Best WordPress Themes Free Download
free online course

সর্বশেষ আপডেট



» স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে সিঙ্গাপুর থেকে দেশে ফিরেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের

» সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের কুলখানি গুলশানের আজাদ মসজিদে অনুষ্ঠিত

» জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাইয়ে porichoy.gov.bd নামে একটি পোর্টাল উদ্বোধন করেন সজীব ওয়াজেদ জয়

» রিফাত শরিফ হত্যার ঘটনায় স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

» সহজে ও দ্রুত জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাইয়ের গেটওয়ে porichoy.gov.bd উদ্বোধন করেছেন সজীব ওয়াজেদ জয়

» ডেঙ্গু মহামারি আকার ধারণ করতে আর দেরি নেই, তারপরও দুই সিটির মেয়র কীভাবে বলেন, আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই, হাইকোর্টের বিস্ময়; ৩০ আগস্টের মধ্যে এডিস মশা নিয়ন্ত্রণের নির্দেশ

» নুসরাত হত্যা: ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জ গঠন

» সিটিজেন সার্ভিস প্ল্যাটফর্ম ‘পরিচয়’ উদ্বোধন করলেন সজীব ওয়াজেদ জয়

» বরগুনায় রিফাত হত্যা মামলায় স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে ৫ দিনের রিমান্ড দিয়েছে আদালত

» রাজধানীর হাসপাতালগুলোতে বেড়েই চলছে ডেঙ্গু রোগী।আর এজন্য নগর কর্তৃপক্ষকেই দায়ী করছেন নগরবাসী।

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

২০ ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের পর ভিডিও ধারণ,অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে শিক্ষক আটক

নারায়ণগঞ্জে ফাঁদে ফেলে ২০ ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের পর ভিডিও ধারণ করে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত শিক্ষককে গণপিটুনি দিয়ে র‌্যাবের ২০ ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের পর ভিডিও ধারণ,অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে শিক্ষক আটক 123

নারায়ণগঞ্জে ফাঁদে ফেলে ২০ ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের পর ভিডিও ধারণ করে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত শিক্ষককে গণপিটুনি দিয়ে র‌্যাবের হাতের তুলে দেন এলাকাবাসী। মদদ দেয়ার অভিযোগে আটক হয়েছেন বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষকও।র‌্যাব জানায়, দীর্ঘদিন ধরে ছাত্রীদের সঙ্গে বিভিন্নভাবে প্রতারণা করে আসছিলেন সিদ্ধিরগঞ্জ অক্সফোর্ড হাইস্কুলের শিক্ষক আশরাফুল আরিফ। নানা কৌশলে তাদেরকে ফাঁদে পেলে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তুলতেন তিনি।
এমনকি সেই ভিডিওচিত্র ধারণের পর মোটা অংকের অর্থ আদায় করতেন তিনি। এমন অভিযোগে সকালে স্কুলে গিয়ে ওই শিক্ষককে আটকের পর মোবাইল ফোন যাচাই করেন এলাকাবাসী। এক পর্যায়ে তাকে গণপিটুনি দেয়া হয়।
খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আশরাফুলকে আটক করে র‌্যাব। এসময় মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপসহ বিভিন্ন ডিভাইস জব্দ করা হয়।তাকে সহযোগিতা করার অভিযোগে স্কুলটির প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম জুলফিকারকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে।আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি এলাকায় ওই স্কুলে অভিযান চালায় র‍্যাব ও পুলিশ। ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। খবর ছড়িয়ে পড়লে শত শত অভিভাবক ও এলাকাবাসী ছুটে গিয়ে স্কুল ঘেরাও করে বিক্ষোভে ফেটে পড়ে। দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে তারা।ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে সিদ্ধিরগঞ্জের কান্দাপাড়ার মিজমিজি এলাকায় অবস্থিত বেসরকারি ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।র‍্যাবের দেওয়া তথ্য মতে, স্কুলের গণিত বিষয়ের সহকারী শিক্ষক আরিফুল ইসলাম সরকার ওরফে আশরাফুল কোমলমতি শিশুদের যৌন নিপীড়ন করে তা আবার মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করে রাখেন। দীর্ঘ পাঁচ বছর ধরে তিনি এমন কাণ্ড ঘটিয়ে আসছিলেন। একবার দুইবার বা পাঁচ-দশবারেই শেষ নয়। যে শিশুটি পঞ্চম শ্রেণি শেষ করে অন্য স্কুলে ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হয়ে আজ নবম শ্রেণিতে পড়ছে সেই মেয়েটিও পাষণ্ড ওই শিক্ষকের লালসা থেকে বের হতে পারছে না। তাকে ভয় দেখানো হচ্ছে ভিডিও ফাঁস করে দেওয়ার। এভাবে ২০টিরও বেশি শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ বা যৌন নিপীড়ন অব্যাহত রেখেছে। স্কুলের প্রধান শিক্ষক বিষয়টি দেখেও যেন না দেখার ভান করতেন।
র‍্যাব ১১-এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলেপ উদ্দিন বলেন, ‘আজ বৃহস্পতিবার সকালে আমরা খবর পাই যে সিদ্ধিরগঞ্জের অক্সফোর্ড স্কুলের একজন শিক্ষক কিছু ছাত্রীকে যৌন হেনস্তা করেছেন। তার মোবাইল ফোন নিয়ে সার্চ করে আমরা হতবাক হয়ে যাই। ২০ জনেরও বেশি ছাত্রীর ভিডিও তার মোবাইল ও ল্যাপটপে রয়েছে। কোচিংয়ের নামে নিজের ফ্ল্যাটে নিয়ে এসব করে ভিডিও ছবি ধারণ করে ব্ল্যাকমেইল করতেন। এরপর যৌন নিপীড়নের ভিডিও ও স্থিরচিত্র তা মোবাইল ও ল্যাপটপে সংরক্ষণ করে রাখতেন। আমরা প্রধান শিক্ষককেও গ্রেপ্তার করেছি। কারণ তিনি এ বিষয়টি জানা সত্ত্বেও কোনো ব্যবস্থা নেননি বলে প্রমাণ মিলেছে।’
র‍্যাব কর্মকর্তা জানান, সহকারী শিক্ষক আরিফুল পাঁচ বছর ধরে অপকর্ম করে আসছেন তা জানতেন প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম জুলফিকার। এজন্য তাঁকেও গ্রেপ্তার করা হয়।
নারায়ণগঞ্জ,বৃহস্পতিবার,২৭ জুন,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY PopularITLimited