সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানো ঠেকাতে ব্যবস্থা নেয়া হবে-তথ্যমন্ত্রী

সোশ্যাল মিডিয়া যখন গুজব ছড়াবে, তখনই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে যে গুজব ছড়াচ্ছে, তা ব্যক্তি বা সমাজিক জীবনে কতটুকু হস্তক্ষেপ করছে সে বিষয়টিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানো ঠেকাতে ব্যবস্থা নেয়া হবে-তথ্যমন্ত্রী 130

সোশ্যাল মিডিয়া যখন গুজব ছড়াবে, তখনই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে যে গুজব ছড়াচ্ছে, তা ব্যক্তি বা সমাজিক জীবনে কতটুকু হস্তক্ষেপ করছে সে বিষয়টিও বিবেচনায় আনা হবে। এজন্য ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন হয়েছে। কেউ যদি গুজব ছড়ায় এর মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়ার সুযোগ আছে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। শনিবার (২৯ জুন) বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত ‘তারুণ্যের ভাবনায় আওয়ামী লীগ’ শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে তিনি এ কথা জানান। সোশ্যাল মিডিয়ায় গুজব ছড়ানো নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা মতামত প্রকাশের দুয়ার অবারিত করে দিয়েছি। আগে মানুষ কোনো কিছু জানার জন্য পত্রিকা-টিভির শরণাপন্ন হতো। এখন মানুষ ফেসবুক ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে জানতে পারছে। আগে ৪০-৫০ লাখ মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করতো। এখন দেশে ৯ কোটি লোক ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। তবে গুজব বিশ্বব্যাপী সমস্যা। আমরা মানুষের অধিকার অবারিত থাকুক এটাই চাই। তবে একজনের অধিকার প্রয়োগের ক্ষেত্রে অন্যজনের অধিকারে কোনো হস্তক্ষেপ হচ্ছে কি-না, সে বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে।তিনি বলেন, সোশ্যাল মিডিয়া যখন গুজব ছড়াবে, তখনই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে যে গুজব ছড়াচ্ছে, তা ব্যক্তি বা সমাজিক জীবনে কতটুকু হস্তক্ষেপ করছে সে বিষয়টিও বিবেচনায় আনা হবে। এজন্য ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন হয়েছে। কেউ যদি গুজব ছড়ায় এর মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়ার সুযোগ আছে।
মাদকের বিষয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স নীতিতে কাজ করছে। দলের মধ্যে যদি কোনো নেতা মাদকে জড়িত থাকেন, তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
ছাত্র রাজনীতি নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রাজনীতি হলো একটি ব্রত। তবে সাম্প্রতিক সময়ে কিছু সামাজিক অবক্ষয়ের কারণে ছাত্র রাজনীতিতেও অবক্ষয় হয়েছে। এজন্য একজন ছাত্রকে পড়াশোনা করে রাজনীতিতে আসতে হবে। আর রাজনীতি করতে হলে পরিবারের উর্ধ্বে এসে রাষ্ট্রকে পরিবার ভাবতে পারলে প্রকৃত রাজনৈতিক নেতা তৈরি হবে। তথ্যমন্ত্রী বলেন, আগামী ৩০ জুন অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিবন্ধনের জন্য আবেদনের সময়সীমা শেষ হচ্ছে। ইতোমধ্যে আমাদের কাছে প্রায় ৮ হাজার আবেদন জমা পড়েছে। এর মধ্যে আগের ছিল ৩ হাজার, আর নতুন করে জমা পড়েছে ৫ হাজার। আরও আবেদন জমা পড়বে, তাই সময়সীমা এক সপ্তাহ বাড়ানোর চিন্তা করা হচ্ছে।
ড. হাছান মাহমুদ বলেন, অনলাইন নিবন্ধনের জন্য যে আবেদন পড়েছে সেখান থেকে যাচাই- বাছাই করে অনুমোদন দেওয়া হবে। আমরা শিগগির এ কাজটি সম্পন্ন করবো। এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এবং প্রচার ও প্রকাশনা কমিটির সভাপতি এইচ টি ইমাম, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল প্রমুখ।
তথ্য-প্রযুক্তি ডেস্ক,শনিবার,২৯ জুন,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments
Download Nulled WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Download Best WordPress Themes Free Download
online free course

সর্বশেষ আপডেট



» রাজধানীর বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে রেনু হত্যা: মূলহোতা হৃদয় আটক

» বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে তাসলিমা বেগম রেনুকে পিটিয়ে হত্যা মামলার প্রধান আসামি হৃদয় নারায়ণগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার : ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ

» দুর্নীতি দমন কমিশনের বরখাস্ত হওয়া পরিচালক খন্দকার এনামুল বাছিরের জামিন নামঞ্জুর, কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ

» রিফাত শরীফ হত্যা: মিন্নির জামিন শুনানি ৩০ জুলাই

» ‘ছেলেধরা’গুজবে গণপিটুনিতে অংশ নিয়ে হত্যাকাণ্ড ঘটালে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে

» বঙ্গোপসাগর থেকে মাছ ধরা নিষেধাজ্ঞা শেষ হচ্ছে আজ মঙ্গলবার মধ্যরাত থেকে

» ঈদুল আজহা উপলক্ষে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি আগামী ২৯ জুলাই থেকে

» তাসলিমা বেগম রেনুর হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে লক্ষ্মীপুরে মানববন্ধন

» ঘুষ কেলেঙ্কারি মামলায় দুদকের বরখাস্ত কর্মকর্তা এনামুল বাছির গ্রেফতার

» হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ থেকে প্রিয়া সাহাকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানো ঠেকাতে ব্যবস্থা নেয়া হবে-তথ্যমন্ত্রী

সোশ্যাল মিডিয়া যখন গুজব ছড়াবে, তখনই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে যে গুজব ছড়াচ্ছে, তা ব্যক্তি বা সমাজিক জীবনে কতটুকু হস্তক্ষেপ করছে সে বিষয়টিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়ানো ঠেকাতে ব্যবস্থা নেয়া হবে-তথ্যমন্ত্রী 130

সোশ্যাল মিডিয়া যখন গুজব ছড়াবে, তখনই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে যে গুজব ছড়াচ্ছে, তা ব্যক্তি বা সমাজিক জীবনে কতটুকু হস্তক্ষেপ করছে সে বিষয়টিও বিবেচনায় আনা হবে। এজন্য ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন হয়েছে। কেউ যদি গুজব ছড়ায় এর মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়ার সুযোগ আছে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। শনিবার (২৯ জুন) বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত ‘তারুণ্যের ভাবনায় আওয়ামী লীগ’ শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে তিনি এ কথা জানান। সোশ্যাল মিডিয়ায় গুজব ছড়ানো নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা মতামত প্রকাশের দুয়ার অবারিত করে দিয়েছি। আগে মানুষ কোনো কিছু জানার জন্য পত্রিকা-টিভির শরণাপন্ন হতো। এখন মানুষ ফেসবুক ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে জানতে পারছে। আগে ৪০-৫০ লাখ মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করতো। এখন দেশে ৯ কোটি লোক ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। তবে গুজব বিশ্বব্যাপী সমস্যা। আমরা মানুষের অধিকার অবারিত থাকুক এটাই চাই। তবে একজনের অধিকার প্রয়োগের ক্ষেত্রে অন্যজনের অধিকারে কোনো হস্তক্ষেপ হচ্ছে কি-না, সে বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে।তিনি বলেন, সোশ্যাল মিডিয়া যখন গুজব ছড়াবে, তখনই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তবে যে গুজব ছড়াচ্ছে, তা ব্যক্তি বা সমাজিক জীবনে কতটুকু হস্তক্ষেপ করছে সে বিষয়টিও বিবেচনায় আনা হবে। এজন্য ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন হয়েছে। কেউ যদি গুজব ছড়ায় এর মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়ার সুযোগ আছে।
মাদকের বিষয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে সরকার জিরো টলারেন্স নীতিতে কাজ করছে। দলের মধ্যে যদি কোনো নেতা মাদকে জড়িত থাকেন, তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
ছাত্র রাজনীতি নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রাজনীতি হলো একটি ব্রত। তবে সাম্প্রতিক সময়ে কিছু সামাজিক অবক্ষয়ের কারণে ছাত্র রাজনীতিতেও অবক্ষয় হয়েছে। এজন্য একজন ছাত্রকে পড়াশোনা করে রাজনীতিতে আসতে হবে। আর রাজনীতি করতে হলে পরিবারের উর্ধ্বে এসে রাষ্ট্রকে পরিবার ভাবতে পারলে প্রকৃত রাজনৈতিক নেতা তৈরি হবে। তথ্যমন্ত্রী বলেন, আগামী ৩০ জুন অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিবন্ধনের জন্য আবেদনের সময়সীমা শেষ হচ্ছে। ইতোমধ্যে আমাদের কাছে প্রায় ৮ হাজার আবেদন জমা পড়েছে। এর মধ্যে আগের ছিল ৩ হাজার, আর নতুন করে জমা পড়েছে ৫ হাজার। আরও আবেদন জমা পড়বে, তাই সময়সীমা এক সপ্তাহ বাড়ানোর চিন্তা করা হচ্ছে।
ড. হাছান মাহমুদ বলেন, অনলাইন নিবন্ধনের জন্য যে আবেদন পড়েছে সেখান থেকে যাচাই- বাছাই করে অনুমোদন দেওয়া হবে। আমরা শিগগির এ কাজটি সম্পন্ন করবো। এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এবং প্রচার ও প্রকাশনা কমিটির সভাপতি এইচ টি ইমাম, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল প্রমুখ।
তথ্য-প্রযুক্তি ডেস্ক,শনিবার,২৯ জুন,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY PopularITLimited