ডিএনসিসির ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য তিন হাজার ৫৭ কোটি ২৪ লাখ টাকার প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষণা করলেন ডিএনসিসি মেয়র

Spread the love

সিনিয়র রিপোর্টার,ঢাকা: ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য তিন হাজার ৫৭ কোটি ২৪ লাখ টাকার প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষণা করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের নগরপিতা বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটে রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে এক হাজার ১০৬ কোটি ৪০ লাখ টাকা। রাজস্ব ব্যয় ধরা হয়েছে ৫৫১ কোটি ৪০ লাখ টাকা, অন্যান্য ব্যয় ধরা হয়েছে ১২ কোটি টাকা ও উন্নয়ন ব্যয় দুই হাজার ৩৩৫ কোটি ৭৪ লাখ টাকা।এছাড়া মশক নিধন কার্যক্রমে এবছর ১৮২ শতাংশ ব্যয় বাড়িয়ে করা হয়েছে ৪৯ কোটি ৩০ লাখ টাকা।

বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর গুলশান নগর ভবনে এ বাজেট ঘোষণা করেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন মেয়র আতিকুল ইসলাম।

বাজেট পেশের সংবাদ সম্মেলন আতিকুল ইসলাম বলেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের জন্য এটি নবম বাজেট হলেও মেয়র হিসেবে আমার জন্য প্রথম বাজেট। আমাদের জাতীয় জীবনে এই অর্থবছর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ‘মুজিব বর্ষ’, ‘ভিশন ২০৪১’ এবং ‘টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি)’ সামনে রেখে ডিএনসিসির কর্মপরিকল্পনা সাজানো হয়েছে।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বলেন,‘মেয়র নির্বাচনের সময় আমি মশক নিয়ন্ত্রণ, টেকসই বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, জলাবদ্ধতা নিরসন, সেবাগুলো ডিজিটাল পদ্ধতিতে নিশ্চিত করা, রাস্তাঘাটের আধুনিকায়ন ও সৌন্দর্যবর্ধনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম। তাছাড়া আপনারা জানেন, নতুন ১৮টি ওয়ার্ড যুক্ত হওয়ায় ডিএনসিসির বর্তমান ওয়ার্ড সংখ্যা ৫৪টি। আয়তনও ৮২.৬২ বর্গ কিমি থেকে বেড়ে পেয়ে ১৯৬.২২৮ বর্গ কিমি হয়েছে। নতুন ওয়ার্ডগুলোর উন্নয়নেও আমরা কাজ করবো।’

সংবাদ সম্মেলনে মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন,তিন হাজার ৫৭ কোটি ২৪ লাখ টাকার প্রস্তাবিত বাজেট এ আয়ের বড় অংশের জন্য বাহ্যিক সাহায্যের ওপর নির্ভর করছে ডিএনসিসি। রাজস্ব খাত থেকে আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে এক হাজার ১০৬ কোটি ৪০ লাখ টাকা। এছাড়াও সরকারি থোক বরাদ্দ ১০০ কোটি টাকা, বিশেষ বরাদ্দ ৫০ কোটি টাকা এবং অন্যান্য খাত থেকে ৯ কোটি টাকা রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে বাজেটের সরকারি ও বৈদেশিক সাহায্যপুষ্ট প্রকল্প থেকে আয় ধরা হয়েছে এক হাজার ৫৬৪ কোটি ৬৪ লাক টাকা। যা আয়ের সব খাত থেকে বেশি এবং মোট বাজেটের ৬৩ দশমিক ৫ শতাংশ বেশি।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন মেয়র বলেন,রাজস্ব ব্যয়ে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৫৫১ কোটি ৪০ লাখ, উন্নোয়ন ব্যয় ৭৭১ কোটি ১০ লাখ টাকা এবং অন্যান্য খাতে ১২ কোটি টাকা। এছাড়াও বাহ্যিক সাহায্য থেকে যে অর্থ পাওয়া যাবে সেটিও ব্যয় করা হবে ২০১৯-২০ অর্থবছরে।

আতিকুল ইসলাম বলেন,উন্নয়ন ব্যয়ের মধ্যে সড়ক ও ট্রাফিক অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ ও উন্নয়ন খাতে ৩৬৩ কোটি টাকা, কবর স্থান বা শ্মশান ঘাটের সংস্কার ও উন্নোয়নে ৭ কোটি ২৫ লাখ, পার্ক ও খেলার মাঠে ৪ কোটি টাকা, ভৌত অবকাঠামো নির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণে ৭৬ কোটি ৮৫ লাখ টাকা এবং পরিবেশ উন্নয়নে ২৩ কোটি ৩৫ লাখ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। উন্নয়ন বাজেট খাতে সর্বমোট দুই হাজার ৩৩৫ কোটি ৭৪ লাখ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে যা মোট বাজেটের প্রায় ৭৬ শতাংশ।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের নগরপিতা বলেন, মশা নিয়ন্ত্রণে ৪৯ কোটি ৩০ লাখ, মশক নিয়ন্ত্রণ যন্ত্রপাতি ক্রয়ে ১০ কোটি এবং প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরিচর্যায় এক কোটি ৫০ লাখ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

এই সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সিইও আব্দুল হাই, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের জনসংযোগ বিভাগের হেড এ এস এম মামুন ও জনসংযোগ কর্মকর্তা আতিকুর রহমান ।
মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম,
ঢাকা,বৃহস্পতিবার, ০৫ সেপ্টম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» বাংলাদেশকে অনন্য উচ্চতায় নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা : উপমন্ত্রী

» পাকিস্তানের বিপক্ষে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৪১ রানে করে রিয়াদ বাহিনী

» চট্টগ্রামের মির্জাপোল বস্তিতে ভয়াবহ আগুন পুড়ে গেছে আড়াইশ ঘর

» বিএনপি জিতবে না জেনেই ইভিএম নিয়ে নানা ধরনের কথা বলছে-বায়দুল কাদের

» ঢাকা থেকে দুঃশাসন ও দুর্নীতি দূর করতে ধানের শীষে ভোট দেয়ার আহ্বান মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল

» গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

» মিয়ানমারের রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলা চলবে-আন্তর্জাতিক বিচার আদালত

» আধুনিক শক্তিশালী সশস্ত্র বাহিনী গড়তে সেনা নৌ ও বিমান বাহিনীকে একযোগে উন্নত করা হবে: প্রধানমন্ত্রী

» দুর্নীতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় ১৪তম অবস্থানে উঠেছে বাংলাদেশ-টিআইবি

» বসানো হলো পদ্মা সেতুর ২২তম স্প্যান,দৃশ্যমান হলো ৩ হাজার ৩০০ মিটার

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শনিবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ, ১২ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ডিএনসিসির ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য তিন হাজার ৫৭ কোটি ২৪ লাখ টাকার প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষণা করলেন ডিএনসিসি মেয়র

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

সিনিয়র রিপোর্টার,ঢাকা: ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য তিন হাজার ৫৭ কোটি ২৪ লাখ টাকার প্রস্তাবিত বাজেট ঘোষণা করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের নগরপিতা বলেন, প্রস্তাবিত বাজেটে রাজস্ব আয় ধরা হয়েছে এক হাজার ১০৬ কোটি ৪০ লাখ টাকা। রাজস্ব ব্যয় ধরা হয়েছে ৫৫১ কোটি ৪০ লাখ টাকা, অন্যান্য ব্যয় ধরা হয়েছে ১২ কোটি টাকা ও উন্নয়ন ব্যয় দুই হাজার ৩৩৫ কোটি ৭৪ লাখ টাকা।এছাড়া মশক নিধন কার্যক্রমে এবছর ১৮২ শতাংশ ব্যয় বাড়িয়ে করা হয়েছে ৪৯ কোটি ৩০ লাখ টাকা।

বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর গুলশান নগর ভবনে এ বাজেট ঘোষণা করেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন মেয়র আতিকুল ইসলাম।

বাজেট পেশের সংবাদ সম্মেলন আতিকুল ইসলাম বলেন, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের জন্য এটি নবম বাজেট হলেও মেয়র হিসেবে আমার জন্য প্রথম বাজেট। আমাদের জাতীয় জীবনে এই অর্থবছর অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ‘মুজিব বর্ষ’, ‘ভিশন ২০৪১’ এবং ‘টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি)’ সামনে রেখে ডিএনসিসির কর্মপরিকল্পনা সাজানো হয়েছে।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বলেন,‘মেয়র নির্বাচনের সময় আমি মশক নিয়ন্ত্রণ, টেকসই বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, জলাবদ্ধতা নিরসন, সেবাগুলো ডিজিটাল পদ্ধতিতে নিশ্চিত করা, রাস্তাঘাটের আধুনিকায়ন ও সৌন্দর্যবর্ধনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলাম। তাছাড়া আপনারা জানেন, নতুন ১৮টি ওয়ার্ড যুক্ত হওয়ায় ডিএনসিসির বর্তমান ওয়ার্ড সংখ্যা ৫৪টি। আয়তনও ৮২.৬২ বর্গ কিমি থেকে বেড়ে পেয়ে ১৯৬.২২৮ বর্গ কিমি হয়েছে। নতুন ওয়ার্ডগুলোর উন্নয়নেও আমরা কাজ করবো।’

সংবাদ সম্মেলনে মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন,তিন হাজার ৫৭ কোটি ২৪ লাখ টাকার প্রস্তাবিত বাজেট এ আয়ের বড় অংশের জন্য বাহ্যিক সাহায্যের ওপর নির্ভর করছে ডিএনসিসি। রাজস্ব খাত থেকে আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে এক হাজার ১০৬ কোটি ৪০ লাখ টাকা। এছাড়াও সরকারি থোক বরাদ্দ ১০০ কোটি টাকা, বিশেষ বরাদ্দ ৫০ কোটি টাকা এবং অন্যান্য খাত থেকে ৯ কোটি টাকা রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে বাজেটের সরকারি ও বৈদেশিক সাহায্যপুষ্ট প্রকল্প থেকে আয় ধরা হয়েছে এক হাজার ৫৬৪ কোটি ৬৪ লাক টাকা। যা আয়ের সব খাত থেকে বেশি এবং মোট বাজেটের ৬৩ দশমিক ৫ শতাংশ বেশি।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন মেয়র বলেন,রাজস্ব ব্যয়ে বরাদ্দ রাখা হয়েছে ৫৫১ কোটি ৪০ লাখ, উন্নোয়ন ব্যয় ৭৭১ কোটি ১০ লাখ টাকা এবং অন্যান্য খাতে ১২ কোটি টাকা। এছাড়াও বাহ্যিক সাহায্য থেকে যে অর্থ পাওয়া যাবে সেটিও ব্যয় করা হবে ২০১৯-২০ অর্থবছরে।

আতিকুল ইসলাম বলেন,উন্নয়ন ব্যয়ের মধ্যে সড়ক ও ট্রাফিক অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণ ও উন্নয়ন খাতে ৩৬৩ কোটি টাকা, কবর স্থান বা শ্মশান ঘাটের সংস্কার ও উন্নোয়নে ৭ কোটি ২৫ লাখ, পার্ক ও খেলার মাঠে ৪ কোটি টাকা, ভৌত অবকাঠামো নির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণে ৭৬ কোটি ৮৫ লাখ টাকা এবং পরিবেশ উন্নয়নে ২৩ কোটি ৩৫ লাখ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। উন্নয়ন বাজেট খাতে সর্বমোট দুই হাজার ৩৩৫ কোটি ৭৪ লাখ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে যা মোট বাজেটের প্রায় ৭৬ শতাংশ।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের নগরপিতা বলেন, মশা নিয়ন্ত্রণে ৪৯ কোটি ৩০ লাখ, মশক নিয়ন্ত্রণ যন্ত্রপাতি ক্রয়ে ১০ কোটি এবং প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরিচর্যায় এক কোটি ৫০ লাখ টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

এই সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সিইও আব্দুল হাই, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের জনসংযোগ বিভাগের হেড এ এস এম মামুন ও জনসংযোগ কর্মকর্তা আতিকুর রহমান ।
মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম,
ঢাকা,বৃহস্পতিবার, ০৫ সেপ্টম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com