দলীয় স্বার্থের কারণেই সরকার বিদ্যুৎ থেকে শুরু করে সব দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না

Spread the love

দলীয় স্বার্থের কারণেই সরকার বিদ্যুৎ থেকে শুরু করে সব দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।গত ১৩ বছরে জিনিসপত্রের দাম গড় হিসাবে দ্বিগুণেরও বেশি বেড়েছে। এসময়ে অনেক জিনিসের দাম বেড়ে তিনগুণ হয়েছে। সরকারের প্রতিশ্রুত ১০ টাকার চাল ৭০ টাকা। পেঁয়াজের কৃত্রিম সংকট তৈরি করে সরকারদলীয় ব্যবসায়ী গোষ্ঠী ভোক্তাদের পকেট থেকে শত শত কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টায় নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। ফখরুল বলেন, দলীয় স্বার্থের কারণেই সরকার বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যর্থ। তার সর্বশেষ প্রমাণ হলো পেঁয়াজ, লবণ ও চালসহ সব নিত্যপণ্যের দাম অসহনীয়ভাবে বেড়ে যাওয়া।

মির্জা ফখরুল বলেন, দ্রব্যমূল্য ও বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিএনপি এর আগে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে, ভবিষ্যতেও করবে। যেহেতু বিদ্যুৎ থেকে শুরু করে সব জিনিসপত্র মূল্য বৃদ্ধির ফলে শুধু বিএনপিই ক্ষতিগ্রস্ত হয় না, দেশের সব মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়, সেজন্য জনগণকেই এগিয়ে এসে এর প্রতিবাদ করতে হবে।
তিনি বলেন, সরকার একদিকে মুক্তবাজার অর্থনীতিতে বিশ্বাসী অন্যদিকে নিজস্ব দলীয় ব্যবসায়ীদের স্বার্থ রক্ষায় আগ্রহী। দলীয় ব্যবসায়ীদের দ্বারা গঠিত জোট ভাঙতে না পারলে টিসিবিকে শক্তিশালী করতে না পারলে, দলীয় লোকদের দ্বারা পরিবহনে চাঁদাবাজি বন্ধ করতে না পারলে, মধ্যস্বর্তভোগের ব্যবস্থা বন্ধ করতে না পারলে দ্রব্যমূল্যের নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে না বলে জানান মির্জা ফখরুল।
তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্যসহ জনজীবনের সব সহনীয় মাত্রায় রাখতে একটি জবাবদিহিমূলক সরকার দরকার। দেশের স্বাধীনতা স্বার্বভৌমত্ব ও গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা রক্ষায় অবিলম্বে তথাকথিত নির্বাচন বাতিল করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে সরকারকে বাধ্য করতে হবে। অন্যথায় দ্রব্যমূল্য ভিত্তিক মানুষের দৈনন্দিন জীবনের সমস্যাই নয়, জাতির গোটা ভবিষ্যৎ জীবন আরও অসহনীয় ও দুর্বিষহ হয়ে উঠবে।
ঢাকা ,মঙ্গলবার, ০৩ ডিসেম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» বরিশালের কীর্তনখোলা নদীতে যাত্রীবাহী লঞ্চ ও মালবাহী কার্গোর মুখোমুখি সংঘর্ষ কার্গোডুবি

» ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সংগ্রাম সম্পাদক আবুল আসাদের ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।

» মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামের প্রেস বক্সে বিসিবির দেয়া খাবার খেয়ে অসুস্থ হয়েছেন প্রায় ২০ সাংবাদিক।

» বুদ্ধিজীবীদের নাম কেউ মুছে ফেলতে পারেনি, তেমনি মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসও কেউ মুছে ফেলতে পারবে না

» ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়েরকৃত এক মামলায় দৈনিক সংগ্রাম পত্রিকার সম্পাদক গ্রেফতার

» শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

» কেরানীগঞ্জের প্লাস্টিক কারখানার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৪

» অগণতান্ত্রিক সরকার মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধ্বংস করেছে-মির্জা ফখরুল

» যুদ্ধাপরাধী কাদের মোল্লাকে শহীদ আখ্যা দিয়ে ধৃষ্টতা দেখিয়েছে সংগ্রাম পত্রিকা

» বুদ্ধিজীবী হত্যাকারীদের দেশে ফিরিয়ে আনার কূটনৈতিক তৎপরতা চলছে-ওবায়দুল কাদের

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৩০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

দলীয় স্বার্থের কারণেই সরকার বিদ্যুৎ থেকে শুরু করে সব দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

দলীয় স্বার্থের কারণেই সরকার বিদ্যুৎ থেকে শুরু করে সব দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।গত ১৩ বছরে জিনিসপত্রের দাম গড় হিসাবে দ্বিগুণেরও বেশি বেড়েছে। এসময়ে অনেক জিনিসের দাম বেড়ে তিনগুণ হয়েছে। সরকারের প্রতিশ্রুত ১০ টাকার চাল ৭০ টাকা। পেঁয়াজের কৃত্রিম সংকট তৈরি করে সরকারদলীয় ব্যবসায়ী গোষ্ঠী ভোক্তাদের পকেট থেকে শত শত কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। মঙ্গলবার (৩ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টায় নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। ফখরুল বলেন, দলীয় স্বার্থের কারণেই সরকার বাজার নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যর্থ। তার সর্বশেষ প্রমাণ হলো পেঁয়াজ, লবণ ও চালসহ সব নিত্যপণ্যের দাম অসহনীয়ভাবে বেড়ে যাওয়া।

মির্জা ফখরুল বলেন, দ্রব্যমূল্য ও বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে বিএনপি এর আগে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে, ভবিষ্যতেও করবে। যেহেতু বিদ্যুৎ থেকে শুরু করে সব জিনিসপত্র মূল্য বৃদ্ধির ফলে শুধু বিএনপিই ক্ষতিগ্রস্ত হয় না, দেশের সব মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়, সেজন্য জনগণকেই এগিয়ে এসে এর প্রতিবাদ করতে হবে।
তিনি বলেন, সরকার একদিকে মুক্তবাজার অর্থনীতিতে বিশ্বাসী অন্যদিকে নিজস্ব দলীয় ব্যবসায়ীদের স্বার্থ রক্ষায় আগ্রহী। দলীয় ব্যবসায়ীদের দ্বারা গঠিত জোট ভাঙতে না পারলে টিসিবিকে শক্তিশালী করতে না পারলে, দলীয় লোকদের দ্বারা পরিবহনে চাঁদাবাজি বন্ধ করতে না পারলে, মধ্যস্বর্তভোগের ব্যবস্থা বন্ধ করতে না পারলে দ্রব্যমূল্যের নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে না বলে জানান মির্জা ফখরুল।
তিনি বলেন, দ্রব্যমূল্যসহ জনজীবনের সব সহনীয় মাত্রায় রাখতে একটি জবাবদিহিমূলক সরকার দরকার। দেশের স্বাধীনতা স্বার্বভৌমত্ব ও গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা রক্ষায় অবিলম্বে তথাকথিত নির্বাচন বাতিল করে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে সরকারকে বাধ্য করতে হবে। অন্যথায় দ্রব্যমূল্য ভিত্তিক মানুষের দৈনন্দিন জীবনের সমস্যাই নয়, জাতির গোটা ভবিষ্যৎ জীবন আরও অসহনীয় ও দুর্বিষহ হয়ে উঠবে।
ঢাকা ,মঙ্গলবার, ০৩ ডিসেম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com