পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ১২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পরিক্ষামুলক যাচ্ছে জাতীয় গ্রীডে

Spread the love

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,১৩ জানুয়ারি।। পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় ১৩২০ মেগাওয়াট পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের উৎপাদিত ১২০ মোওয়াট বিদ্যুৎ প্রথমবারের মত পরীক্ষামূলকভাবে জাতীয় গ্রীডে যুক্ত হয়েছে। সোমবার সকাল এগারটায় পায়রা-গোপালগঞ্জের এ সঞ্চালন লাইন সফলভাবে চালু করা হয়।
পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী রেজোয়ান ইকবাল খান সাংবাদিকদের জানান, প্রায় ১৩৬ কিলোমিটার দীর্ঘ ডবল সার্কিটের হাই ভোল্টেজ লাইনটি পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে পটুয়াখালী সদর হয়ে গোপালগঞ্জ জেলার মকসুদপুর উপজেলায় নব নির্মিত ৪০০/২৩০ কেভি গ্রিড উপকেন্দ্রে যুক্ত হয়েছে। আগামী মাসে বানিজ্যকভাবে ৬৬০
মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পরীক্ষামূককভাবে জাতীয় গ্রীডে দিতে সক্ষম হবে পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র। বিসিপিসিএলের কর্মকর্তাদের সূত্রে জানা যায়, পাওয়ার সিস্টেম মাস্টার
প্ল্যান-২০১০ এর আওতায় ২০৩০ সালের মধ্যে মোট উৎপাদিত বিদ্যুতের ৫০ ভাগ কয়লা ভিত্তিক উৎপাদন করার পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। এরই অংশ হিসাবে পরিচ্ছন্ন কয়লা প্রযুক্তি সম্পন্ন পরিবেশ বান্ধব (আলট্রা সুপার ক্রিটিক্যাল টেকনোলজি ব্যবহারের মাধ্যমে) দেশের সবচেয়ে বড় কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মিত হচ্ছে পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার ধানখালীতে।
বাংলাদেশ এবং চীনের যৌথ উদ্যোগে বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি নির্মাণের লক্ষ্যে ২০১৫ সালের ২১ মার্চ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। বিদ্যুৎ বিভাগের অধীন নর্থ-ওয়েস্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি এবং চায়না ন্যাশনাল মেশিনারি ইমপোর্ট এন্ড এক্সপোর্ট কর্পোরেশন দুই বিলিয়ন ডলারের বিদ্যুৎ প্রকল্পটিতে বাংলদেশ এবং চীন যৌথভাবে বিনিয়োগ করছে। এ বছরের মে মাসে প্রথম ইউনিট ৬৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের পরিকল্পনা করে বিসিপিসিএল। এরই ধারাবাহিকতায় ১৩২০ মেগাওয়াট বিদ্যুতের প্রথম ইউনিট অর্থাৎ ৬৬০ মেগাওয়াটের ১২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সোমবার সকালে পরীক্ষামূলকভাবে জাতীয় গ্রীডে যুক্ত হয়েছে। প্রথম ইউনিটের বাকি ৫৪০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ ফেব্রƒয়ারীর প্রথম সপ্তাহে উৎপাদনে যাবে। আর দ্বিতীয় ইউনিট ৬৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ এবছরের মে মাসের মধ্যে উৎপাদনে যাবে। এমন লক্ষ্যমাত্রা নিয়েই দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে দেশের
বৃহৎ পরিবেশ বান্ধব পরিচ্ছন্ন পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের র্নিমান কাজ।
পটুয়াখালীতে সরকারের বিদ্যুৎ হাব উৎপাদনের পরিকল্পনা সফল হলে দেশের ক্রমবর্ধমান বিদ্যুতের চাহিদা পুরনে এটি হবে একটি মাইল ফলক। এমন অভিমত সংশ্লিস্টদের।
উত্তম কুমার হাওলাদার,কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,
পটুয়াখালী,সোমবার,১৩ জানুয়ারি,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন বলিউড খ্যাতনামা অভিনয়শিল্পী শাবানা আজমি

» ১ ফেব্রুয়ারির পরিবর্তে ৩ ফেব্রুয়ারি শুরু হবে এসএসসি পরীক্ষা: শিক্ষা মন্ত্রণালয়

» ঢাকার দুই সিটির ভোটের তারিখ পরিবর্তন ৩০ জানুয়ারির পরিবর্তে ১ ফেব্রুয়ারি

» রাজু ভাস্কর্যের সামনে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙলেন শিক্ষার্থীরা

» নির্বাচনে পরাজয় নিশ্চিত জেনেই ইভিএমের বিরুদ্ধে বিএনপি নেতারা বিষদগার করছেন

» যশোরে প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বৈদ্যুতিক খুঁটির সঙ্গে ধাক্কা লেগে একই পরিবারের তিনজন নিহত

» রাজু ভাস্কর্যের সামনে তৃতীয় দিনের মতো আমরণ অনশন করছেন শিক্ষার্থীরা

» গোপালগঞ্জে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে বাসের দুই নারী যাত্রী নিহত

» বগুড়া-১ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) আব্দুল মান্নান ইন্তেকাল করেছেন

» খুলনা টাইগার্সকে ২১ রানে হারিয়ে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের শিরোপা জিতল রাজশাহী রয়্যালস

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ রবিবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ, ৬ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ১২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পরিক্ষামুলক যাচ্ছে জাতীয় গ্রীডে

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,১৩ জানুয়ারি।। পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় ১৩২০ মেগাওয়াট পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের উৎপাদিত ১২০ মোওয়াট বিদ্যুৎ প্রথমবারের মত পরীক্ষামূলকভাবে জাতীয় গ্রীডে যুক্ত হয়েছে। সোমবার সকাল এগারটায় পায়রা-গোপালগঞ্জের এ সঞ্চালন লাইন সফলভাবে চালু করা হয়।
পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী রেজোয়ান ইকবাল খান সাংবাদিকদের জানান, প্রায় ১৩৬ কিলোমিটার দীর্ঘ ডবল সার্কিটের হাই ভোল্টেজ লাইনটি পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে পটুয়াখালী সদর হয়ে গোপালগঞ্জ জেলার মকসুদপুর উপজেলায় নব নির্মিত ৪০০/২৩০ কেভি গ্রিড উপকেন্দ্রে যুক্ত হয়েছে। আগামী মাসে বানিজ্যকভাবে ৬৬০
মেগাওয়াট বিদ্যুৎ পরীক্ষামূককভাবে জাতীয় গ্রীডে দিতে সক্ষম হবে পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র। বিসিপিসিএলের কর্মকর্তাদের সূত্রে জানা যায়, পাওয়ার সিস্টেম মাস্টার
প্ল্যান-২০১০ এর আওতায় ২০৩০ সালের মধ্যে মোট উৎপাদিত বিদ্যুতের ৫০ ভাগ কয়লা ভিত্তিক উৎপাদন করার পরিকল্পনা নিয়েছে সরকার। এরই অংশ হিসাবে পরিচ্ছন্ন কয়লা প্রযুক্তি সম্পন্ন পরিবেশ বান্ধব (আলট্রা সুপার ক্রিটিক্যাল টেকনোলজি ব্যবহারের মাধ্যমে) দেশের সবচেয়ে বড় কয়লা ভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মিত হচ্ছে পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার ধানখালীতে।
বাংলাদেশ এবং চীনের যৌথ উদ্যোগে বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি নির্মাণের লক্ষ্যে ২০১৫ সালের ২১ মার্চ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। বিদ্যুৎ বিভাগের অধীন নর্থ-ওয়েস্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি এবং চায়না ন্যাশনাল মেশিনারি ইমপোর্ট এন্ড এক্সপোর্ট কর্পোরেশন দুই বিলিয়ন ডলারের বিদ্যুৎ প্রকল্পটিতে বাংলদেশ এবং চীন যৌথভাবে বিনিয়োগ করছে। এ বছরের মে মাসে প্রথম ইউনিট ৬৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনের পরিকল্পনা করে বিসিপিসিএল। এরই ধারাবাহিকতায় ১৩২০ মেগাওয়াট বিদ্যুতের প্রথম ইউনিট অর্থাৎ ৬৬০ মেগাওয়াটের ১২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সোমবার সকালে পরীক্ষামূলকভাবে জাতীয় গ্রীডে যুক্ত হয়েছে। প্রথম ইউনিটের বাকি ৫৪০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ ফেব্রƒয়ারীর প্রথম সপ্তাহে উৎপাদনে যাবে। আর দ্বিতীয় ইউনিট ৬৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ এবছরের মে মাসের মধ্যে উৎপাদনে যাবে। এমন লক্ষ্যমাত্রা নিয়েই দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে দেশের
বৃহৎ পরিবেশ বান্ধব পরিচ্ছন্ন পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের র্নিমান কাজ।
পটুয়াখালীতে সরকারের বিদ্যুৎ হাব উৎপাদনের পরিকল্পনা সফল হলে দেশের ক্রমবর্ধমান বিদ্যুতের চাহিদা পুরনে এটি হবে একটি মাইল ফলক। এমন অভিমত সংশ্লিস্টদের।
উত্তম কুমার হাওলাদার,কলাপাড়া(পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,
পটুয়াখালী,সোমবার,১৩ জানুয়ারি,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com