আধুনিক শক্তিশালী সশস্ত্র বাহিনী গড়তে সেনা নৌ ও বিমান বাহিনীকে একযোগে উন্নত করা হবে: প্রধানমন্ত্রী

Spread the love

শক্তিশালী সশস্ত্র বাহিনী গড়তে সেনা নৌ ও বিমান বাহিনীকে একযোগে আধুনিক ও শক্তিশালী করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) দুপুরে নোয়াখালীর স্বর্ণদ্বীপে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শীতকালীন প্রশিক্ষণ পরিদর্শন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে মহড়ায় বীরত্ব প্রদর্শনের মাধ্যমে কল্পিত শত্রুর দ্বারা দখল হয়ে যাওয়া স্বর্ণদ্বীপ উদ্ধারে সফল অভিযান চালায় সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর সদস্যরা।মহড়ায় দেখানো হয়, স্বর্ণদ্বীপ দখল করেছে শত্রুপক্ষ। তাই এ আক্রমণ। ৬৬ পদাতিক ডিভিশনের নেতৃত্ব শুরু হওয়া এ অভিযানের শুরুতেই পর্যবেক্ষণ ও শত্রুদের দখলকৃত এলাকা রেকি করে সহায়তা করে বিমানবাহিনীর এভিয়েশন গ্রুপ। আচমকা শত্রু এলাকায় ঢুকে পড়ে প্যারাট্রুপাররা। একযোগে শুরু হয় আর্টিলারি কামান ও স্বয়ংক্রিয় গ্রেনেড লঞ্চার হামলা। সক্রিয় হয়ে ওঠে অস্ত্রের অবস্থান নির্দেশক রাডার ও ট্যাংক বিধ্বংসী অস্ত্র।

পাল্টা আক্রমণে যায় শত্রুপক্ষ। কিন্তু সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর সম্মিলিত আক্রমণে এক পর্যায়ে পর্যুদস্ত হয় তারা। স্বাধীন ভূখণ্ডের দখলকৃত অংশে আবারও পতপত করে ওড়ে স্বাধীন সার্বভৌম পতাকা।

দর্শক সাড়িতে বসে সামরিক বাহিনীর নৈপুণ্য দেখেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, সব বাহিনীর আধুনিকায়নে বদ্ধপরিকর সরকার।শেখ হাসিনা বলেন, সশস্ত্র বাহিনীকে আধুনিক প্রযুক্তিজ্ঞান সম্পন্ন করতে আমরা গড়ে তুলার জন্য আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। সবচেয়ে বড় কথা প্রশিক্ষণ, যেকোনো ফোর্সের জন্য দরকার প্রশিক্ষণ। আমরা চাই বাংলাদেশ আরো এগিয়ে যাক। আজকে আমরা অর্থনৈতিকভাবে যথেষ্ট স্বাবলম্বিতা অর্জন করেছি। আমাদের বাজেট প্রায় সাত গুণ বৃদ্ধি করেছি। আমার উন্নয়ন প্রকল্পের ৯০ ভাগ নিজস্ব অর্থ দিয়ে তেরি করি। কারো কাছে হাত পাততে হয়না। আমরা যুদ্ধ করে বিজয় অর্জন করেছি। বিজয়ী জাতি কারো কাছে হাত পাতে না। আমরা নিজের পায়ে দাঁড়াবো।

এবারের মহড়ার নাম দেয়া হয়েছিল অপারেশন বিজয় গৌরব। প্রতীকী এ অভিযানে অংশ নেয় ৫৮ কর্মকর্তাসহ সামরিক বাহিনীর ১৪০০ সদস্য।স্বর্ণদ্বীপের প্রশিক্ষণ এলাকার সুপরিকল্পিত ব্যবহার দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী। সেই সাথে স্বর্ণদ্বীপের প্রশিক্ষণ সুবিধা সেনাবাহিনীর দক্ষতা বৃদ্ধিতে তাৎপর্য ভূমিকা রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেন।
ঢাকা,বৃহস্পতিবার,২৩ জানুয়ারি,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» প্রায় তিন ঘন্টার চেষ্টায় গাজীপুরের টঙ্গীতে তুলার গুদামের আগুন নিয়ন্ত্রণে

» বৈশ্বিক সন্ত্রাসবাদ সূচকে ৬ ধাপ অগ্রগতি হয়ে বাংলাদেশ এখন ৩১ নম্বরে

» টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কাভার্ডভ্যান- হিউম্যানহলার সংঘর্ষে ৪ নারী শ্রমিক নিহত

» গাজীপুরের টঙ্গীর মিল গেট এলাকায় তুলার গুদামে আগুন,নিয়ন্ত্রণে ৬ ইউনিট

» মাতৃভাষার অপমান কোনোভাবে সহ্য করা যায় না-প্রধানমন্ত্রী

» বিটিআরসিকে এক হাজার কোটি টাকা দিতে রাজি হয়েছে গ্রামীণফোন

» এসই ফাউন্ডেশন ইউকের এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

» প্রয়োজনিয়তার তাগিদে গ্রামগঞ্জের প্রত্যেকটি ঘরে ঘরে ক্যারাতে তৈরী হোক …চিত্র নায়ক রুবেল

» নিখোঁজ জেলের লাশ উদ্ধার

» দুই লাখ মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল পুড়িয়ে ধ্বংস

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ, ৯ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

আধুনিক শক্তিশালী সশস্ত্র বাহিনী গড়তে সেনা নৌ ও বিমান বাহিনীকে একযোগে উন্নত করা হবে: প্রধানমন্ত্রী

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

শক্তিশালী সশস্ত্র বাহিনী গড়তে সেনা নৌ ও বিমান বাহিনীকে একযোগে আধুনিক ও শক্তিশালী করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃহস্পতিবার (২৩ জানুয়ারি) দুপুরে নোয়াখালীর স্বর্ণদ্বীপে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শীতকালীন প্রশিক্ষণ পরিদর্শন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে মহড়ায় বীরত্ব প্রদর্শনের মাধ্যমে কল্পিত শত্রুর দ্বারা দখল হয়ে যাওয়া স্বর্ণদ্বীপ উদ্ধারে সফল অভিযান চালায় সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর সদস্যরা।মহড়ায় দেখানো হয়, স্বর্ণদ্বীপ দখল করেছে শত্রুপক্ষ। তাই এ আক্রমণ। ৬৬ পদাতিক ডিভিশনের নেতৃত্ব শুরু হওয়া এ অভিযানের শুরুতেই পর্যবেক্ষণ ও শত্রুদের দখলকৃত এলাকা রেকি করে সহায়তা করে বিমানবাহিনীর এভিয়েশন গ্রুপ। আচমকা শত্রু এলাকায় ঢুকে পড়ে প্যারাট্রুপাররা। একযোগে শুরু হয় আর্টিলারি কামান ও স্বয়ংক্রিয় গ্রেনেড লঞ্চার হামলা। সক্রিয় হয়ে ওঠে অস্ত্রের অবস্থান নির্দেশক রাডার ও ট্যাংক বিধ্বংসী অস্ত্র।

পাল্টা আক্রমণে যায় শত্রুপক্ষ। কিন্তু সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর সম্মিলিত আক্রমণে এক পর্যায়ে পর্যুদস্ত হয় তারা। স্বাধীন ভূখণ্ডের দখলকৃত অংশে আবারও পতপত করে ওড়ে স্বাধীন সার্বভৌম পতাকা।

দর্শক সাড়িতে বসে সামরিক বাহিনীর নৈপুণ্য দেখেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, সব বাহিনীর আধুনিকায়নে বদ্ধপরিকর সরকার।শেখ হাসিনা বলেন, সশস্ত্র বাহিনীকে আধুনিক প্রযুক্তিজ্ঞান সম্পন্ন করতে আমরা গড়ে তুলার জন্য আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। সবচেয়ে বড় কথা প্রশিক্ষণ, যেকোনো ফোর্সের জন্য দরকার প্রশিক্ষণ। আমরা চাই বাংলাদেশ আরো এগিয়ে যাক। আজকে আমরা অর্থনৈতিকভাবে যথেষ্ট স্বাবলম্বিতা অর্জন করেছি। আমাদের বাজেট প্রায় সাত গুণ বৃদ্ধি করেছি। আমার উন্নয়ন প্রকল্পের ৯০ ভাগ নিজস্ব অর্থ দিয়ে তেরি করি। কারো কাছে হাত পাততে হয়না। আমরা যুদ্ধ করে বিজয় অর্জন করেছি। বিজয়ী জাতি কারো কাছে হাত পাতে না। আমরা নিজের পায়ে দাঁড়াবো।

এবারের মহড়ার নাম দেয়া হয়েছিল অপারেশন বিজয় গৌরব। প্রতীকী এ অভিযানে অংশ নেয় ৫৮ কর্মকর্তাসহ সামরিক বাহিনীর ১৪০০ সদস্য।স্বর্ণদ্বীপের প্রশিক্ষণ এলাকার সুপরিকল্পিত ব্যবহার দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন প্রধানমন্ত্রী। সেই সাথে স্বর্ণদ্বীপের প্রশিক্ষণ সুবিধা সেনাবাহিনীর দক্ষতা বৃদ্ধিতে তাৎপর্য ভূমিকা রাখবে বলে আশা প্রকাশ করেন।
ঢাকা,বৃহস্পতিবার,২৩ জানুয়ারি,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com