গাভী পালন করে ভাগ্য বদলে গেছে গৃহবধূ ফাতেমার

Spread the love

গাভী পালন করে ভাগ্য বদলে গেছে পটুয়াখালীর কলাপাড়ার গৃহবধূ ফাতেমা বেগমের। উপজেলার টিয়াখালী ইউনিয়নের বাদুরতলী গ্রামের মতিউর রহমানের এক সময় সামান্য আয়ে সংসার চালাতে কষ্ট হতো। ছেলে-মেয়ে নিয়ে কখনো একবেলা কিংবা দু’বেলা আবার কোনদিন উপোষ থাকতে হতো তাদের। প্রতিবেশী ও স্বামীর পরামর্শে বে-সরকারি উন্নয়ন সংস্থা বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি (বিডিএস) এর কলাপাড়া শাখার অধিনে
পরিচালিত,পায়রা মহিলা সমিতিতে তিনি ভর্তি হয়ে ঋণের টাকা নিয়ে শুরু করেন গাভী পালন। আর ক্রমশই বদলে যেতে থাকে তার ভাগ্যের চাকা। সে আজ গাভীর খামার করে হয়েছে স্ববলম্বী আর তার সংসারে এনে দিয়েছে স্বচ্ছলতা। তার খামার দেখে আশ-পাশের গ্রামের অনেকেই গাভীপালন শুরু করেছেন।
বিডিএস অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বাদুরতলী গ্রামের ফাতেমা বেগম প্রথম সহজ শর্তে ২০ হাজার টাকা ঋণগ্রহন করে ও নিজস্ব মূলধনে উন্নত জাতের একটি গাভী ক্রয় করেন। গাভীটি দৈনিক ১৫-২০ লিটার দুধ দেয়। যা তিনি স্থানীয় বাজারে বিক্রয় করেন। পরবর্তিতে সে ওই সমিতি দিয়ে ৩০ হাজার টাকা ঋণ গ্রহন করেন। আর দুধ বিক্রি টাকা দিয়ে আর একটি গাভী ক্রয় করেন। ঋনের টাকা পরিশোধ করে ফাতেমা বেগম আরো ৫০ হাজার টাকা ঋন তুলে গাভীর রাখার জন্য পাকা গোয়ালঘর তৈরি করেন।
বর্তমানে তার খামারে সব মিলিয়ে ৮টি গরু রয়েছে। প্রতিদিন সে ২৫-৩০ লিটার দুধ বিক্রি করেছে। ফাতেমা বেগম জানান, কিছুদিন আগেও স্বামীর সামান্য আয়ে সংসার চালাতে কষ্ট হত। এখন তিনি এক মেয়ে এক ছেলে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলার স্বপ্ন দেখছেন। ভবিষ্যতে একটি ডেইরি ফার্ম করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।
ফাতেমার স্বামী মতিউর রহমান জানান, তার স্ত্রীর নিরলস পরিশ্রমের কারনে এ গাভীর খামারটি তৈরী করেছে। সেও খামারে কাজ করছে। এখন আমাদের কষ্ট নেই।
বে-সরকারি উন্নয়ন সংস্থা বিডিএস কলাপাড়া শাখা ব্যাবস্থাপক মো.মিজানুর রহমান জানান, কঠোর পরিশ্রম, নিষ্ঠা ও একাগ্রতা ফাতেমা বেগম পূর্বের অবস্থান কাটিয়ে আজকের এই পর্যায় এসেছেন।
উত্তম কুমার হাওলাদার কলাপাড়া (পটুয়াখালী)প্রতিনিধি
পটুয়াখালী,বৃহস্পতিবার,১৫ মার্চ , এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» ‘আইনসভায় বঙ্গবন্ধু’ গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

» কুয়াকাটায় আটটি খাবার হোটেল মালিককে অর্থদন্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত

» এক মাসের মধ্যে ৭ মার্চকে ঐতিহাসিক জাতীয় দিবস ঘোষণা করতে হাইকোর্টের নির্দেশ

» মিশরের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট হোসনি মোবারক মারা গেছেন

» জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে ১০৬ রানে বাংলাদেশের জয়

» বিএনপি ক্ষমতায় গেলে পিলখানা হত্যাকাণ্ডের নিরপেক্ষ তদন্ত করে পুনঃবিচারের উদ্যোগ নেবে

» সকাল থেকেই ঢাকার আকাশ মেঘলা,কিছু এলাকায় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি

» রাজধানীর পুরান ঢাকায় এনামুল-রূপনের বাড়ি যেন টাকা-সোনার ভাণ্ডার!

» পিলখানা ট্র্যাজেডির ১১ বছর আজ

» পাপিয়া ও তার স্বামী মো. মফিজুর রহমান ওরফে সুমন চৌধুরীর ১৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ, ১৩ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

গাভী পালন করে ভাগ্য বদলে গেছে গৃহবধূ ফাতেমার

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

গাভী পালন করে ভাগ্য বদলে গেছে পটুয়াখালীর কলাপাড়ার গৃহবধূ ফাতেমা বেগমের। উপজেলার টিয়াখালী ইউনিয়নের বাদুরতলী গ্রামের মতিউর রহমানের এক সময় সামান্য আয়ে সংসার চালাতে কষ্ট হতো। ছেলে-মেয়ে নিয়ে কখনো একবেলা কিংবা দু’বেলা আবার কোনদিন উপোষ থাকতে হতো তাদের। প্রতিবেশী ও স্বামীর পরামর্শে বে-সরকারি উন্নয়ন সংস্থা বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি (বিডিএস) এর কলাপাড়া শাখার অধিনে
পরিচালিত,পায়রা মহিলা সমিতিতে তিনি ভর্তি হয়ে ঋণের টাকা নিয়ে শুরু করেন গাভী পালন। আর ক্রমশই বদলে যেতে থাকে তার ভাগ্যের চাকা। সে আজ গাভীর খামার করে হয়েছে স্ববলম্বী আর তার সংসারে এনে দিয়েছে স্বচ্ছলতা। তার খামার দেখে আশ-পাশের গ্রামের অনেকেই গাভীপালন শুরু করেছেন।
বিডিএস অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বাদুরতলী গ্রামের ফাতেমা বেগম প্রথম সহজ শর্তে ২০ হাজার টাকা ঋণগ্রহন করে ও নিজস্ব মূলধনে উন্নত জাতের একটি গাভী ক্রয় করেন। গাভীটি দৈনিক ১৫-২০ লিটার দুধ দেয়। যা তিনি স্থানীয় বাজারে বিক্রয় করেন। পরবর্তিতে সে ওই সমিতি দিয়ে ৩০ হাজার টাকা ঋণ গ্রহন করেন। আর দুধ বিক্রি টাকা দিয়ে আর একটি গাভী ক্রয় করেন। ঋনের টাকা পরিশোধ করে ফাতেমা বেগম আরো ৫০ হাজার টাকা ঋন তুলে গাভীর রাখার জন্য পাকা গোয়ালঘর তৈরি করেন।
বর্তমানে তার খামারে সব মিলিয়ে ৮টি গরু রয়েছে। প্রতিদিন সে ২৫-৩০ লিটার দুধ বিক্রি করেছে। ফাতেমা বেগম জানান, কিছুদিন আগেও স্বামীর সামান্য আয়ে সংসার চালাতে কষ্ট হত। এখন তিনি এক মেয়ে এক ছেলে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলার স্বপ্ন দেখছেন। ভবিষ্যতে একটি ডেইরি ফার্ম করার পরিকল্পনা রয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।
ফাতেমার স্বামী মতিউর রহমান জানান, তার স্ত্রীর নিরলস পরিশ্রমের কারনে এ গাভীর খামারটি তৈরী করেছে। সেও খামারে কাজ করছে। এখন আমাদের কষ্ট নেই।
বে-সরকারি উন্নয়ন সংস্থা বিডিএস কলাপাড়া শাখা ব্যাবস্থাপক মো.মিজানুর রহমান জানান, কঠোর পরিশ্রম, নিষ্ঠা ও একাগ্রতা ফাতেমা বেগম পূর্বের অবস্থান কাটিয়ে আজকের এই পর্যায় এসেছেন।
উত্তম কুমার হাওলাদার কলাপাড়া (পটুয়াখালী)প্রতিনিধি
পটুয়াখালী,বৃহস্পতিবার,১৫ মার্চ , এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com