কুড়ানো মাছের বৈকালিন হাট কুয়াকাটায়

Spread the love

মহাসড়কের মহিপুর শেখ রাসেল সেতুর নিচে কুড়ানো মাছের বৈকালিন হাট বসেছে। সাগর থেকে মৎস্য আড়ৎ ঘাটে মাছ বোঝাই করে ট্রলার আসলেই ছোট ছোট শিশু সন্তানদেন অর্ধশত অভাবী মায়েদের মাছ কুড়ানো জন্য হুরাহুরি পরে যায়।

উপজেলার মৎস্যবন্দর আলীপুর ও মহিপুরের আড়ৎ ঘাটে এ অবস্থা চলে প্রতিদিন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত। কুড়ানো ওই মাছ প্রতিদিন শেখ রাসেল সেতুর নিচে বৈকালিন বাজারে বিক্রি করছে। ক্রেতারাও অপেক্ষায় থাকেন কখন ওই বাজারে মাছ আসবে। অনেকটা সস্তায় পায় বলে স্বল্প আয়ের মানুষরা এ মাছ ক্রয় করতে বৈকালিন এ মাছের ভীড় জমায়।স্বামীহারা আয়শা বেগম ছোট একটি সন্তান কোলে নিয়ে অসহায়ের মত সাগর থেকে মাছ বোঝায় করে ট্রলার আসার পরপরই আড়ৎ ঘাটে গিয়ে জেলেদের কাছে মাছ ভিক্ষা চায়। এসময় জেলেদের কাছে কাকুতি করে
বলেন,“বাবারে ভাইরে একটা মাছ দ্যান। স্বামী গ্যাঙ্গে মাছ ধরতে গিয়া মারা গেছে। পোলাপাইন লইয়্যা কি খামু”। কথা হয় কুড়ানো মাছে জীবন জীবিকায় যুক্ত মনোয়ারা, খাদিজা ও মমতাজের সাথে। তারা প্রত্যেকে বলেন, সাগরে মাছ ধরতে গিয়া স্বামী মারা গেছে। সংসার চলে ভিক্ষায় পাওয়া মাছ বিক্রি করে।
মধ্যম বয়সী সাজেদা জানায়, স্বামী সাগরে মাছ ধরতে গিয়া তিন বছর আগে মারা গেছে। ছেলে মামুন ও প্রত্যেক দিন মাছ কুড়ায়। ওই মাছ বিক্রি করে দেড়-দ্ধুসঢ়;ই’শ টাকায় চাল ডাল কিনে বাড়ি ফিরে। এ আয় দিয়ে দুই সন্তানের লেখপাড়া ছাড়াও সাত জনের সংসার চালায়।

উপজেলা ট্রলার মাঝি সমবায় সমিতির সভাপতি জেলে নুরু মাঝি বলেন, ওরা আমাদেরই সন্তান। ওইসব মা ও শিশুদের কেউ না কেউ সমুদ্রে মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ বা মারা গেছে। সহায়তা করার জন্য সকল জেলেদের অনুরোধ তিনি জানান। উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো.কামরুল ইসলাম জানান, সাগরে নিখোঁজ ও নিহত জেলেদের পরিবারকে সরকার সহায়তা করে থাকে। ইতোমধ্যে এ উপজেলার পাঁচ জেলে পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা করে চেক প্রদান করা হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

উত্তম কুমার হাওলাদার,কলাপাড়া (পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,
পটুয়াখালী,শুক্রবার, ২০ জানুয়ারি, এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments
Download Nulled WordPress Themes
Download Nulled WordPress Themes
Download WordPress Themes Free
Download WordPress Themes
download udemy paid course for free

সর্বশেষ আপডেট



» ড্রিমলাইনার রাজহংসের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী

» আগামী ২২ সেপ্টেম্বর‌ থেকে ফুটপাতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান চালাবে ডিএনসিসি

» সাগরে ভাসছে প্রসাধনী ও তরল পদার্থ ভর্তি ব্যারেল বঙ্গোপসাগরে ডুবে যাওয়া জাহাজ আরগো’র উদ্ধার কার্যক্রম শুরু হয়নি

» আজ শিশুরা পর্যন্ত ঘৃণা ও সন্ত্রাসের বাইরে থাকতে পারছে না।শিশুরা নির্যাতনের শিকার হচ্ছে, হত্যার শিকার হচ্ছে

» ঝিনাইদহের শৈলকুপায় নাকপাড়া গ্রামে সাপের কামড়ে দুই সহোদরের মৃত্যু

» রাজধানীর মেরুল বাড্ডায় নিজ বাড়িতেই ডাকাতের অস্ত্রের আঘাতে আহত ১

» বিসিসিআই এর নতুন কমিটির অভিষেক

» ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি এপিজে ড. কালাম স্মৃতি ইন্টারন্যাশনাল এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ পেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

» এক কোটির বেশি নাগরিক ইতোমধ্যে ই-নামজারি সেবা পেয়েছেন – ভূমিমন্ত্রী

» দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক উন্নয়ন এবং নারী ও শিশুদের কল্যাণে অবদান রাখায় ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি ড. এ পি জে আবদুল কালাম স্মৃতি পুরস্কার গ্রহণ করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৩রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কুড়ানো মাছের বৈকালিন হাট কুয়াকাটায়

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

মহাসড়কের মহিপুর শেখ রাসেল সেতুর নিচে কুড়ানো মাছের বৈকালিন হাট বসেছে। সাগর থেকে মৎস্য আড়ৎ ঘাটে মাছ বোঝাই করে ট্রলার আসলেই ছোট ছোট শিশু সন্তানদেন অর্ধশত অভাবী মায়েদের মাছ কুড়ানো জন্য হুরাহুরি পরে যায়।

উপজেলার মৎস্যবন্দর আলীপুর ও মহিপুরের আড়ৎ ঘাটে এ অবস্থা চলে প্রতিদিন সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত। কুড়ানো ওই মাছ প্রতিদিন শেখ রাসেল সেতুর নিচে বৈকালিন বাজারে বিক্রি করছে। ক্রেতারাও অপেক্ষায় থাকেন কখন ওই বাজারে মাছ আসবে। অনেকটা সস্তায় পায় বলে স্বল্প আয়ের মানুষরা এ মাছ ক্রয় করতে বৈকালিন এ মাছের ভীড় জমায়।স্বামীহারা আয়শা বেগম ছোট একটি সন্তান কোলে নিয়ে অসহায়ের মত সাগর থেকে মাছ বোঝায় করে ট্রলার আসার পরপরই আড়ৎ ঘাটে গিয়ে জেলেদের কাছে মাছ ভিক্ষা চায়। এসময় জেলেদের কাছে কাকুতি করে
বলেন,“বাবারে ভাইরে একটা মাছ দ্যান। স্বামী গ্যাঙ্গে মাছ ধরতে গিয়া মারা গেছে। পোলাপাইন লইয়্যা কি খামু”। কথা হয় কুড়ানো মাছে জীবন জীবিকায় যুক্ত মনোয়ারা, খাদিজা ও মমতাজের সাথে। তারা প্রত্যেকে বলেন, সাগরে মাছ ধরতে গিয়া স্বামী মারা গেছে। সংসার চলে ভিক্ষায় পাওয়া মাছ বিক্রি করে।
মধ্যম বয়সী সাজেদা জানায়, স্বামী সাগরে মাছ ধরতে গিয়া তিন বছর আগে মারা গেছে। ছেলে মামুন ও প্রত্যেক দিন মাছ কুড়ায়। ওই মাছ বিক্রি করে দেড়-দ্ধুসঢ়;ই’শ টাকায় চাল ডাল কিনে বাড়ি ফিরে। এ আয় দিয়ে দুই সন্তানের লেখপাড়া ছাড়াও সাত জনের সংসার চালায়।

উপজেলা ট্রলার মাঝি সমবায় সমিতির সভাপতি জেলে নুরু মাঝি বলেন, ওরা আমাদেরই সন্তান। ওইসব মা ও শিশুদের কেউ না কেউ সমুদ্রে মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ বা মারা গেছে। সহায়তা করার জন্য সকল জেলেদের অনুরোধ তিনি জানান। উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো.কামরুল ইসলাম জানান, সাগরে নিখোঁজ ও নিহত জেলেদের পরিবারকে সরকার সহায়তা করে থাকে। ইতোমধ্যে এ উপজেলার পাঁচ জেলে পরিবারকে ৫০ হাজার টাকা করে চেক প্রদান করা হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

উত্তম কুমার হাওলাদার,কলাপাড়া (পটুয়াখালী)প্রতিনিধি,
পটুয়াখালী,শুক্রবার, ২০ জানুয়ারি, এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com