সবকিছুর মধ্যেই সরকার বিএনপিকে দেখতে পায়,বিএনপির চিন্তায় তাদের ঘুম পর্যন্ত আসে না-মির্জা ফখরুল

জনবিচ্ছিন্ন আওয়ামী লীগ সরকার এখন বিএনপি ‘ফোবিয়া’য় ভুগছে। যেখানে যা কিছু পায় সবকিছুর মধ্যেই তারা বিএনপিকে দেখতে পায় বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।শুক্রবার (১০ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১০ টায় নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল।সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপি মহাসচিব বলেন, জনবিচ্ছিন্ন আওয়ামী লীগ সরকার এখন বিএনপি ‘ফোবিয়া’য় ভুগছে। যেখানে যা কিছু পায় সবকিছুর মধ্যেই তারা বিএনপিকে দেখতে পায়। আমার মনে হয় বিএনপির চিন্তায় তাদের ঘুম পর্যন্ত আসে না।
লিখিত বক্তব্যে মির্জা ফখরুল বলেন, কোমলমতি শিক্ষার্থীদের আন্দোলন দেশের ইতিহাসে এক নতুন মাত্রা সৃষ্টি করেছে। সতীর্থদের হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে স্বতঃস্ফূর্তভাবে গড়ে ওঠা যুগান্তকারী এই আন্দোলন শান্তিপূর্ণ ও গাড়ির কাগজপত্র চেক করার মতো গঠনমূলক। উপযুক্ত কাগজপত্র না থাকায় মন্ত্রী, বিচারপতি, পুলিশ কর্মকর্তা, সরকারি কর্মকর্তা ও সাধারণ মানুষের প্রতি শিক্ষার্থীদের সমআচরণ ছিল দৃষ্টান্তমূলক ও শিক্ষণীয়।
তিনি বলেন, বাংলাদেশের সকল শ্রেণী-পেশার মানুষ, বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সংঠগন এমনকি দেশের প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রীগণ ও পুলিশ কর্মকর্তা পর্যন্ত এই শিশু কিশোরদের ৯ দফা দাবি ও আন্দোলনের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে। আমরাও বিএনপির পক্ষ থেকে এবং ২০ দলীয় জোটের পক্ষ থেকে তাদের ন্যায্য ও জরুরি এসব দাবি দাওয়ার প্রতি আমাদের নৈতিক সমর্থন ঘোষণা করেছি। কিন্তু দুর্ভাগ্যক্রমে জনগণের জানমাল রক্ষায় ক্রমাগত ব্যর্থ ও অযোগ্য সরকার প্রথম দিন থেকেই এই আন্দোলনে ষড়যন্ত্র ও উস্কানি আবিষ্কারের অপচেষ্টা চালাতে শুরু করে।সরকারি দলের সিদ্ধান্তেই ছাত্রলীগ, যুবলীগ, শ্রমিকলীগের নেতা-কর্মীরা পুলিশের ছত্রছায়ায় হেলমেট ও মুখোস পরে অগ্নেয়াস্ত্র, লাঠি, কিরিচ, রামদা নিয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর অমানবিক ও বর্বোরোচিত হামলা চালিয়েছে বলেও অভিযোগ করেন মির্জা ফখরুল।তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দাবি করেছেন যে, এসব আক্রমণ নাকি বিএনপি-জামায়াত কর্মীরা করেছে। কোনো পাগলও নেই যে, তারা বিশ্বাস করবে পুলিশের সহায়তায় তাদের সামনে বিএনপি-জামায়াত কর্মীরা আগ্নেয়াস্ত্র, লাঠি-সোঁটা নিয়ে শিক্ষার্থীদের মারপিট করবে, দায়িত্বরত সাংবাদিকদের কোপাবে, ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ অফিস আক্রমণ করবে।
হেলমেট পড়া ও মুখোশধারী আক্রমণকারীরা ছাত্রলীগ-যুবলীগ কর্মী ছিল এটা আহত সব সাংবাদিক এবং শিক্ষার্থীরা বলার পরেও পত্রিকায় আক্রমণকারীদের অনেকেরই ছবি ছাপা হয়েছে, কোনো কোনো ইলেকট্রনিক মিডিয়া, অনলাইন পত্রিকা এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় আক্রমণকারীদের ছবির ছড়াছড়ি থাকার পরেও অপরাধীদের গ্রেফতারের জন্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তাদের বিচার করার জন্য নাম চান। এমন বাজে রসিকতায় তিনি আনন্দ পেতে পারেন কিন্তু দেশবাসী লজ্জিত হয় বলে মন্তব্য করেন মির্জা ফখরুল।আন্দোলনে সমর্থনের বিষয়ে ফখরুল বলেন, ‘আমরা ছাত্রছাত্রীদের আন্দোলনের প্রতি প্রকাশ্যেই সমর্থন জানিয়েছি। এটা অপরাধ হলে প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে পুলিশ কর্মকর্তারা পর্যন্ত একই অপরাধে অভিযুক্ত হওয়ার কথা। কিন্তু যে সরকার প্রার্থী, ভোটার এবং ভোট ছাড়া নিজেরাই নিজেদের নির্বাচিত ঘোষণা করে জোর করে রাষ্ট্র চালাতে লজ্জাবোধ করে না, তাদের কাছ থেকে পক্ষপাতমূলক বক্তব্য ও আচরণ ছাড়া আর কী আশা করা যেতে পারে। আমরা নিশ্চিত যে নানা বাধাবিপত্তির মধ্যেও মিডিয়া ও সামাজিক মিডিয়ার মাধ্যমে দেশবাসী প্রকৃত তথ্য পরিষ্কারভাবে জেনে গেছেন। আর সে জন্য ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের ক্রমাগত মিথ্যাচারে তাঁরা বিভ্রান্ত হবেন না।’শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সহিংস কোনো কর্মকাণ্ডে বিএনপি কখনো জড়িত ছিল না দাবি করে ফখরুল বলেন, ‘যারা পুলিশের সামনে হেলমেট ও মুখোশ পরে সহিংসতা করেছে, সাংবাদিকসহ আন্দোলনকারীদের ওপর নির্মম হামলা চালিয়েছে। আওয়ামী লীগের সেই সন্ত্রাসীদের অবিলম্বে চিহ্নিত ও গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনার আমরা জোর দাবি জানাচ্ছি।’
ঢাকা,শুক্রবার,১০ আগস্ট,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ১৩০ রানের লক্ষ্য দিল বাংলাদেশ

» চাঁদপুরে একই পরিবারের চারজনের লাশ উদ্ধার

» রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ করছেন আ.লীগ-বিএনপির প্রার্থীরা

» আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীরা আজকের মধ্যে সরে না দাঁড়ালে ব্যবস্থা নেওয়া হবে-ওবায়দুল কাদের

» সামরিক বাহিনী ও পুলিশ ছাড়া সরকারি চাকরিতে প্রবেশের কোনো বয়সসীমা থাকবে না

» ৪ উইকেট হারিয়ে ৫৮ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ।

» বাঙালির গৌরবময় মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ পুলিশ সদস্যদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা

» যেভাবে ভোটারদের হুমকি দেওয়া ও প্রার্থীরা হামলার শিকার হচ্ছেন, এতে নির্বাচনের দিন কী ঘটনা ঘটবে তা নিয়ে শঙ্কা রয়েছে : ড. কামাল হোসেন

» সোমবার দেশে আনা হচ্ছে চলচ্চিত্র নির্মাতা আমজাদ হোসেনের মরদেহ

» রাজধানীর গুলশানে ২১ ডিসেম্বর, সিলেটে ২২ ও রংপুরে ২৩ ডিসেম্বর জনসভা করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা— ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

সবকিছুর মধ্যেই সরকার বিএনপিকে দেখতে পায়,বিএনপির চিন্তায় তাদের ঘুম পর্যন্ত আসে না-মির্জা ফখরুল

জনবিচ্ছিন্ন আওয়ামী লীগ সরকার এখন বিএনপি ‘ফোবিয়া’য় ভুগছে। যেখানে যা কিছু পায় সবকিছুর মধ্যেই তারা বিএনপিকে দেখতে পায় বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।শুক্রবার (১০ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১০ টায় নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল।সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বিএনপি মহাসচিব বলেন, জনবিচ্ছিন্ন আওয়ামী লীগ সরকার এখন বিএনপি ‘ফোবিয়া’য় ভুগছে। যেখানে যা কিছু পায় সবকিছুর মধ্যেই তারা বিএনপিকে দেখতে পায়। আমার মনে হয় বিএনপির চিন্তায় তাদের ঘুম পর্যন্ত আসে না।
লিখিত বক্তব্যে মির্জা ফখরুল বলেন, কোমলমতি শিক্ষার্থীদের আন্দোলন দেশের ইতিহাসে এক নতুন মাত্রা সৃষ্টি করেছে। সতীর্থদের হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে স্বতঃস্ফূর্তভাবে গড়ে ওঠা যুগান্তকারী এই আন্দোলন শান্তিপূর্ণ ও গাড়ির কাগজপত্র চেক করার মতো গঠনমূলক। উপযুক্ত কাগজপত্র না থাকায় মন্ত্রী, বিচারপতি, পুলিশ কর্মকর্তা, সরকারি কর্মকর্তা ও সাধারণ মানুষের প্রতি শিক্ষার্থীদের সমআচরণ ছিল দৃষ্টান্তমূলক ও শিক্ষণীয়।
তিনি বলেন, বাংলাদেশের সকল শ্রেণী-পেশার মানুষ, বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক সংঠগন এমনকি দেশের প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রীগণ ও পুলিশ কর্মকর্তা পর্যন্ত এই শিশু কিশোরদের ৯ দফা দাবি ও আন্দোলনের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে। আমরাও বিএনপির পক্ষ থেকে এবং ২০ দলীয় জোটের পক্ষ থেকে তাদের ন্যায্য ও জরুরি এসব দাবি দাওয়ার প্রতি আমাদের নৈতিক সমর্থন ঘোষণা করেছি। কিন্তু দুর্ভাগ্যক্রমে জনগণের জানমাল রক্ষায় ক্রমাগত ব্যর্থ ও অযোগ্য সরকার প্রথম দিন থেকেই এই আন্দোলনে ষড়যন্ত্র ও উস্কানি আবিষ্কারের অপচেষ্টা চালাতে শুরু করে।সরকারি দলের সিদ্ধান্তেই ছাত্রলীগ, যুবলীগ, শ্রমিকলীগের নেতা-কর্মীরা পুলিশের ছত্রছায়ায় হেলমেট ও মুখোস পরে অগ্নেয়াস্ত্র, লাঠি, কিরিচ, রামদা নিয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর অমানবিক ও বর্বোরোচিত হামলা চালিয়েছে বলেও অভিযোগ করেন মির্জা ফখরুল।তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক দাবি করেছেন যে, এসব আক্রমণ নাকি বিএনপি-জামায়াত কর্মীরা করেছে। কোনো পাগলও নেই যে, তারা বিশ্বাস করবে পুলিশের সহায়তায় তাদের সামনে বিএনপি-জামায়াত কর্মীরা আগ্নেয়াস্ত্র, লাঠি-সোঁটা নিয়ে শিক্ষার্থীদের মারপিট করবে, দায়িত্বরত সাংবাদিকদের কোপাবে, ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ অফিস আক্রমণ করবে।
হেলমেট পড়া ও মুখোশধারী আক্রমণকারীরা ছাত্রলীগ-যুবলীগ কর্মী ছিল এটা আহত সব সাংবাদিক এবং শিক্ষার্থীরা বলার পরেও পত্রিকায় আক্রমণকারীদের অনেকেরই ছবি ছাপা হয়েছে, কোনো কোনো ইলেকট্রনিক মিডিয়া, অনলাইন পত্রিকা এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় আক্রমণকারীদের ছবির ছড়াছড়ি থাকার পরেও অপরাধীদের গ্রেফতারের জন্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তাদের বিচার করার জন্য নাম চান। এমন বাজে রসিকতায় তিনি আনন্দ পেতে পারেন কিন্তু দেশবাসী লজ্জিত হয় বলে মন্তব্য করেন মির্জা ফখরুল।আন্দোলনে সমর্থনের বিষয়ে ফখরুল বলেন, ‘আমরা ছাত্রছাত্রীদের আন্দোলনের প্রতি প্রকাশ্যেই সমর্থন জানিয়েছি। এটা অপরাধ হলে প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে পুলিশ কর্মকর্তারা পর্যন্ত একই অপরাধে অভিযুক্ত হওয়ার কথা। কিন্তু যে সরকার প্রার্থী, ভোটার এবং ভোট ছাড়া নিজেরাই নিজেদের নির্বাচিত ঘোষণা করে জোর করে রাষ্ট্র চালাতে লজ্জাবোধ করে না, তাদের কাছ থেকে পক্ষপাতমূলক বক্তব্য ও আচরণ ছাড়া আর কী আশা করা যেতে পারে। আমরা নিশ্চিত যে নানা বাধাবিপত্তির মধ্যেও মিডিয়া ও সামাজিক মিডিয়ার মাধ্যমে দেশবাসী প্রকৃত তথ্য পরিষ্কারভাবে জেনে গেছেন। আর সে জন্য ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের ক্রমাগত মিথ্যাচারে তাঁরা বিভ্রান্ত হবেন না।’শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সহিংস কোনো কর্মকাণ্ডে বিএনপি কখনো জড়িত ছিল না দাবি করে ফখরুল বলেন, ‘যারা পুলিশের সামনে হেলমেট ও মুখোশ পরে সহিংসতা করেছে, সাংবাদিকসহ আন্দোলনকারীদের ওপর নির্মম হামলা চালিয়েছে। আওয়ামী লীগের সেই সন্ত্রাসীদের অবিলম্বে চিহ্নিত ও গ্রেপ্তার করে বিচারের আওতায় আনার আমরা জোর দাবি জানাচ্ছি।’
ঢাকা,শুক্রবার,১০ আগস্ট,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY PopularITLimited