সংবাদপত্র কর্মীদের জন্য নবম ওয়েজবোর্ডের প্রজ্ঞাপন প্রকাশের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে-তথ্যমন্ত্রী

আগামী ২৮ জানুয়ারির মধ্যে সংবাদপত্র কর্মীদের জন্য নবম ওয়েজবোর্ডের প্রজ্ঞাপন প্রকাশের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।
আজ সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে সাংবাদিক নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন হাছান মাহমুদ। এ সময় বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) পক্ষ থেকে মন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।সেই সঙ্গে ইলেকট্রনিক মিডিয়াকেও ওয়েজবোর্ডের আওতায় আনা প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।সাংবাদিকদের নবম ওয়েজ বোর্ড প্রসঙ্গে তিনি বলেন, নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে একটু আগে কথা বলেছি। ২৮ (জানুয়ারি) তারিখের মধ্যে গেজেট হওয়া প্রয়োজন। এ লক্ষ্যে আপনাদের এখান থেকে আমি মন্ত্রণালয়ে যাবো। আলাপ-আলোচনা করবো কী করা যায়।
‘আর আমি ব্যক্তিগতভাবে যেটি মনে করি, যখন ওয়েজবোর্ডের শুরু হয় তখন ইলেকট্রনিক মিডিয়া ছিল না। এজন্য এটা অন্তর্ভুক্ত হয়নি। কিন্তু আজকের বাস্তবতায় তো ইলেকট্রনিক মিডিয়া আছে। সুতরাং আমি মনে করি এটাও ওয়েজ বোর্ডের মধ্যে আসা প্রয়োজন। এই নবম ওয়েজবোর্ড যেহেতু অনেক দূর এগিয়ে গেছে, সেহেতু এটার মধ্যে হয়তো সম্ভব হবে না। তবে পরবর্তীতে এটাকে কিভাবে ইনক্লুড করা যায় তা আলাপ-আলোচনা করবো।’
গণমাধ্যমকর্মী আইন প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এটি মন্ত্রণালয়ে আছে, আমি সকালে খবর নিয়েছি। আইন মন্ত্রণালয়ে আছে। এ বিষয়ে আরেকটি বৈঠক হতে হবে। তিন মন্ত্রণালয়ের সমন্বয়ে একটি বৈঠক হওয়ার পর সেটি এগোবে। সুতরাং এই কাজগুলো প্রায়োরিটি হিসেবে আমি ইতোমধ্যে চিহ্নিত করেছি।
অনলাইন গণমাধ্যম আজকের বাস্তবতা উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, অনলাইন মিডিয়া প্রয়োজন। এটা আজকের দিনের বাস্তবতা। একই সঙ্গে অনলাইন মিডিয়ার বিকাশের পাশাপাশি এর সুষ্ঠু বিকাশও প্রয়োজন। সেজন্য আমি গণমাধ্যমকে একটি নীতিমালার মধ্যে আনা জরুরি।তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান বলেন, আমাদের দেশে হাজার হাজার অনলাইন মিডিয়া। দেখা যাচ্ছে অনেকেই ঘরে বসে অনলাইন মিডিয়া চালাচ্ছেন। কিন্তু এসব গণমাধ্যমকে নীতিমালার মধ্যে আনা জরুরি।
‘এ লক্ষ্যে আমার পূর্বসূরি হাসানুল হক ইনু ভাই অনেক কাজ এগিয়ে নিয়ে গেছেন। সেই সূত্র ধরে আপনাদের (সাংবাদিক) সঙ্গে নিয়েই আমি কাজটা আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। এটি একটি নিয়ম নীতির মধ্যে আনা প্রয়োজন।’
তথ্য-প্রযুক্তি ডেস্ক, সোমবার,১৪ জানুয়ারি,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» পুরান ঢাকার শহীদনগরের কারখানার আগুন ফায়ার সার্ভিসের চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে

» বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে সিকৃবি এক শিক্ষার্থীকে হত্যার অভিযোগ

» পুরান ঢাকার শহীদনগরের একটি কারখানায় আগুন, নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৭টি ইউনিট

» তৃতীয় ধাপে ১১৭ টি উপজেলায় ভোটগ্রহণ কাল রোববার

» রাজধানীর গুলিস্তানে ছিনতাইকারীর গুলিতে দুইজন আহত

» রাজধানীর গুলিস্তানে ছিনতাইকারীর গুলিতে দুইজন আহত হয়েছেন।

» ডাকসু’র দায়িত্ব নিল নবনির্বাচিত কমিটি

» নোয়াখালীর সুবর্ণচরে গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামি রুহুল আমিনের জামিন আদেশ প্রত্যাহার

» ব‌রিশা‌লে সড়ক দুর্ঘটনায় বিএম ক‌লেজছাত্রীসহ সাতজন মৃত্যুর প্র‌তিবা‌দে বি‌ক্ষোভ

» ডাকসুর কার্যকরী পরিষদের প্রথম বৈঠক শুরু, দায়িত্ব নিচ্ছেন ভিপি নুরুল হক নুর ও জিএস গোলাম রাব্বানীসহ অন্য প্রতিনিধিরা

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
,

সংবাদপত্র কর্মীদের জন্য নবম ওয়েজবোর্ডের প্রজ্ঞাপন প্রকাশের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে-তথ্যমন্ত্রী

আগামী ২৮ জানুয়ারির মধ্যে সংবাদপত্র কর্মীদের জন্য নবম ওয়েজবোর্ডের প্রজ্ঞাপন প্রকাশের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।
আজ সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে সাংবাদিক নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন হাছান মাহমুদ। এ সময় বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) পক্ষ থেকে মন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়।সেই সঙ্গে ইলেকট্রনিক মিডিয়াকেও ওয়েজবোর্ডের আওতায় আনা প্রয়োজন বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।সাংবাদিকদের নবম ওয়েজ বোর্ড প্রসঙ্গে তিনি বলেন, নবম ওয়েজ বোর্ড নিয়ে একটু আগে কথা বলেছি। ২৮ (জানুয়ারি) তারিখের মধ্যে গেজেট হওয়া প্রয়োজন। এ লক্ষ্যে আপনাদের এখান থেকে আমি মন্ত্রণালয়ে যাবো। আলাপ-আলোচনা করবো কী করা যায়।
‘আর আমি ব্যক্তিগতভাবে যেটি মনে করি, যখন ওয়েজবোর্ডের শুরু হয় তখন ইলেকট্রনিক মিডিয়া ছিল না। এজন্য এটা অন্তর্ভুক্ত হয়নি। কিন্তু আজকের বাস্তবতায় তো ইলেকট্রনিক মিডিয়া আছে। সুতরাং আমি মনে করি এটাও ওয়েজ বোর্ডের মধ্যে আসা প্রয়োজন। এই নবম ওয়েজবোর্ড যেহেতু অনেক দূর এগিয়ে গেছে, সেহেতু এটার মধ্যে হয়তো সম্ভব হবে না। তবে পরবর্তীতে এটাকে কিভাবে ইনক্লুড করা যায় তা আলাপ-আলোচনা করবো।’
গণমাধ্যমকর্মী আইন প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এটি মন্ত্রণালয়ে আছে, আমি সকালে খবর নিয়েছি। আইন মন্ত্রণালয়ে আছে। এ বিষয়ে আরেকটি বৈঠক হতে হবে। তিন মন্ত্রণালয়ের সমন্বয়ে একটি বৈঠক হওয়ার পর সেটি এগোবে। সুতরাং এই কাজগুলো প্রায়োরিটি হিসেবে আমি ইতোমধ্যে চিহ্নিত করেছি।
অনলাইন গণমাধ্যম আজকের বাস্তবতা উল্লেখ করে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, অনলাইন মিডিয়া প্রয়োজন। এটা আজকের দিনের বাস্তবতা। একই সঙ্গে অনলাইন মিডিয়ার বিকাশের পাশাপাশি এর সুষ্ঠু বিকাশও প্রয়োজন। সেজন্য আমি গণমাধ্যমকে একটি নীতিমালার মধ্যে আনা জরুরি।তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান বলেন, আমাদের দেশে হাজার হাজার অনলাইন মিডিয়া। দেখা যাচ্ছে অনেকেই ঘরে বসে অনলাইন মিডিয়া চালাচ্ছেন। কিন্তু এসব গণমাধ্যমকে নীতিমালার মধ্যে আনা জরুরি।
‘এ লক্ষ্যে আমার পূর্বসূরি হাসানুল হক ইনু ভাই অনেক কাজ এগিয়ে নিয়ে গেছেন। সেই সূত্র ধরে আপনাদের (সাংবাদিক) সঙ্গে নিয়েই আমি কাজটা আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। এটি একটি নিয়ম নীতির মধ্যে আনা প্রয়োজন।’
তথ্য-প্রযুক্তি ডেস্ক, সোমবার,১৪ জানুয়ারি,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Design & Developed BY PopularITLimited