করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলাদেশে

নতুন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু
১২৩০ ৭,৭৬,২৫৭ ৭,১৫,৩২১ ১২,০০৫

শঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই,সরকার সব সময় জনগণের পাশেই রয়েছে

বিশেষজ্ঞের পরামর্শে করোনা থেকে মানুষের জীবন বাঁচাতেই ‘কঠোর ব্যবস্থা’ নেয়ার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকার সব সময় জনগণের পাশেই রয়েছে।প্রাণঘাতী করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে শঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে এমন অভয় দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যেই শুরু হচ্ছে নতুন বাংলা বছর ১৪২৮ সাল। এ উপলক্ষ্যে মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে সকলকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সাথে পবিত্র মাহে রমজানের শুভেচ্ছাও জানান তিনি।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, মানুষের জীবন রক্ষার পাশাপাশি আমাদের অর্থনীতি, মানুষের জীবন-জীবিকা যাতে সম্পূর্ণরূপে ভেঙে না পড়ে সেদিকে আমরা কঠোর দৃষ্টি রাখছি। সবার সহযোগিতায় আমরা বেশ কিছু কার্যক্রম হাতে নিয়েছিলাম। যার ফলে গত বছর করোনা ভাইরাস মহামারিজনিত প্রভাব আমরা সফলভাবে মোকাবিলা করতে সক্ষম হয়েছি।
সরকারপ্রধান বলেন, আপনাদের শঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। সরকার সব সময় আপনাদের পাশে রয়েছে। দ্বিতীয় ঢেউ আঘাত হানার পর আমি দরিদ্র-নিম্নবিত্ত মানুষদের সহায়তার জন্য কার্যক্রম গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছি।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, জীবন-জীবিকায় কিছুটা অসুবিধা হলেও মহামারি থেকে রক্ষা পেতে বিধিনিষেধ মেনে চলতে হবে। অর্থনীতি যাতে ভেঙে না পড়ে, সেদিকে খেয়াল রেখেই কাজ চলছে জানিয়ে সরকার প্রধান বলেন, দেশের প্রতিটি নাগরিককেই টিকা দেয়া হবে।

বাঙালির সার্বজনীন এক উৎসব পহেলা বৈশাখ। বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষঙ্গে বর্ষবরণের অনুষ্ঠানে বর্ণিল লোকাচারে মানুষ আবাহন করে নতুন বছরকে। স্বজাত্যবোধ ও বাঙালিয়ানা জানান দেয়ার এই উৎসব এবারও অতিমারির কালো ছায়ায় ধূসর। নতুন উদ্যোমে ঘুরে দাঁড়ানোর অনুপ্রেরণা জাগানিয়া ছায়ানট, চারুকলা ঠিক নিস্তব্ধ না হলেও বিধিনিষেধের বেড়াজালে সীমিত সবকিছু।

মহামারির এই দুঃসহ সময়ে বর্ষবরণের আগের সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ নিয়ে এলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈরী এই পরিস্থিতিতে সাবধানতা মেনে ঘরে বসেই সবাইকে উৎসব করার আহ্বান জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দ্বিতীয় ধাপের করোনা ভাইরাসের আরও মরণঘাতি হয়ে আবিভূত হয়েছে। তাই পহেলা বৈশাখের আনন্দ গত বছরের মতো এবারও ঘরে বসেই উপভোগ করবো আমরা। অতীতের সব জঞ্জাল গ্লানি ধুয়ে মুছে আমরা নিজেদের পরিশুদ্ধ করবো।

ভাষণে উঠে আসে করোনার ভয়াবহতা নিয়ন্ত্রণে সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সর্বোচ্চ সতর্কবস্থা নেয়ার প্রয়োজনীয়তা।

শেখ হাসিনা বলেন, কোনোভাবেই সংক্রমণ ঠেকানো যাচ্ছে না। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুযায়ী আমাদের আরও কঠোর ব্যবস্থা নিতে হচ্ছে। আমি জানি এর ফলে অনেকেরই জীবন জীবিকার অসুবিধা হবে। কিন্তু আমাদের সকলকেই মনে রাখতে হবে মানুষের জীবন সর্বাগ্রে, বেঁচে থাকলে আবারও সব কিছু গুছিয়ে নিতে পারবো।

সরকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিম্নবিত্তের জন্য সহায়তার কার্যক্রম নেবে বলেও জানান সরকার প্রধান।
দেশের প্রতিটি নাগরিককে টিকার আওতায় নিয়ে আসার প্রস্তুতি সরকারের রয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রতিকূলতা জয় করেই বাঁচতে হবে।
ঢাকা,মঙ্গলবার,১৩ এপ্রিল,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments Box

সর্বশেষ আপডেট



» বনানীর একটি বহুতল বাণিজ্যিক ভবনে লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে

» দৌলতদিয়ায় ৫ নম্বর পন্টুনের তার ছিঁড়ে মাইক্রোবাস নদীতে, নিখোঁজ চালক

» নতুন করে আরও ১২৩০ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত,মৃত্যু ৩৩ জন

» গাজা উপত্যকায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল বাহিনী,৯ জন ফিলিস্তিনি নিহত

» কুয়াকাটার সৈকতে ভেসে আসছে একের পর এক মৃত ডলফিন

» নতুন করে আরও ১৫১৪ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত,মৃত্যু ৩৮ জন

» বেগম খালেদা জিয়ার করোনা টেস্ট রিপোর্টে তার আসল জন্মদিনের সঠিক তথ্য প্রকাশ

» বাধা উপেক্ষা করেই ঈদে ঘরমুখো মানুষের ঢল নেমেছে মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ও পাটুরিয়া ঘাটে

» বেতন ও ঈদের ছুটি বাড়ানোর দাবীতে পোশাক শ্রমিকরা মহাসড়ক অবরোধ, আহত ১০

» মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নতুন মন্ত্রিসভার শপথগ্রহণ সোমবার

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ, ২৮শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

শঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই,সরকার সব সময় জনগণের পাশেই রয়েছে

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

বিশেষজ্ঞের পরামর্শে করোনা থেকে মানুষের জীবন বাঁচাতেই ‘কঠোর ব্যবস্থা’ নেয়ার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকার সব সময় জনগণের পাশেই রয়েছে।প্রাণঘাতী করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে শঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে এমন অভয় দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের মধ্যেই শুরু হচ্ছে নতুন বাংলা বছর ১৪২৮ সাল। এ উপলক্ষ্যে মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) জাতির উদ্দেশে দেয়া ভাষণে সকলকে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সাথে পবিত্র মাহে রমজানের শুভেচ্ছাও জানান তিনি।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, মানুষের জীবন রক্ষার পাশাপাশি আমাদের অর্থনীতি, মানুষের জীবন-জীবিকা যাতে সম্পূর্ণরূপে ভেঙে না পড়ে সেদিকে আমরা কঠোর দৃষ্টি রাখছি। সবার সহযোগিতায় আমরা বেশ কিছু কার্যক্রম হাতে নিয়েছিলাম। যার ফলে গত বছর করোনা ভাইরাস মহামারিজনিত প্রভাব আমরা সফলভাবে মোকাবিলা করতে সক্ষম হয়েছি।
সরকারপ্রধান বলেন, আপনাদের শঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। সরকার সব সময় আপনাদের পাশে রয়েছে। দ্বিতীয় ঢেউ আঘাত হানার পর আমি দরিদ্র-নিম্নবিত্ত মানুষদের সহায়তার জন্য কার্যক্রম গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছি।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, জীবন-জীবিকায় কিছুটা অসুবিধা হলেও মহামারি থেকে রক্ষা পেতে বিধিনিষেধ মেনে চলতে হবে। অর্থনীতি যাতে ভেঙে না পড়ে, সেদিকে খেয়াল রেখেই কাজ চলছে জানিয়ে সরকার প্রধান বলেন, দেশের প্রতিটি নাগরিককেই টিকা দেয়া হবে।

বাঙালির সার্বজনীন এক উৎসব পহেলা বৈশাখ। বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষঙ্গে বর্ষবরণের অনুষ্ঠানে বর্ণিল লোকাচারে মানুষ আবাহন করে নতুন বছরকে। স্বজাত্যবোধ ও বাঙালিয়ানা জানান দেয়ার এই উৎসব এবারও অতিমারির কালো ছায়ায় ধূসর। নতুন উদ্যোমে ঘুরে দাঁড়ানোর অনুপ্রেরণা জাগানিয়া ছায়ানট, চারুকলা ঠিক নিস্তব্ধ না হলেও বিধিনিষেধের বেড়াজালে সীমিত সবকিছু।

মহামারির এই দুঃসহ সময়ে বর্ষবরণের আগের সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ নিয়ে এলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈরী এই পরিস্থিতিতে সাবধানতা মেনে ঘরে বসেই সবাইকে উৎসব করার আহ্বান জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দ্বিতীয় ধাপের করোনা ভাইরাসের আরও মরণঘাতি হয়ে আবিভূত হয়েছে। তাই পহেলা বৈশাখের আনন্দ গত বছরের মতো এবারও ঘরে বসেই উপভোগ করবো আমরা। অতীতের সব জঞ্জাল গ্লানি ধুয়ে মুছে আমরা নিজেদের পরিশুদ্ধ করবো।

ভাষণে উঠে আসে করোনার ভয়াবহতা নিয়ন্ত্রণে সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে সর্বোচ্চ সতর্কবস্থা নেয়ার প্রয়োজনীয়তা।

শেখ হাসিনা বলেন, কোনোভাবেই সংক্রমণ ঠেকানো যাচ্ছে না। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুযায়ী আমাদের আরও কঠোর ব্যবস্থা নিতে হচ্ছে। আমি জানি এর ফলে অনেকেরই জীবন জীবিকার অসুবিধা হবে। কিন্তু আমাদের সকলকেই মনে রাখতে হবে মানুষের জীবন সর্বাগ্রে, বেঁচে থাকলে আবারও সব কিছু গুছিয়ে নিতে পারবো।

সরকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিম্নবিত্তের জন্য সহায়তার কার্যক্রম নেবে বলেও জানান সরকার প্রধান।
দেশের প্রতিটি নাগরিককে টিকার আওতায় নিয়ে আসার প্রস্তুতি সরকারের রয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রতিকূলতা জয় করেই বাঁচতে হবে।
ঢাকা,মঙ্গলবার,১৩ এপ্রিল,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments Box

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Hbnews24 || Phone: +8801714043198, email: hbnews24@gmail.com

Translate »
error: Alert: Content is protected !!