করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলাদেশে

নতুন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু
১৮৯৭ ১৯,৭৫,৬৮২ ৯,০৭,৭৫৭ ২৯,১৫৪

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালি জাতির শুধু একটি নাম নয়

ঢাকা: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নিছক একজন ব্যক্তি নন, বঙ্গবন্ধু একটি প্রতিষ্ঠানের নাম, একটি চেতনার নাম। শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালি জাতির শুধু একটি নাম নয়। শেখ মুজিবুর রহমান একটি বাঙালি জাতির পতাকার নাম, শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের একটি স্থপতির নাম, শেখ মুজিবুর রহমান একজন মুক্তিযোদ্ধার নাম,একটি বাঙালি জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানের নাম, একটি দেশের স্বাধীনতার নাম, একটি বিশ্ববাসীর নিকট বাঙালার উজ্জ্বল মুখের নাম, বাঙালার সমৃদ্ধ ইতিহাসের নাম, সার্বভৌমত্বের নাম, গণভ্যূত্থানের নাম, নিপীড়িত মানুষের আন্দোলনের অগ্রসেনানীর নাম,উন্নয়নের নাম, দারিদ্র বিমোচনের নাম সর্বপরি একটি দেশের সর্বস্তরের মানুষের হৃদয়ের গ্রোথিত চিরঅম্লান একটি নাম,একটি উজ্জীবিতের নাম। মুজিবের তুলনা শুধু মুজিবইখন্ড মুজিবের বাংলা তথা বাংলাদেশ। সেই মহান ব্যক্তি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২ তম শাহাদাৎ বার্ষিকীতে জাতি স্মরণ করছে বিনম্র শ্রদ্ধায়।
তাঁর নেতৃত্বেই ১৯৭১ সালে ৯ মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মধ্য দিয়ে বাঙালি এদেশের স্বাধীনতার স্বাধ লাভ করে। পৃথিবীর মানিচিত্রে জায়গা পায় নতুন এক ভূ-মুজিব। যারা বঙ্গবন্ধুকে লালসার কাছে বিবেক বিসর্জন দিয়ে পচাত্তরেরপনেরই আগষ্ট হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ সন্তান বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করেছে তারা ইতিহাসের আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত হয়েছে।ইতিহাসের
নৃশংসতম হত্যাকান্ডের ফলে অপূরনীয় ক্ষতি হয় দেশের যা আজও পূরণ হয়নি, হয়ত আগামীতেও হবে না। তবে দেশের আপামর জনগণের মনে গভীরে বঙ্গবন্ধুর নীতি আদর্শ ব্যক্তি রয়ে গেছে। অনেক বাঁধা পেরিয়ে দেরিত হলেও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর স্বপরিবারে হত্যাকান্ডের বিচার হয়েছে।অপরাধীদের মধ্যে পাঁচজন সর্বোচ্চ সাজা ভোগ করেছে, ফাঁসি কার্যকর ও অনেকের ফাঁসির রায় হয়েছে। তবে দন্ডিত
বাকি ছয়জন এখানো রয়ে গেছে ধরাছোয়াঁর বাইরে। এদের মধ্যে তিনজনের ফিরিয়ে এনে দন্ড কার্যকর না করতে না পারা নি:সন্দেহে হতাশার। আমাদের প্রত্যাশা, সরকার খুনিরা যেদেশেই থাকুক না কেন তাদের দেশে ফিরিয়ে এনে দন্ডিতদের সাজা কার্যকর করার ব্যবস্থা গ্রহন করবে।এই মহান ব্যক্তি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর
রহমান বাংলাদেশে ঢাকা বিভাগের মধ্যে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় ১৭ই মার্চ ১৯২০ সালে জন্ম গ্রহন করেন। টুঙ্গিপাড়ার অজপাড়াগাঁ থেকে উঠে আসা অতি সাধারণ একজন মানুষ হয়ে উঠলেন একটি জাতির আশা-আকাক্সক্ষার প্রতীক। তার ডাকে মৃত্যুকে উপেক্ষা করে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ল সবাই। একাত্তরে বঙ্গবন্ধু ছিলেন সবার। কিন্তু এখনকার বাংলাদেশ দেখলে মনে হতে পারে, বঙ্গবন্ধু শুধু আওয়ামী লীগের। কিন্তু তা তো হওয়ার কথা নয়। বঙ্গবন্ধু সবার, বঙ্গবন্ধু জাতির পিতা। বঙ্গবন্ধুকে দলীয় গ-ন্ডিতে কুক্ষিগত করে রাখলে আওয়ামী লীগের ক্ষতি। বঙ্গবন্ধু যত বিস্তৃত হবেন, আওয়ামী লীগের তত লাভ।
এখন বাংলাদেশে লাখ লাখ, কোটি কোটি বঙ্গবন্ধুপ্রেমিক। কিন্তু পঁচাত্তরের ১৫ আগস্টের পর বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুর নাম উচ্চারণ করার মতো সাহসী মানুষ ছিল খুব কম। ২১ বছর বাংলাদেশে নিষিদ্ধ ছিলেন বঙ্গবন্ধু।

মোহাম্মদ মাসুদ হাসান মোল্লাহ রিদম
দপ্তর সেক্রেটারী- বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টারস সোসাইটি (ঢাকা উত্তর)
এক্সিকিউটিভ মেম্বার- ঢাকা উত্তর সাংবাদিক ফোরাম

সর্বশেষ আপডেট



» গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে আরও ২২ জন নতুন রোগী হাসপাতালে ভর্তি

» বরগুনায় নিখোঁজ হওয়ার ৭২ ঘণ্টা পর এক যুবকের বস্তাবন্দি অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

» নতুন করে আরও ১৮৯৭ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত, পাঁচ জনের মৃত্যু হয়েছে।

» এক্সপ্রেসওয়েতে টোল আদায় শুরু

» হলি আর্টিজান হামলার ষষ্ঠ বার্ষিকী উপলক্ষে দীপ্ত শপথ ভাস্কর্যে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন র‍্যাব ডিজি

» রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকায় পৃথক দুই জায়গায় লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে

» হলি আর্টিজানে জঙ্গি হামলায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা

» আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু

» Cougars Looking For Young – Casual Cougar dating

» ২০২২-২৩ অর্থ বছরের জন্য ৬ লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকার বাজেট পাস

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

ফোন:+88 01714043198

প্রধান কার্যালয়: গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

ব্রাঞ্চ অফিস: ২৪৭ পশ্চিম মনিপুর, ২য় তলা, মিরপুর-২, ঢাকা -১২১৬।

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শুক্রবার, ১ জুলাই ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ, ১৭ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালি জাতির শুধু একটি নাম নয়




ঢাকা: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নিছক একজন ব্যক্তি নন, বঙ্গবন্ধু একটি প্রতিষ্ঠানের নাম, একটি চেতনার নাম। শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালি জাতির শুধু একটি নাম নয়। শেখ মুজিবুর রহমান একটি বাঙালি জাতির পতাকার নাম, শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের একটি স্থপতির নাম, শেখ মুজিবুর রহমান একজন মুক্তিযোদ্ধার নাম,একটি বাঙালি জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানের নাম, একটি দেশের স্বাধীনতার নাম, একটি বিশ্ববাসীর নিকট বাঙালার উজ্জ্বল মুখের নাম, বাঙালার সমৃদ্ধ ইতিহাসের নাম, সার্বভৌমত্বের নাম, গণভ্যূত্থানের নাম, নিপীড়িত মানুষের আন্দোলনের অগ্রসেনানীর নাম,উন্নয়নের নাম, দারিদ্র বিমোচনের নাম সর্বপরি একটি দেশের সর্বস্তরের মানুষের হৃদয়ের গ্রোথিত চিরঅম্লান একটি নাম,একটি উজ্জীবিতের নাম। মুজিবের তুলনা শুধু মুজিবইখন্ড মুজিবের বাংলা তথা বাংলাদেশ। সেই মহান ব্যক্তি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪২ তম শাহাদাৎ বার্ষিকীতে জাতি স্মরণ করছে বিনম্র শ্রদ্ধায়।
তাঁর নেতৃত্বেই ১৯৭১ সালে ৯ মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মধ্য দিয়ে বাঙালি এদেশের স্বাধীনতার স্বাধ লাভ করে। পৃথিবীর মানিচিত্রে জায়গা পায় নতুন এক ভূ-মুজিব। যারা বঙ্গবন্ধুকে লালসার কাছে বিবেক বিসর্জন দিয়ে পচাত্তরেরপনেরই আগষ্ট হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ সন্তান বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করেছে তারা ইতিহাসের আস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত হয়েছে।ইতিহাসের
নৃশংসতম হত্যাকান্ডের ফলে অপূরনীয় ক্ষতি হয় দেশের যা আজও পূরণ হয়নি, হয়ত আগামীতেও হবে না। তবে দেশের আপামর জনগণের মনে গভীরে বঙ্গবন্ধুর নীতি আদর্শ ব্যক্তি রয়ে গেছে। অনেক বাঁধা পেরিয়ে দেরিত হলেও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর স্বপরিবারে হত্যাকান্ডের বিচার হয়েছে।অপরাধীদের মধ্যে পাঁচজন সর্বোচ্চ সাজা ভোগ করেছে, ফাঁসি কার্যকর ও অনেকের ফাঁসির রায় হয়েছে। তবে দন্ডিত
বাকি ছয়জন এখানো রয়ে গেছে ধরাছোয়াঁর বাইরে। এদের মধ্যে তিনজনের ফিরিয়ে এনে দন্ড কার্যকর না করতে না পারা নি:সন্দেহে হতাশার। আমাদের প্রত্যাশা, সরকার খুনিরা যেদেশেই থাকুক না কেন তাদের দেশে ফিরিয়ে এনে দন্ডিতদের সাজা কার্যকর করার ব্যবস্থা গ্রহন করবে।এই মহান ব্যক্তি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর
রহমান বাংলাদেশে ঢাকা বিভাগের মধ্যে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় ১৭ই মার্চ ১৯২০ সালে জন্ম গ্রহন করেন। টুঙ্গিপাড়ার অজপাড়াগাঁ থেকে উঠে আসা অতি সাধারণ একজন মানুষ হয়ে উঠলেন একটি জাতির আশা-আকাক্সক্ষার প্রতীক। তার ডাকে মৃত্যুকে উপেক্ষা করে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ল সবাই। একাত্তরে বঙ্গবন্ধু ছিলেন সবার। কিন্তু এখনকার বাংলাদেশ দেখলে মনে হতে পারে, বঙ্গবন্ধু শুধু আওয়ামী লীগের। কিন্তু তা তো হওয়ার কথা নয়। বঙ্গবন্ধু সবার, বঙ্গবন্ধু জাতির পিতা। বঙ্গবন্ধুকে দলীয় গ-ন্ডিতে কুক্ষিগত করে রাখলে আওয়ামী লীগের ক্ষতি। বঙ্গবন্ধু যত বিস্তৃত হবেন, আওয়ামী লীগের তত লাভ।
এখন বাংলাদেশে লাখ লাখ, কোটি কোটি বঙ্গবন্ধুপ্রেমিক। কিন্তু পঁচাত্তরের ১৫ আগস্টের পর বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুর নাম উচ্চারণ করার মতো সাহসী মানুষ ছিল খুব কম। ২১ বছর বাংলাদেশে নিষিদ্ধ ছিলেন বঙ্গবন্ধু।

মোহাম্মদ মাসুদ হাসান মোল্লাহ রিদম
দপ্তর সেক্রেটারী- বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টারস সোসাইটি (ঢাকা উত্তর)
এক্সিকিউটিভ মেম্বার- ঢাকা উত্তর সাংবাদিক ফোরাম

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

ফোন:+88 01714043198

প্রধান কার্যালয়: গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

ব্রাঞ্চ অফিস: ২৪৭ পশ্চিম মনিপুর, ২য় তলা, মিরপুর-২, ঢাকা -১২১৬।

© Hbnews24 || Phone: +8801714043198, email: hbnews24@gmail.com