করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলাদেশে

নতুন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু
২৭৩ ১৫,৭৬,২৮৪ ১৫,৪০,৯৬৫ ২৭,৯৮১

ফুটবল ঈশ্বর ম্যারাডোনার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী আজ

ফুটবল ঈশ্বর আরমান্দো ডিয়াগো ম্যারাডোনাকে বিশ্বের শত কোটি ফুটবল ভক্তের চোখের ২৫ নভেম্বর ২০২০ সালে আড়াল নিয়ে গেলেও তার নৈপুণ্যে ভরপুর জাদুকরি স্বপ্লীন ফুটবল স্মৃতি হৃদয়ে পরিপূর্ণ থাকবে কোটি কোটি ফুটবল দর্শকের। ১৯৮৪ থেকে ১৯৯১ সাল, এই ৭ বছর তিনি ফুটবলের আলো ছড়িয়েছেন দক্ষিণ ইতালির দল নাপোলিতে। ইতালি ও নাপোলির মানুষও তাকে চিরকাল ভালোবেসেছে নিজের ঘরের ছেলের মতো। ফুটবল ঈশ্বর ম্যারাডোনার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে ইতালি ও নাপোলিসহ প্রবাসীদের প্রতিক্রিয়া তুলে ধরছেন।বিশ্ব ফুটবলের ঈশ্বর, উজ্জ্বল নক্ষত্র ম্যারাডোনার মৃত্যুর একটি বছর কেটে গেলো। ৬০ বছর বয়সে পৃথিবীর কাউকে কিছু না বলে ২৫ নভেম্বর ২০২০ ওপারে প্রস্থান করলেও তার আলোকিত উজ্জ্বল ক্যারিয়ার বিশ্ব ফুটবল প্রেমীদের হৃদয় জুড়ে বেঁচে থাকবে চিরকাল। আর্জেন্টাইন সুপারস্টার ম্যারাডোনার নৈপুণ্যে নিজ দেশ আর্জেন্টিনাকে এনে দেন বিশ্বকাপ ট্রফিসহ অগণিত সাফল্য। তাই দেশের মানুষের হৃদয়ে তার স্থান সবার উপরে।
১৯৮৪ সালে ২৪ বছর বয়সের দুর্বার ক্যারিয়ারের টগবগে ফুটবল তারকা দিয়েগো আরমানদো ম্যারাডোনা যোগ দেন দক্ষিণ ইতালির সাদামাটা দল নাপোলিতে। ক্লাব ফুটবলের উজ্জ্বল নক্ষত্র ম্যারাডোনা, তার একক নৈপুণ্যে অখ্যাত নাপোলির ঘরে তুলেন ইউরোপ সেরা চ্যাম্পিয়ন ট্রফি এবং সেই সঙ্গে দুই দুইবার হাত উঁচিয়ে ধরেন ইতালীয় “সিরি আ” ট্রফিও। বিশ্বময় ছড়িয়ে পড়ে নাপোলি ক্লাবের নাম। নাপোলি ছিল ফুটবল ঈশ্বর ম্যারাডোনার ক্যারিয়ারের উজ্জ্বলতম অধ্যায়। তিনি নাপোলিকে উজাড় করে দিয়েছেন, সেই সঙ্গে নাপোলিও তাকে চিরদিন মনে রাখার জন্য তার গায়ে জড়ানো ১০ নাম্বার জার্সি কাউকে কখনো দেবেনা বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তার মৃত্যুর পর নাপোলির “সাম পাওলো” স্টেডিয়ামের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় “দিয়েগো আরমানদো ম্যারাডোনা স্টেডিয়াম”। তার প্রতি ভালোবাসা কানায় কানায় পূর্ণ ইতালীয় ও নাপোলি বাসীর হৃদয় চিরকাল।ফুটবল পাগল দেশ ইতালিতে বাস করে প্রায় দুই লাখ প্রবাসী বাংলাদেশি। ফুটবল ঈশ্বর ম্যারাডোনার প্রতি তাদেরও ভালোবাসা ও সমবেদনার কমতি নেই।
পৃথিবী ছেড়ে ফুটবল ঈশ্বর ম্যারাডোনা আজ এক বছর হলো ওপারে পাড়ি জমালেও যতদিন ফুটবল বেঁচে থাকবে, সেই সঙ্গে তার উজ্জ্বলতম ক্যারিয়ারের ঐশ্বরিক ফুটবলের জন্য ইতিহাসে সেরাদের সেরা হয়ে থাকবেন তিনি শতাব্দীর পর শতাব্দী।
ক্রীড়া ডেস্ক,বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

সর্বশেষ আপডেট



» নতুন করে আরও ২৭৩ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত, মৃত্যু ১ জন

» আয়কর রিটার্ন দাখিল ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত এই সময়সীমা বৃদ্ধি করা হয়েছে

» বিশিষ্ট নজরুল গবেষক জাতীয় অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম মারা গেছেন

» দেশে ওমিক্রনের প্রবেশ ঠেকাতে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে সরকার

» নিরাপদ সড়কের দাবিতে বিআরটিএ কার্যালয়ের সামনে শিক্ষার্থীদের অবস্থান

» পাকিস্তানের কাছে ৮ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ

» আগামী কাল ১ ডিসেম্বর থেকে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া কার্যকর

» গাজীপুরের জরুন এলাকায় একটি গার্মেন্টসে আগুন

» নয়াপল্টনে শুরু হয়েছে বিএনপির সমাবেশ

» রামপুরায় সড়ক অবরোধ করে রেখেছে শিক্ষার্থীরা

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ বুধবার, ১ ডিসেম্বর ২০২১ খ্রিষ্টাব্দ, ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ফুটবল ঈশ্বর ম্যারাডোনার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী আজ




ফুটবল ঈশ্বর আরমান্দো ডিয়াগো ম্যারাডোনাকে বিশ্বের শত কোটি ফুটবল ভক্তের চোখের ২৫ নভেম্বর ২০২০ সালে আড়াল নিয়ে গেলেও তার নৈপুণ্যে ভরপুর জাদুকরি স্বপ্লীন ফুটবল স্মৃতি হৃদয়ে পরিপূর্ণ থাকবে কোটি কোটি ফুটবল দর্শকের। ১৯৮৪ থেকে ১৯৯১ সাল, এই ৭ বছর তিনি ফুটবলের আলো ছড়িয়েছেন দক্ষিণ ইতালির দল নাপোলিতে। ইতালি ও নাপোলির মানুষও তাকে চিরকাল ভালোবেসেছে নিজের ঘরের ছেলের মতো। ফুটবল ঈশ্বর ম্যারাডোনার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে ইতালি ও নাপোলিসহ প্রবাসীদের প্রতিক্রিয়া তুলে ধরছেন।বিশ্ব ফুটবলের ঈশ্বর, উজ্জ্বল নক্ষত্র ম্যারাডোনার মৃত্যুর একটি বছর কেটে গেলো। ৬০ বছর বয়সে পৃথিবীর কাউকে কিছু না বলে ২৫ নভেম্বর ২০২০ ওপারে প্রস্থান করলেও তার আলোকিত উজ্জ্বল ক্যারিয়ার বিশ্ব ফুটবল প্রেমীদের হৃদয় জুড়ে বেঁচে থাকবে চিরকাল। আর্জেন্টাইন সুপারস্টার ম্যারাডোনার নৈপুণ্যে নিজ দেশ আর্জেন্টিনাকে এনে দেন বিশ্বকাপ ট্রফিসহ অগণিত সাফল্য। তাই দেশের মানুষের হৃদয়ে তার স্থান সবার উপরে।
১৯৮৪ সালে ২৪ বছর বয়সের দুর্বার ক্যারিয়ারের টগবগে ফুটবল তারকা দিয়েগো আরমানদো ম্যারাডোনা যোগ দেন দক্ষিণ ইতালির সাদামাটা দল নাপোলিতে। ক্লাব ফুটবলের উজ্জ্বল নক্ষত্র ম্যারাডোনা, তার একক নৈপুণ্যে অখ্যাত নাপোলির ঘরে তুলেন ইউরোপ সেরা চ্যাম্পিয়ন ট্রফি এবং সেই সঙ্গে দুই দুইবার হাত উঁচিয়ে ধরেন ইতালীয় “সিরি আ” ট্রফিও। বিশ্বময় ছড়িয়ে পড়ে নাপোলি ক্লাবের নাম। নাপোলি ছিল ফুটবল ঈশ্বর ম্যারাডোনার ক্যারিয়ারের উজ্জ্বলতম অধ্যায়। তিনি নাপোলিকে উজাড় করে দিয়েছেন, সেই সঙ্গে নাপোলিও তাকে চিরদিন মনে রাখার জন্য তার গায়ে জড়ানো ১০ নাম্বার জার্সি কাউকে কখনো দেবেনা বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তার মৃত্যুর পর নাপোলির “সাম পাওলো” স্টেডিয়ামের নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় “দিয়েগো আরমানদো ম্যারাডোনা স্টেডিয়াম”। তার প্রতি ভালোবাসা কানায় কানায় পূর্ণ ইতালীয় ও নাপোলি বাসীর হৃদয় চিরকাল।ফুটবল পাগল দেশ ইতালিতে বাস করে প্রায় দুই লাখ প্রবাসী বাংলাদেশি। ফুটবল ঈশ্বর ম্যারাডোনার প্রতি তাদেরও ভালোবাসা ও সমবেদনার কমতি নেই।
পৃথিবী ছেড়ে ফুটবল ঈশ্বর ম্যারাডোনা আজ এক বছর হলো ওপারে পাড়ি জমালেও যতদিন ফুটবল বেঁচে থাকবে, সেই সঙ্গে তার উজ্জ্বলতম ক্যারিয়ারের ঐশ্বরিক ফুটবলের জন্য ইতিহাসে সেরাদের সেরা হয়ে থাকবেন তিনি শতাব্দীর পর শতাব্দী।
ক্রীড়া ডেস্ক,বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
প্রধান নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Hbnews24 || Phone: +8801714043198, email: hbnews24@gmail.com