করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলাদেশে

নতুন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু
২২৮৫ ১৯,৮০,৯৭৪ ১৯,০৮,৭৭৯ ২৯,১৭৪

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের উৎসব শুধু পদ্মার পাড়ে সীমাবদ্ধ না রেখে সারা দেশে করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের উৎসব শুধু পদ্মার পাড়ে সীমাবদ্ধ না রেখে সারা দেশে করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার (জুন ১৬) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে পল্লী জনপদ, রংপুর এবং বঙ্গবন্ধু দারিদ্র্য বিমোচন ও পল্লী উন্নয়ন একাডেমি (বাপার্ড), কোটালীপাড়া, গোপালগঞ্জের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘পদ্মা সেতু উদ্বোধনের উৎসব শুধু পদ্মাপাড়ে হবে না, সারা বাংলাদেশে উৎসবটা করবেন। আমি চাচ্ছি বাংলাদেশের প্রত্যেক জেলায় উৎসব হোক কারণ এটা আমাদের জন্য বিরাট চ্যালেঞ্জের ব্যাপার ছিল। ’

পদ্মা সেতু চালুর পর সবাইকে নিয়ম মেনে গাড়ি চালানোর আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধন করতে যাচ্ছি। সবাইকে অনুরোধ করবো সবাই একটু ধৈর্য ধরে চলবেন। গাড়ি নিয়ে কেউ প্রতিযোগিতা করবেন না। কে আগে গেল পরে গেল এসব করবেন না। অর্থাৎ কোনো রকম দুর্ঘটনা যেন না ঘটে সেদিকে লক্ষ্য রেখে সবাই চলাচল করবেন। ’দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের জীবনমান উন্নয়নে পদ্মা সেতু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘পদ্মা সেতু নির্মাণ হয়ে গেছে। যে দক্ষিণ অঞ্চল সারাজীবন অবহেলিত, আর অবহেলিত থাকবে না। যোগাযোগ ব্যবস্থা যদি একটা জায়গায় হয়, সেখানকার অর্থনৈতিক উন্নয়ন এমনিতেই হয়ে যায়। আমরা দক্ষিণ অঞ্চলের মানুষ, পদ্মা পাড়ের মানুষ সব সময় তো অবহেলিত ছিলাম। দারিদ্র্য আমাদের নিত্যসঙ্গী। আর সেটা থাকবে না। ’

পদ্মা সেতু নির্মাণে কারিগরি চ্যালেঞ্জের কথা তুলে ধরে সরকার প্রধান বলেন, ‘বিশ্বের সব থেকে খরস্রোতা নদী আমাজন, তারপর হচ্ছে পদ্মা। আমরা এখানে সেতু করতে পারি এটা অনেকেরই ধারণা ছিল না। এটা দ্বিতল সেতু—নিচ দিয়ে ট্রেন যাবে, ওপর দিয়ে গাড়ি যাবে। এটা একটা কঠিন কাজ। পৃথিবীতে এই ধরনের কাজ বোধ হয় এটাই প্রথম। এখানে যেসব মেশিনারিজ ব্যবহার করা হয়, এটা বোধ হয় আর কোথাও হয়নি। এর যে বাধা ছিল সেটাও আপনারা জানেন। ’

নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণের ঘোষণার পর এ সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়ে দেশের মানুষ এগিয়ে এসেছিল জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, ‘এভাবে মানুষের যে অভূতপূর্ব সাড়া এটাই আমাকে সাহস জুগিয়েছিল। এটাই আমাকে শক্তি জুগিয়েছিল। কারণ মানুষের শক্তিতেই আমি বিশ্বাস করি। আজকে এই পদ্মা সেতু আমরা আমাদের সম্পূর্ন নিজস্ব অর্থায়নে আমরা তৈরি করতে পেরেছি। এত বাধা বিঘ্ন অতিক্রম করে। ’শেখ হাসিনা বলেন, ‘এই পদ্মা সেতু নিয়ে কত কথা,কত অপবাদ দেওয়ার চেষ্টা করেছে। কানাডা কোর্ট মামলায় রায় দিয়েছে যে ওয়ার্ল্ড ব্যাংক যে সমস্ত অভিযোগ এনেছে সব ভুয়া,মিথ্যা। দুর্নীতির কোনো অভিযোগ এখানে টেকে নাই। আমরা আমাদের পক্ষে রায় পেয়ে গিয়েছিলাম। কাজেই এই রকম বাধার সম্মুখীন হয়েও এই পদ্মা সেতু আমরা নির্মাণ সম্পন্ন করতে পেরেছি। এই সেতু নির্মাণের সঙ্গে যারা সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানাই আর আমি কৃতজ্ঞতা জানাই আমার দেশবাসীকে। সেই সময় দেশবাসীর থেকে যে অভূতপূর্ব সাড়া যদি আমি না পেতাম তাহলে এটা আমি করতে পারতাম না। ’
ঢাকা,বৃহস্পতিবার ১৬ জুন,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

সর্বশেষ আপডেট



» জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টাকারী কবি-ব্যবসায়ী আনিস লাইফ সাপোর্টে

» চট্টগ্রামের বিএম ডিপোর আগুন ও বিস্ফোরণের এক মাস পর আরও একজনের দেহাবশেষ উদ্ধার

» নতুন করে আরও ২২৮৫ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত, ১২ জনের মৃত্যু

» “হৃদয়ে কাগাবলা সামাজিক সংগঠনের” উদ্যোগে ফুড প্যাক বিতরন

» ঝিনাইদহে অটবি’র নতুন শো-রুমের উদ্বোধন

» কালকিনিতে মাদক বিরোধী আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

» ঝিনাইদহের ৪০ মণ ওজনের “দাদারাজ” কাঁপাবে কোরবানির হাট

» ঝিনাইদহে দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উদ্বোধন

» প্রতিদিন প্রথম ১০ জন পাচ্ছেন স্পেশাল গিফট: ডায়মন্ড ওয়ার্ল্ডে ঈদ ক্যাশ ব্যাক অফার

» প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানাতে সারিবদ্ধভাবে সড়কের পশে দাঁড়ান হাজারো মানুষ।

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

ফোন:+88 01714043198

প্রধান কার্যালয়: গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

ব্রাঞ্চ অফিস: ২৪৭ পশ্চিম মনিপুর, ২য় তলা, মিরপুর-২, ঢাকা -১২১৬।

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ মঙ্গলবার, ৫ জুলাই ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ, ২১শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের উৎসব শুধু পদ্মার পাড়ে সীমাবদ্ধ না রেখে সারা দেশে করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর




পদ্মা সেতু উদ্বোধনের উৎসব শুধু পদ্মার পাড়ে সীমাবদ্ধ না রেখে সারা দেশে করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার (জুন ১৬) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে পল্লী জনপদ, রংপুর এবং বঙ্গবন্ধু দারিদ্র্য বিমোচন ও পল্লী উন্নয়ন একাডেমি (বাপার্ড), কোটালীপাড়া, গোপালগঞ্জের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘পদ্মা সেতু উদ্বোধনের উৎসব শুধু পদ্মাপাড়ে হবে না, সারা বাংলাদেশে উৎসবটা করবেন। আমি চাচ্ছি বাংলাদেশের প্রত্যেক জেলায় উৎসব হোক কারণ এটা আমাদের জন্য বিরাট চ্যালেঞ্জের ব্যাপার ছিল। ’

পদ্মা সেতু চালুর পর সবাইকে নিয়ম মেনে গাড়ি চালানোর আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আগামী ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধন করতে যাচ্ছি। সবাইকে অনুরোধ করবো সবাই একটু ধৈর্য ধরে চলবেন। গাড়ি নিয়ে কেউ প্রতিযোগিতা করবেন না। কে আগে গেল পরে গেল এসব করবেন না। অর্থাৎ কোনো রকম দুর্ঘটনা যেন না ঘটে সেদিকে লক্ষ্য রেখে সবাই চলাচল করবেন। ’দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের জীবনমান উন্নয়নে পদ্মা সেতু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘পদ্মা সেতু নির্মাণ হয়ে গেছে। যে দক্ষিণ অঞ্চল সারাজীবন অবহেলিত, আর অবহেলিত থাকবে না। যোগাযোগ ব্যবস্থা যদি একটা জায়গায় হয়, সেখানকার অর্থনৈতিক উন্নয়ন এমনিতেই হয়ে যায়। আমরা দক্ষিণ অঞ্চলের মানুষ, পদ্মা পাড়ের মানুষ সব সময় তো অবহেলিত ছিলাম। দারিদ্র্য আমাদের নিত্যসঙ্গী। আর সেটা থাকবে না। ’

পদ্মা সেতু নির্মাণে কারিগরি চ্যালেঞ্জের কথা তুলে ধরে সরকার প্রধান বলেন, ‘বিশ্বের সব থেকে খরস্রোতা নদী আমাজন, তারপর হচ্ছে পদ্মা। আমরা এখানে সেতু করতে পারি এটা অনেকেরই ধারণা ছিল না। এটা দ্বিতল সেতু—নিচ দিয়ে ট্রেন যাবে, ওপর দিয়ে গাড়ি যাবে। এটা একটা কঠিন কাজ। পৃথিবীতে এই ধরনের কাজ বোধ হয় এটাই প্রথম। এখানে যেসব মেশিনারিজ ব্যবহার করা হয়, এটা বোধ হয় আর কোথাও হয়নি। এর যে বাধা ছিল সেটাও আপনারা জানেন। ’

নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণের ঘোষণার পর এ সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়ে দেশের মানুষ এগিয়ে এসেছিল জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

তিনি বলেন, ‘এভাবে মানুষের যে অভূতপূর্ব সাড়া এটাই আমাকে সাহস জুগিয়েছিল। এটাই আমাকে শক্তি জুগিয়েছিল। কারণ মানুষের শক্তিতেই আমি বিশ্বাস করি। আজকে এই পদ্মা সেতু আমরা আমাদের সম্পূর্ন নিজস্ব অর্থায়নে আমরা তৈরি করতে পেরেছি। এত বাধা বিঘ্ন অতিক্রম করে। ’শেখ হাসিনা বলেন, ‘এই পদ্মা সেতু নিয়ে কত কথা,কত অপবাদ দেওয়ার চেষ্টা করেছে। কানাডা কোর্ট মামলায় রায় দিয়েছে যে ওয়ার্ল্ড ব্যাংক যে সমস্ত অভিযোগ এনেছে সব ভুয়া,মিথ্যা। দুর্নীতির কোনো অভিযোগ এখানে টেকে নাই। আমরা আমাদের পক্ষে রায় পেয়ে গিয়েছিলাম। কাজেই এই রকম বাধার সম্মুখীন হয়েও এই পদ্মা সেতু আমরা নির্মাণ সম্পন্ন করতে পেরেছি। এই সেতু নির্মাণের সঙ্গে যারা সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানাই আর আমি কৃতজ্ঞতা জানাই আমার দেশবাসীকে। সেই সময় দেশবাসীর থেকে যে অভূতপূর্ব সাড়া যদি আমি না পেতাম তাহলে এটা আমি করতে পারতাম না। ’
ঢাকা,বৃহস্পতিবার ১৬ জুন,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

ফোন:+88 01714043198

প্রধান কার্যালয়: গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

ব্রাঞ্চ অফিস: ২৪৭ পশ্চিম মনিপুর, ২য় তলা, মিরপুর-২, ঢাকা -১২১৬।

© Hbnews24 || Phone: +8801714043198, email: hbnews24@gmail.com