করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলাদেশে

নতুন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু
২৫৯ ২০,০৯,১২৯ ১৯,৫১,৭৩৭ ২৯,৩১৪

এই দিনে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান একুশে পদকপ্রাপ্ত গণসংগীত শিল্পী ফকির আলমগীর

একাত্তরের কণ্ঠযোদ্ধা প্রখ্যাত গণসংগীত শিল্পী ফকির আলমগীর। করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত বছরের এই দিনে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান একুশে পদকপ্রাপ্ত গণসংগীত শিল্পী ফকির আলমগীর। আজ তার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী।এ উপলক্ষে বিশেষ কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। শনিবার (২৩ জুলাই) সকালে খিলগাঁও তালতলা কবরস্থানে তার কবরে কোরআন তেলওয়াত ও রুহের মাগফিরাতের জন্য দোয়া করা হয়। এছাড়া তার পরিবার, ঋষিজ শিল্পীগোষ্ঠী ও বাংলাদেশ গণসংগীত সমন্বয় পরিষদসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে পুষ্পাঞ্জলি প্রদানের মাধ্যমে শিল্পীর প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হবে। বিকেল ৫টায় বাংলাদেশ গণসংগীত সমন্বয় পরিষদের আয়োজনে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে কথা ও গানে ফকির আলমগীরকে স্মরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি। আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আসাদুজ্জামান নূর এমপি, মামুনুর রশীদ, গোলাম কুদ্দুছ, ড. মুহাম্মদ সামাদ, লিয়াকত আলী লাকী, মাহফুজুর রহমান, মো. আহকাম উল্লাহ্, সুরাইয়া আলমগীর ও মানজার চৌধুরী সুইট। সভাপতিত্ব করবেন কাজী মিজানুর রহমান।

ফকির আলমগীর ষাটের দশক থেকে গণসংগীতের সঙ্গে যুক্ত হন। তিনি ক্রান্তি শিল্পী গোষ্ঠী ও গণশিল্পী গোষ্ঠীর সদস্য হিসেব ১৯৬৯-এর গণঅভ্যুত্থানে শামিল হন। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে যোগ দেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রে। স্বাধীনতার পর পাশ্চাত্য সংগীতের সঙ্গে দেশীয় সুরের মেলবন্ধন ঘটিয়ে বাংলা পপ গানের বিকাশে ভূমিকা রাখেন গুণী এই শিল্পী। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে তার কণ্ঠের বেশ কয়েকটি গান জনপ্রিয়তা পায়। এর মধ্যে ‘ও সখিনা’ গানটি এখনও মানুষের মুখে মুখে ফেরে। ১৯৮২ সালের বিটিভির আনন্দমেলা অনুষ্ঠানে গানটি প্রচারের পর দর্শকদের মাঝে সাড়া ফেলে।

শুধু গায়ক নন, তিনি একজন লেখকও ছিলেন। ১৯৮৪ সালে তার প্রথম বই ‘চেনা চায়না’ প্রকাশ করেন। ২০১৩ সালে তিনি ৩টি বই প্রকাশ করেন-অমর কথা, যারা আছে হৃদয় পটে এবং স্মৃতি আলাপনে মুক্তিযুদ্ধ। তিনি মোট নয়টি বই রচনা করেছেন।

তিনি সাংস্কৃতিক সংগঠন ঋষিজ শিল্পীগোষ্ঠীর প্রতিষ্ঠাতা, গণসংগীত চর্চার আরেক সংগঠন গণসংগীত শিল্পী পরিষদের সাবেক সভাপতি।
সংগীতে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য ১৯৯৯ সালে ফকির আলমগীর একুশে পদক পান। এছাড়া ভাসানী পদক, সিকোয়েন্স সম্মাননা পদকসহ পেয়েছেন নানা পুরস্কার।
বিনোদন ডেস্ক,শনিবার ২৩ জুলাই,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

সর্বশেষ আপডেট



» নতুন করে আরও ২৫৯ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত, ১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

» কলাপাড়ায় জাতীয় শোক দিবস পালিত।। দুস্থ, অসহায় প্রতিবন্ধীদের মাঝে খাবার বিতরণ

» আমতলীতে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতীয় শোক দিবস পালিত

» রাজধানীর উত্তরায় ক্রেন থেকে গার্ডার পড়ে প্রাইভেটকারে থাকা ৩ জন যাত্রী নিহত

» রাজধানীর চকবাজারে পলিথিন কারখানায় লাগা আগুনে ছয়জনের মরদেহ উদ্ধার

» রাজধানীর চকবাজারে পলিথিন কারখানায় লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে

» জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে বাড্ডা ২১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের খাবার বিতরন

» মাধবদী তে বঙ্গবন্ধুর ৪৭তমসাহাদাৎ বার্ষিকী পালিত।

» ঢাকা -১৬ আসনসহ রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে অসহায় ও সুবিধা বঞ্চিত মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ

» রাজধানীর চকবাজারে পলিথিন কারখানায় আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ১০টি ইউনিট

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

 

প্রকাশক ও সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

 

বার্তা সম্পাদক: কামাল হোসেন খান

 

সহ বার্তা সম্পাদক: কাজী আতিকুর রহমান আতিক (আবির)

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ, ৩১শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

এই দিনে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান একুশে পদকপ্রাপ্ত গণসংগীত শিল্পী ফকির আলমগীর




একাত্তরের কণ্ঠযোদ্ধা প্রখ্যাত গণসংগীত শিল্পী ফকির আলমগীর। করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত বছরের এই দিনে না ফেরার দেশে পাড়ি জমান একুশে পদকপ্রাপ্ত গণসংগীত শিল্পী ফকির আলমগীর। আজ তার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী।এ উপলক্ষে বিশেষ কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। শনিবার (২৩ জুলাই) সকালে খিলগাঁও তালতলা কবরস্থানে তার কবরে কোরআন তেলওয়াত ও রুহের মাগফিরাতের জন্য দোয়া করা হয়। এছাড়া তার পরিবার, ঋষিজ শিল্পীগোষ্ঠী ও বাংলাদেশ গণসংগীত সমন্বয় পরিষদসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে পুষ্পাঞ্জলি প্রদানের মাধ্যমে শিল্পীর প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হবে। বিকেল ৫টায় বাংলাদেশ গণসংগীত সমন্বয় পরিষদের আয়োজনে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি নাট্যশালার মূল মিলনায়তনে কথা ও গানে ফকির আলমগীরকে স্মরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি। আলোচক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আসাদুজ্জামান নূর এমপি, মামুনুর রশীদ, গোলাম কুদ্দুছ, ড. মুহাম্মদ সামাদ, লিয়াকত আলী লাকী, মাহফুজুর রহমান, মো. আহকাম উল্লাহ্, সুরাইয়া আলমগীর ও মানজার চৌধুরী সুইট। সভাপতিত্ব করবেন কাজী মিজানুর রহমান।

ফকির আলমগীর ষাটের দশক থেকে গণসংগীতের সঙ্গে যুক্ত হন। তিনি ক্রান্তি শিল্পী গোষ্ঠী ও গণশিল্পী গোষ্ঠীর সদস্য হিসেব ১৯৬৯-এর গণঅভ্যুত্থানে শামিল হন। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে যোগ দেন স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রে। স্বাধীনতার পর পাশ্চাত্য সংগীতের সঙ্গে দেশীয় সুরের মেলবন্ধন ঘটিয়ে বাংলা পপ গানের বিকাশে ভূমিকা রাখেন গুণী এই শিল্পী। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে তার কণ্ঠের বেশ কয়েকটি গান জনপ্রিয়তা পায়। এর মধ্যে ‘ও সখিনা’ গানটি এখনও মানুষের মুখে মুখে ফেরে। ১৯৮২ সালের বিটিভির আনন্দমেলা অনুষ্ঠানে গানটি প্রচারের পর দর্শকদের মাঝে সাড়া ফেলে।

শুধু গায়ক নন, তিনি একজন লেখকও ছিলেন। ১৯৮৪ সালে তার প্রথম বই ‘চেনা চায়না’ প্রকাশ করেন। ২০১৩ সালে তিনি ৩টি বই প্রকাশ করেন-অমর কথা, যারা আছে হৃদয় পটে এবং স্মৃতি আলাপনে মুক্তিযুদ্ধ। তিনি মোট নয়টি বই রচনা করেছেন।

তিনি সাংস্কৃতিক সংগঠন ঋষিজ শিল্পীগোষ্ঠীর প্রতিষ্ঠাতা, গণসংগীত চর্চার আরেক সংগঠন গণসংগীত শিল্পী পরিষদের সাবেক সভাপতি।
সংগীতে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্য ১৯৯৯ সালে ফকির আলমগীর একুশে পদক পান। এছাড়া ভাসানী পদক, সিকোয়েন্স সম্মাননা পদকসহ পেয়েছেন নানা পুরস্কার।
বিনোদন ডেস্ক,শনিবার ২৩ জুলাই,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



 

প্রকাশক ও সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

 

বার্তা সম্পাদক: কামাল হোসেন খান

 

সহ বার্তা সম্পাদক: কাজী আতিকুর রহমান আতিক (আবির)

প্রধান কার্যালয়: গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২ | ব্রাঞ্চ অফিস: ২৪৭ পশ্চিম মনিপুর, ২য় তলা, মিরপুর-২, ঢাকা -১২১৬।

Phone: +8801714043198, Email: hbnews24@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি । সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © HBnews24.com