করোনা ভাইরাস লাইভ

বাংলাদেশে

নতুন আক্রান্ত মোট আক্রান্ত সুস্থ মৃত্যু
২৩ ২০,৩৬,৫১১ ১৯,৮৫,৪৯৯ ২৯,৪৩১

তিউনিশিয়ার বিপক্ষে ড্রতেই সন্তুষ্ট থাকতে হলো ডেনমার্ককে

ফেভারিটের তকমা নিয়েই তিউনিসিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল ডেনমার্ক। তবে ম্যাচের মধ্যে দেখা যায় ভিন্ন রূপ; ডেনিশদের একবিন্দু ছাড় দেয়নি তিউনিসিয়া। মুহুর্মুহু আক্রমণের পরও গোলের দেখা পায়নি কোনো দল। শেষ পর্যন্ত তিউনিশিয়ার বিপক্ষে ড্রতেই সন্তুষ্ট থাকতে হলো এরিকসেনদের।

কাতারের এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে শুরু থেকেই আক্রমণের কমতি ছিল না কোনো পক্ষের। তিউনিশিয়ার জাল লক্ষ্য করে ১১টি শট নিয়েছে ডেনমার্ক। ৫টি ছিল অন টার্গেট। অন্যদিকে সমানতালে লড়েছে তিউনিসিয়াও। ১৩টি শট নিয়েছে তিউনিসিয়া। ১টি ছিল অন টার্গেট। বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ছিল ডেনমার্ক। তাদের পায়ে ৬১ শতাংশ সময় বল রেখেছিল। দুই গোলরক্ষক কিছু নিশ্চিত গোল সেভ করেছেন। তাতেই ম্যাচে পার্থক্য গড়ে দেয়।ম্যাচের শুরুতে বল দখলে আধিপত্য দেখালেও তিউনিসিয়ার রক্ষণভাগের কাছে বার বার বল হারাচ্ছিলেন ক্রিস্টিয়ান এরিকসেনরা। সুযোগ বুঝে পাল্টা আক্রমণে ভীতি ছড়িয়েছে তিউনিসিয়াও। ১১তম মিনিটেই বিপদে পড়তে বসেছিল ডেনিশরা। তিউনিসিয়ার মিডফিল্ডার মোহামেদ দ্রাগারের শট আন্দ্রেয়াস ক্রিস্টেনসেনের গায়ে লেগে পোস্টের সামান্য বাইরে দিয়ে যায়।

২৪তম মিনিটে তো গোলও খেয়ে বসে তারা। তবে ইসাম জেবালির শট জালভেদ করার আগেই অফসাইডের পতাকা তোলেন লাইন্সম্যান। ১০ মিনিট পর পিয়া-এমিল হয়বিয়ার শট ঠেকান তিউনিসিয়ার গোলরক্ষক আয়মান ডাহমেন।বিরতির আগে ডেনমার্ককে গোল হজম থেকে রক্ষা করেন স্মাইকেল। ওয়ান টু ওয়ান পজিশনে গোল করতে ব্যর্থ হন জেবালি। তার শট এগিয়ে এসে এক হাতে কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন স্মাইকেল। শেষ পর্যন্ত গোলশূন্য ড্র নিয়ে প্রথমার্ধ শেষ করে দুই দল।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে আক্রমণে আধিপত্য দেখায় তিউনিসিয়া। ২৩ মিনিটের ব্যবধানে তারা গোলের উদ্দেশ্যে ৬টি শট নেয়। তবে এর কোনোটাই ছিল না লক্ষ্য বরাবর। অন্যদিকে ৬৮ মিনিটে আক্রমণে উঠে তিউনিসিয়ার শিবিরে ভয় ধরিয়ে দেন এরিকসেন। ডি-বক্সের বাইরে থেকে তার নেয়া দুর্দান্ত শট কোনোরকমে ফিরিয়ে দেন ডাহমেন।

পরের মিনিটে কর্নার থেকে এরিকসেনের শট হেডে প্রায় জালবন্দি করে ফেলেছিলেন ক্রিস্টেনসেন। তবে দুর্ভাগ্যক্রমে বলটি বারে লেগে ফিরে আসে। ৭৮ মিনিটে নাঈম স্লিতিকে ফাউল করে হলুদ কার্ড দেখেন ম্যাথিয়াস জেনসেন। একটি গোলের জন্য মরিয়া হয়ে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত দুই দল সমান তালে লড়েছে। তবে লড়াইটা মাঝমাঠেই সীমাবদ্ধ থেকেছে। চরম ব্যর্থ হয়েছে দুই দলের ফরোয়ার্ডরা।ম্যাচের অতিরিক্ত মিনিটে অবশ্য গোলের উদ্দেশ্যে একাধিক আক্রমণ চালিয়েছে ডেনিশ ফরোয়ার্ডরা। তবে ভাগ্য সহায় হয়নি তাদের। তিউনিসিয়ার গোলবারের অতন্ত্রপ্রহরি ডাহমেন বার বার হতাশ করেছে এরিকসেনদের। কাতার বিশ্বকাপ মাঠে গড়ানোর পর এই প্রথম গোলশূন্য কোনো ম্যাচ দেখল ফুটবল বিশ্ব।
ক্রীড়া ডেস্ক,মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

সর্বশেষ আপডেট



» মেক্সিকোকে ২-০ গোলে হারিয়েছে আর্জেন্টিনা

» ডেনমার্ককে ২-১ গোলে হারিয়ে প্রথম দল হিসেবে শেষ ষোলোয় ফ্রান্স

» চাঁদপুরে মতলবে ট্রলির সঙ্গে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে তিনজন নিহত

» সৌদি আরবের বিরুদ্ধে ২-০ গোলে জয় পেয়েছে পোল্যান্ড

» নারীদের অধিকার নিয়ে বঙ্গবন্ধু সবসময় সোচ্চার ছিলেন।বর্তমান সরকারও নারীদের অধিকার উন্নয়নে কাজ করে চলেছে

» নতুন করে আরও ২৩ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত, কারও মৃত্যু হয়নি

» আমাদের চিনির কোনো অভাব নেই। রমজানকে সামনে রেখে বাজারে পর্যাপ্ত চিনির মজুদ

» নরসিংদীর শীবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশ সদস্যের মৃত্যু

» বঙ্গবন্ধু টানেলের ফলে আন্তর্জাতিকভাবে দেশের ভাবমূর্তি আরও উজ্জ্বলসহ অর্থনীতি গতিশীল হবে

» ব্রাজিলের দুটি স্কুলে অজ্ঞাত বন্দুকধারীদের গুলিতে অন্তত ৩ জনের মৃত্যু

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

 

প্রকাশক ও সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

 

সহ বার্তা সম্পাদক: কাজী আতিকুর রহমান আতিক (আবির)

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২ খ্রিষ্টাব্দ, ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

তিউনিশিয়ার বিপক্ষে ড্রতেই সন্তুষ্ট থাকতে হলো ডেনমার্ককে




ফেভারিটের তকমা নিয়েই তিউনিসিয়ার মুখোমুখি হয়েছিল ডেনমার্ক। তবে ম্যাচের মধ্যে দেখা যায় ভিন্ন রূপ; ডেনিশদের একবিন্দু ছাড় দেয়নি তিউনিসিয়া। মুহুর্মুহু আক্রমণের পরও গোলের দেখা পায়নি কোনো দল। শেষ পর্যন্ত তিউনিশিয়ার বিপক্ষে ড্রতেই সন্তুষ্ট থাকতে হলো এরিকসেনদের।

কাতারের এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে শুরু থেকেই আক্রমণের কমতি ছিল না কোনো পক্ষের। তিউনিশিয়ার জাল লক্ষ্য করে ১১টি শট নিয়েছে ডেনমার্ক। ৫টি ছিল অন টার্গেট। অন্যদিকে সমানতালে লড়েছে তিউনিসিয়াও। ১৩টি শট নিয়েছে তিউনিসিয়া। ১টি ছিল অন টার্গেট। বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ছিল ডেনমার্ক। তাদের পায়ে ৬১ শতাংশ সময় বল রেখেছিল। দুই গোলরক্ষক কিছু নিশ্চিত গোল সেভ করেছেন। তাতেই ম্যাচে পার্থক্য গড়ে দেয়।ম্যাচের শুরুতে বল দখলে আধিপত্য দেখালেও তিউনিসিয়ার রক্ষণভাগের কাছে বার বার বল হারাচ্ছিলেন ক্রিস্টিয়ান এরিকসেনরা। সুযোগ বুঝে পাল্টা আক্রমণে ভীতি ছড়িয়েছে তিউনিসিয়াও। ১১তম মিনিটেই বিপদে পড়তে বসেছিল ডেনিশরা। তিউনিসিয়ার মিডফিল্ডার মোহামেদ দ্রাগারের শট আন্দ্রেয়াস ক্রিস্টেনসেনের গায়ে লেগে পোস্টের সামান্য বাইরে দিয়ে যায়।

২৪তম মিনিটে তো গোলও খেয়ে বসে তারা। তবে ইসাম জেবালির শট জালভেদ করার আগেই অফসাইডের পতাকা তোলেন লাইন্সম্যান। ১০ মিনিট পর পিয়া-এমিল হয়বিয়ার শট ঠেকান তিউনিসিয়ার গোলরক্ষক আয়মান ডাহমেন।বিরতির আগে ডেনমার্ককে গোল হজম থেকে রক্ষা করেন স্মাইকেল। ওয়ান টু ওয়ান পজিশনে গোল করতে ব্যর্থ হন জেবালি। তার শট এগিয়ে এসে এক হাতে কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন স্মাইকেল। শেষ পর্যন্ত গোলশূন্য ড্র নিয়ে প্রথমার্ধ শেষ করে দুই দল।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে আক্রমণে আধিপত্য দেখায় তিউনিসিয়া। ২৩ মিনিটের ব্যবধানে তারা গোলের উদ্দেশ্যে ৬টি শট নেয়। তবে এর কোনোটাই ছিল না লক্ষ্য বরাবর। অন্যদিকে ৬৮ মিনিটে আক্রমণে উঠে তিউনিসিয়ার শিবিরে ভয় ধরিয়ে দেন এরিকসেন। ডি-বক্সের বাইরে থেকে তার নেয়া দুর্দান্ত শট কোনোরকমে ফিরিয়ে দেন ডাহমেন।

পরের মিনিটে কর্নার থেকে এরিকসেনের শট হেডে প্রায় জালবন্দি করে ফেলেছিলেন ক্রিস্টেনসেন। তবে দুর্ভাগ্যক্রমে বলটি বারে লেগে ফিরে আসে। ৭৮ মিনিটে নাঈম স্লিতিকে ফাউল করে হলুদ কার্ড দেখেন ম্যাথিয়াস জেনসেন। একটি গোলের জন্য মরিয়া হয়ে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত দুই দল সমান তালে লড়েছে। তবে লড়াইটা মাঝমাঠেই সীমাবদ্ধ থেকেছে। চরম ব্যর্থ হয়েছে দুই দলের ফরোয়ার্ডরা।ম্যাচের অতিরিক্ত মিনিটে অবশ্য গোলের উদ্দেশ্যে একাধিক আক্রমণ চালিয়েছে ডেনিশ ফরোয়ার্ডরা। তবে ভাগ্য সহায় হয়নি তাদের। তিউনিসিয়ার গোলবারের অতন্ত্রপ্রহরি ডাহমেন বার বার হতাশ করেছে এরিকসেনদের। কাতার বিশ্বকাপ মাঠে গড়ানোর পর এই প্রথম গোলশূন্য কোনো ম্যাচ দেখল ফুটবল বিশ্ব।
ক্রীড়া ডেস্ক,মঙ্গলবার ২২ নভেম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



 

প্রকাশক ও সম্পাদক: কাজী আবু তাহের মো. নাছির।

 

প্রধান নির্বাহী সম্পাদক: আফতাব খন্দকার (রনি)

 

সহ বার্তা সম্পাদক: কাজী আতিকুর রহমান আতিক (আবির)

প্রধান কার্যালয়: গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২ | ব্রাঞ্চ অফিস: ২৪৭ পশ্চিম মনিপুর, ২য় তলা, মিরপুর-২, ঢাকা -১২১৬।

Phone: +8801714043198, Email: hbnews24@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি । সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © HBnews24.com