মিশরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ মুরসি আদালতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন

Spread the love

মিশরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ মুরসি আজ সোমবার আদালতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। আদালতে মুরসির বিচার চলাকালে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়।সোমবার (১৭ জুন) রাতে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন ‘নীল’-এ ক্ষমতাচ্যুত প্রেসেডন্টের মৃত্যুর খবরটি দেওয়া হয়। মিশরের সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমও এ খবর দিয়েছে।সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, আদালতে শুনানির সময় মুরসি দীর্ঘ সময় বক্তব্য রাখছিলেন। প্রায় ২০ মিনিট বক্তব্য রাখার পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।
এসময় মুরসিকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়া হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে মৃত ঘোষণা করে। ২০১৩ সালে এক বিক্ষোভের জের ধরে মুরসিকে ক্ষমতাচ্যুত করেন দেশটির সেনা প্রধান আবদেল ফাত্তাহ আল সিসি। সিসি দেশের শাসনভার নিজের হাতে তুলে নেন।২০১৩ সালে মুরসির নেতৃত্বাধীন মুসলিম ব্রাদারহুডকে নিষিদ্ধ করা হয়। এর হাজার হাজার নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং বিভিন্ন অভিযোগে অনেককে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেয়া হয়। মুরসির বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, তিনি অর্থের বিনিময়ে কাতারের কাছে রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ও নথি পাচার করেছেন।
২০১৪ সালে তার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ আনা হয়েছিল। এরপর ২০১৬ সালের জুন মাসে তথ্য পাচারের এ মামলায় তাকে দোষী সাব্যস্ত করেন নিম্ন আদালত। আদালত দেশের গুরুত্বপূর্ণ নথি পাচারের অভিযোগে মুরসিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন।
মুরসির পুরো নাম মুহাম্মাদ মুরসি ইসা আল-আইয়াত। ১৯৫১ সালের ২০ অগাস্ট মিশরের শারক্বিয়া প্রদেশে জন্মগ্রহণ করেন।
রাষ্ট্রপতি হওয়া ছাড়াও মুরসি ২০০০ সালে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন এবং ২০০৫ সাল পর্যন্ত মিশরের সংসদে বহাল ছিলেন। এ সময় তিনি মুসলিম ব্রাদারহুডের একজন নেতৃত্ব স্থানীয় ব্যক্তিত্বে পরিণত হন। ২০১১ সালে মুসলিম ব্রাদারহুড ফ্রিডম অ্যান্ড জাস্টিস পার্টি (এফজেপি) নামে নতুন রাজনৈতিক দল গঠন করলে মুরসি তার চেয়ারম্যান নিযুক্ত হন।
এরপর তিনি মিশরের দুই পর্বের রাষ্ট্রপতি নির্বাচন, যেটি ২০১২ সালের মে ও জুনে অনুষ্ঠিত হয়, সে নির্বাচনে মুরসি এফজেপির মনোনীত প্রার্থী ছিলেন এবং উভয় পর্বেই সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন।
২০১২ সালে মুসলিম ব্রাদারহুড ও এফজেপি আনুষ্ঠানিকভাবে মুহাম্মাদ মুরসিকে তাদের সব সাংগঠনিক পদ থেকে অব্যাহতি দেয় এবং তাকে ‘মিশরের সর্বস্তরের মানুষের রাষ্ট্রপতি’ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়।
আন্তর্জাতিক ডেস্ক,সোমবার,১৭ জুন,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments
Download WordPress Themes Free
Premium WordPress Themes Download
Download Nulled WordPress Themes
Download Best WordPress Themes Free Download
free download udemy course

সর্বশেষ আপডেট



» পর্যায়ক্রমে সারাদেশে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ আর দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালিত হবে

» বঙ্গবন্ধুর আদর্শ মনে প্রাণে ধারণ করতে হবে: গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী

» চট্টগ্রামের তিনটি ক্লাবে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব,জব্দ করা হয়েছে জুয়ার সামগ্রী

» যুবলীগ নেতা জি কে শামীম দুই মামলায় ১০ দিনের রিমান্ডে

» কলাবাগান ক্রীড়াচক্রের সভাপতি শফিকুল আলম ফিরোজের দুই মামলায় ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

» জি কে শামীম ও তার সাত দেহরক্ষীসহ আটজনকে রাজধানীর গুলশান থানায় হস্তান্তর করেছে র্র‌্যাব

» সরকারের উচ্চপর্যায় থেকে তৃণমূলের কর্মী পর্যন্ত দুর্নীতিতে নিমজ্জিত-মির্জা ফখরুল

» গোপালগঞ্জে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় চার যাত্রী নিহত

» কলাবাগান স্পোর্টিং ক্লাব সভাপতি শফিকুল আলম ফিরোজকে আলাদতে নেয়া হচ্ছে

» রাজধানীর হাতিরঝিলে ভাসমান অবস্থায় অজ্ঞাত এক ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৭ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মিশরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ মুরসি আদালতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

মিশরের সাবেক প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ মুরসি আজ সোমবার আদালতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। আদালতে মুরসির বিচার চলাকালে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়।সোমবার (১৭ জুন) রাতে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন ‘নীল’-এ ক্ষমতাচ্যুত প্রেসেডন্টের মৃত্যুর খবরটি দেওয়া হয়। মিশরের সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমও এ খবর দিয়েছে।সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, আদালতে শুনানির সময় মুরসি দীর্ঘ সময় বক্তব্য রাখছিলেন। প্রায় ২০ মিনিট বক্তব্য রাখার পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।
এসময় মুরসিকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়া হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে মৃত ঘোষণা করে। ২০১৩ সালে এক বিক্ষোভের জের ধরে মুরসিকে ক্ষমতাচ্যুত করেন দেশটির সেনা প্রধান আবদেল ফাত্তাহ আল সিসি। সিসি দেশের শাসনভার নিজের হাতে তুলে নেন।২০১৩ সালে মুরসির নেতৃত্বাধীন মুসলিম ব্রাদারহুডকে নিষিদ্ধ করা হয়। এর হাজার হাজার নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয় এবং বিভিন্ন অভিযোগে অনেককে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেয়া হয়। মুরসির বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, তিনি অর্থের বিনিময়ে কাতারের কাছে রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ও নথি পাচার করেছেন।
২০১৪ সালে তার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ আনা হয়েছিল। এরপর ২০১৬ সালের জুন মাসে তথ্য পাচারের এ মামলায় তাকে দোষী সাব্যস্ত করেন নিম্ন আদালত। আদালত দেশের গুরুত্বপূর্ণ নথি পাচারের অভিযোগে মুরসিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন।
মুরসির পুরো নাম মুহাম্মাদ মুরসি ইসা আল-আইয়াত। ১৯৫১ সালের ২০ অগাস্ট মিশরের শারক্বিয়া প্রদেশে জন্মগ্রহণ করেন।
রাষ্ট্রপতি হওয়া ছাড়াও মুরসি ২০০০ সালে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন এবং ২০০৫ সাল পর্যন্ত মিশরের সংসদে বহাল ছিলেন। এ সময় তিনি মুসলিম ব্রাদারহুডের একজন নেতৃত্ব স্থানীয় ব্যক্তিত্বে পরিণত হন। ২০১১ সালে মুসলিম ব্রাদারহুড ফ্রিডম অ্যান্ড জাস্টিস পার্টি (এফজেপি) নামে নতুন রাজনৈতিক দল গঠন করলে মুরসি তার চেয়ারম্যান নিযুক্ত হন।
এরপর তিনি মিশরের দুই পর্বের রাষ্ট্রপতি নির্বাচন, যেটি ২০১২ সালের মে ও জুনে অনুষ্ঠিত হয়, সে নির্বাচনে মুরসি এফজেপির মনোনীত প্রার্থী ছিলেন এবং উভয় পর্বেই সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন।
২০১২ সালে মুসলিম ব্রাদারহুড ও এফজেপি আনুষ্ঠানিকভাবে মুহাম্মাদ মুরসিকে তাদের সব সাংগঠনিক পদ থেকে অব্যাহতি দেয় এবং তাকে ‘মিশরের সর্বস্তরের মানুষের রাষ্ট্রপতি’ হিসেবে স্বীকৃতি দেয়।
আন্তর্জাতিক ডেস্ক,সোমবার,১৭ জুন,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com