২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় পলাতকদের রায় কার্যকর সম্ভব, এ বছরই শুনানি শুরু: আইনমন্ত্রী

Spread the love

২১ আগস্ট ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা মামলায় পলাতক আসামিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা সম্ভব। আমরা সাজাপ্রাপ্ত সব আসামিদের ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু করেছি এবং তা চালিয়ে যাচ্ছি। একই সঙ্গে ২ থেকে ৪ মাসের মধ্যে মামলার পেপারবুক তৈরি হবে ও এ বছরের মধ্যে শুনানি শুরু হবে বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। বুধবার (২১ আগস্ট) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের আইনমন্ত্রী এসব কথা বলেন।অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় পলাতক আসামিদের দেশে ফিরিয়ে আনাতে কিছুটা জটিলতা ছিল আজও আছে, সেটা সমাধানের চেষ্টা করছি। আমরা আশা করি, এই রায় কার্যকর করার জন্য তাদের ফিরিয়ে আনা আমাদের পক্ষে সম্ভব হবে। রায়ের ১০ মাস পেরিয়ে গেলেও এখনও হাইকোর্ট বিভাগে শুনানি হচ্ছে না কেন? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটা বেশি সময় নয়। আমরা বলতে পারি- আগামী ২ থেকে ৪ মাসের মধ্যে মামলাটির পেপারবুক তৈরি হয়ে যাবে, তখন শুনানি হবে। আর সেটা এ বছরের মধ্যেই।

তিনি বলেন, আজকে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার দিন। এই দিনে আইভি রহমানসহ ২২ জন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী নিহত হন। সব মিলিয়ে মারা যান ২৪ জন। আমি তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করি। আইনমন্ত্রী বলেন, আমরা প্রসিকিউশন থেকে দেখবো এই পেপারবুক তৈরির কাজটা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব-এটা যেন হয়। এই মামলার ২০১৪ সাল পর্যন্ত ৬১জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। ২০১৪ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত আরো ১৬৪ জনের সাক্ষী হয়।

‘সর্বমোট ২২৫ জনের সাক্ষী হয়। ফলে এই মামলার পেপারবুক অনেক বড় হবে। আমরা চেষ্টা করছি দ্রুত পেপারবুক তৈরি করে কার্যতালিকাভুক্ত করে মামলাটির শুনানি শুরু করবো,’ যোগ করেন তিনি।
ঢাকা,বুধবার, ২১ আগষ্ট,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments
Download WordPress Themes
Download Premium WordPress Themes Free
Download WordPress Themes
Download Premium WordPress Themes Free
free download udemy paid course

সর্বশেষ আপডেট



» সিদ্ধিরগঞ্জে মা ও দুই মেয়েকে হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত আব্বাস গ্রেফতার

» স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর সাথে ফিলিপাইনের বাংসামোরো প্রদেশের স্থানীয় সরকার মন্ত্রীর সাক্ষাৎ

» যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ ভুঁইয়ার ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

» ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন। সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল।

» প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকি দেওয়ার অভিযোগে শামসুজ্জামান দুদুর বিরুদ্ধে মামলা

» যুবলীগ নেতা খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে গুলশান থানায় হস্তান্তর করেছে র‌্যাব

» নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে মা ও ২ শিশু সন্তানের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার

» রাজধানীর বাড্ডায় শামসুজ্জামান দুদুর বক্তব্যের প্রতিবাদে মিছিল করেছে ছাত্রলীগ

» রাজধানীর আরও তিনটি ক্যাসিনোতে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)

» ক্যাসিনোর মালিক ঢাকা দ. যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে আটক করেছে র‌্যাব

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ খ্রিষ্টাব্দ, ৫ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় পলাতকদের রায় কার্যকর সম্ভব, এ বছরই শুনানি শুরু: আইনমন্ত্রী

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

২১ আগস্ট ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা মামলায় পলাতক আসামিদের দেশে ফিরিয়ে এনে রায় কার্যকর করা সম্ভব। আমরা সাজাপ্রাপ্ত সব আসামিদের ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু করেছি এবং তা চালিয়ে যাচ্ছি। একই সঙ্গে ২ থেকে ৪ মাসের মধ্যে মামলার পেপারবুক তৈরি হবে ও এ বছরের মধ্যে শুনানি শুরু হবে বলে মন্তব্য করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। বুধবার (২১ আগস্ট) সচিবালয়ে সাংবাদিকদের আইনমন্ত্রী এসব কথা বলেন।অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেন, ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় পলাতক আসামিদের দেশে ফিরিয়ে আনাতে কিছুটা জটিলতা ছিল আজও আছে, সেটা সমাধানের চেষ্টা করছি। আমরা আশা করি, এই রায় কার্যকর করার জন্য তাদের ফিরিয়ে আনা আমাদের পক্ষে সম্ভব হবে। রায়ের ১০ মাস পেরিয়ে গেলেও এখনও হাইকোর্ট বিভাগে শুনানি হচ্ছে না কেন? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটা বেশি সময় নয়। আমরা বলতে পারি- আগামী ২ থেকে ৪ মাসের মধ্যে মামলাটির পেপারবুক তৈরি হয়ে যাবে, তখন শুনানি হবে। আর সেটা এ বছরের মধ্যেই।

তিনি বলেন, আজকে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার দিন। এই দিনে আইভি রহমানসহ ২২ জন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী নিহত হন। সব মিলিয়ে মারা যান ২৪ জন। আমি তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করি। আইনমন্ত্রী বলেন, আমরা প্রসিকিউশন থেকে দেখবো এই পেপারবুক তৈরির কাজটা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব-এটা যেন হয়। এই মামলার ২০১৪ সাল পর্যন্ত ৬১জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। ২০১৪ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত আরো ১৬৪ জনের সাক্ষী হয়।

‘সর্বমোট ২২৫ জনের সাক্ষী হয়। ফলে এই মামলার পেপারবুক অনেক বড় হবে। আমরা চেষ্টা করছি দ্রুত পেপারবুক তৈরি করে কার্যতালিকাভুক্ত করে মামলাটির শুনানি শুরু করবো,’ যোগ করেন তিনি।
ঢাকা,বুধবার, ২১ আগষ্ট,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com