বিশ্বের কোন ধর্মেই মানুষ হত্যাকে বিশ্বাস করে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

Spread the love

ঢাকা : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি বলেছেন, কোন মাদ্রসা জঙ্গি তৈরি করে না। কেননা ইসলামে এটার কোন স্থান নেই। তাছাড়া বিশ্বের কোন ধর্মেই মানুষ হত্যাকে বিশ্বাস করে না।

মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) ২ দিনব্যাপী
আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় ‘উগ্রবাদবিরোধী জাতীয় সম্মেলন-২০১৯’ প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে আমাদের ছেলে মেয়ে যেন নিসঙ্গ, বিষণতা, একাকীত্বে না ভোগে। তাদের বিভিন্ন ভাবে এংগেজ করতে হবে। তাহলে তাদেরকে আমরা এমন মতবাদ বা চিন্তা ভাবনা থেকে দূরে রাখতে পারবো।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমি সবাইকে অনুরোধ করবো। ইন্টারনেটে কোনো কিছু দেখে সহজে বিশ্বাস করা। শুধুমাত্র নিশ্চিত হলেই সেটা বিশ্বাস করা উচিত। নিজের বুদ্ধিমত্তা কাজে লাগাতে হবে আমি বিশ্বাস করবো কি, করবো না।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ জঙ্গিবাদ নির্মুলে রোল মডেল। জঙ্গি দমনে আমরা অনেকটাই সফল হয়েছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জঙ্গিবাদ বিরোধী জিরো টলারেন্স ঘোষনা করেছিলেন, জঙ্গিবাদ দমনের জন্য নির্দেশ দিয়েছিলেন, সেই কাজটি আমাদের আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সুন্দরভাবে করেছেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, শান্তিপ্রিয় এই দেশে জঙ্গি, সন্ত্রাস আসবে এটা কোনভাবেই বিশ্বাস করা যায়না। আমাদের হাজার বছরের ইতিহাসে যুদ্ধ বিগ্রোহ হয়েছে কিন্তু জঙ্গি সন্ত্রাসের কাহিনী ছিলনা। হঠাৎ করেই টার্গেট কিলিং শুরু হলো। প্রথমে ইতালি নাগরিক, তারপর জাপানেরর নাগরিককে টার্গেট।

তাবে যে পরিস্থিতিই হোক না কেন সেখান থেকে আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছি। বাংলাদেশের জনগণ জঙ্গিবাদকে প্রশ্রয় দেয়নি।

বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. জাবেদ পাটোয়ারি বলেন,বিভিন্ন জঙ্গি আস্থানা থেকে গ্রেফতার হওয়া জঙ্গিরা কারাগারে আছে। কারাগারে তাদের ডি-রেডিকালাইজড করা যাচ্ছে না। তাদের সুপথে ফেরানোর জন্য অনেক কাজ করার আছে।

আইজিপি বলেন, যারা জঙ্গিবাদের অভিযোগে কারাগারে যাচ্ছে এবং মুক্ত হয়ে ফিরে আসছে তাদের পুনর্বাসন একটি পরিকল্পনা করতে হবে আমাদের।

তারা আমাদেরই সমাজের সন্তান তাদের মূল সমাজে ফিরিয়ে আনার প্রচেষ্টা থাকতে হবে। আমরা ইতিমধ্যে বিভিন্ন বাংলাদেশের মসজিদ গুলোর ইমামদেরকে মাদক, জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে প্রচার করতে বলেছি। এর ফলে যাদের জঙ্গিবাদের দিকে ঝুকে যাওয়ার ঝুকি রয়েছে, তারা ধর্ম সুষ্ঠু ব্যাখ্যা পেয়ে আর এপথে ঝুঁকবেন না।

আমি মনে করি, তাদের নিয়ে এনজিওরা অনেক কাজ করতে পারে।

আইজিপি বলেন, ২০১৬ সালের পরে আমাদের দেশে বেশ কিছু অভিযান হয়েছে। আমরা জঙ্গীদের এনকাউন্টার করেছি, ধংস করেছি বলেই এখন এর সুফল ভোগ করছি। কিন্তু বাইরে থেকে আমরা উগ্রবাদীদের চিহ্নিত করি, মামলা দেই, গ্রেফতার করে জেলে ঢুকাই। কিন্তু সেখানে গিয়ে তাদের সংশোধন হচ্ছে না।

তিনি বলেন, উগ্রবাদের মতো ধ্বংসাত্মক একটি বিষয় মোকাবেলা করার জন্য শুধু আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একার পক্ষে সম্ভব না। সমন্বিত প্রয়াসই উগ্রবাদিতা মোকাবেলা করতে পারে।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ( ডিএমপি ) কমিশনার মোঃ শফিকুল ইসলাম, ডিএমপি সিটিটিসির প্রধান ও ডিআইজি মনিরুল ইসলাম ও ডিএমপি ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার আব্দুল বাতেন সহ অনেক।
মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম,
ঢাকা,মঙ্গলবার,১০ ডিসেম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

সর্বশেষ আপডেট



» ১ ফেব্রুয়ারির পরিবর্তে ৩ ফেব্রুয়ারি শুরু হবে এসএসসি পরীক্ষা: শিক্ষা মন্ত্রণালয়

» ঢাকার দুই সিটির ভোটের তারিখ পরিবর্তন ৩০ জানুয়ারির পরিবর্তে ১ ফেব্রুয়ারি

» রাজু ভাস্কর্যের সামনে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙলেন শিক্ষার্থীরা

» নির্বাচনে পরাজয় নিশ্চিত জেনেই ইভিএমের বিরুদ্ধে বিএনপি নেতারা বিষদগার করছেন

» যশোরে প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বৈদ্যুতিক খুঁটির সঙ্গে ধাক্কা লেগে একই পরিবারের তিনজন নিহত

» রাজু ভাস্কর্যের সামনে তৃতীয় দিনের মতো আমরণ অনশন করছেন শিক্ষার্থীরা

» গোপালগঞ্জে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে বাসের দুই নারী যাত্রী নিহত

» বগুড়া-১ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) আব্দুল মান্নান ইন্তেকাল করেছেন

» খুলনা টাইগার্সকে ২১ রানে হারিয়ে বঙ্গবন্ধু বিপিএলের শিরোপা জিতল রাজশাহী রয়্যালস

» চলন্ত বাস থেকে একজন যাত্রীকে ফেলে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে বাসের হেলপারের বিরুদ্ধে

লাইক দিয়ে সংযুক্ত থাকুন

 

 

সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com
আজ শনিবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২০ খ্রিষ্টাব্দ, ৫ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিশ্বের কোন ধর্মেই মানুষ হত্যাকে বিশ্বাস করে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ইউটিউবে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:
Spread the love

ঢাকা : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এমপি বলেছেন, কোন মাদ্রসা জঙ্গি তৈরি করে না। কেননা ইসলামে এটার কোন স্থান নেই। তাছাড়া বিশ্বের কোন ধর্মেই মানুষ হত্যাকে বিশ্বাস করে না।

মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) ২ দিনব্যাপী
আন্তর্জাতিক কনভেনশন সিটি বসুন্ধরায় ‘উগ্রবাদবিরোধী জাতীয় সম্মেলন-২০১৯’ প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমাদের লক্ষ্য রাখতে হবে আমাদের ছেলে মেয়ে যেন নিসঙ্গ, বিষণতা, একাকীত্বে না ভোগে। তাদের বিভিন্ন ভাবে এংগেজ করতে হবে। তাহলে তাদেরকে আমরা এমন মতবাদ বা চিন্তা ভাবনা থেকে দূরে রাখতে পারবো।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আমি সবাইকে অনুরোধ করবো। ইন্টারনেটে কোনো কিছু দেখে সহজে বিশ্বাস করা। শুধুমাত্র নিশ্চিত হলেই সেটা বিশ্বাস করা উচিত। নিজের বুদ্ধিমত্তা কাজে লাগাতে হবে আমি বিশ্বাস করবো কি, করবো না।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ জঙ্গিবাদ নির্মুলে রোল মডেল। জঙ্গি দমনে আমরা অনেকটাই সফল হয়েছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জঙ্গিবাদ বিরোধী জিরো টলারেন্স ঘোষনা করেছিলেন, জঙ্গিবাদ দমনের জন্য নির্দেশ দিয়েছিলেন, সেই কাজটি আমাদের আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সুন্দরভাবে করেছেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, শান্তিপ্রিয় এই দেশে জঙ্গি, সন্ত্রাস আসবে এটা কোনভাবেই বিশ্বাস করা যায়না। আমাদের হাজার বছরের ইতিহাসে যুদ্ধ বিগ্রোহ হয়েছে কিন্তু জঙ্গি সন্ত্রাসের কাহিনী ছিলনা। হঠাৎ করেই টার্গেট কিলিং শুরু হলো। প্রথমে ইতালি নাগরিক, তারপর জাপানেরর নাগরিককে টার্গেট।

তাবে যে পরিস্থিতিই হোক না কেন সেখান থেকে আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছি। বাংলাদেশের জনগণ জঙ্গিবাদকে প্রশ্রয় দেয়নি।

বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. জাবেদ পাটোয়ারি বলেন,বিভিন্ন জঙ্গি আস্থানা থেকে গ্রেফতার হওয়া জঙ্গিরা কারাগারে আছে। কারাগারে তাদের ডি-রেডিকালাইজড করা যাচ্ছে না। তাদের সুপথে ফেরানোর জন্য অনেক কাজ করার আছে।

আইজিপি বলেন, যারা জঙ্গিবাদের অভিযোগে কারাগারে যাচ্ছে এবং মুক্ত হয়ে ফিরে আসছে তাদের পুনর্বাসন একটি পরিকল্পনা করতে হবে আমাদের।

তারা আমাদেরই সমাজের সন্তান তাদের মূল সমাজে ফিরিয়ে আনার প্রচেষ্টা থাকতে হবে। আমরা ইতিমধ্যে বিভিন্ন বাংলাদেশের মসজিদ গুলোর ইমামদেরকে মাদক, জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে প্রচার করতে বলেছি। এর ফলে যাদের জঙ্গিবাদের দিকে ঝুকে যাওয়ার ঝুকি রয়েছে, তারা ধর্ম সুষ্ঠু ব্যাখ্যা পেয়ে আর এপথে ঝুঁকবেন না।

আমি মনে করি, তাদের নিয়ে এনজিওরা অনেক কাজ করতে পারে।

আইজিপি বলেন, ২০১৬ সালের পরে আমাদের দেশে বেশ কিছু অভিযান হয়েছে। আমরা জঙ্গীদের এনকাউন্টার করেছি, ধংস করেছি বলেই এখন এর সুফল ভোগ করছি। কিন্তু বাইরে থেকে আমরা উগ্রবাদীদের চিহ্নিত করি, মামলা দেই, গ্রেফতার করে জেলে ঢুকাই। কিন্তু সেখানে গিয়ে তাদের সংশোধন হচ্ছে না।

তিনি বলেন, উগ্রবাদের মতো ধ্বংসাত্মক একটি বিষয় মোকাবেলা করার জন্য শুধু আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একার পক্ষে সম্ভব না। সমন্বিত প্রয়াসই উগ্রবাদিতা মোকাবেলা করতে পারে।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ( ডিএমপি ) কমিশনার মোঃ শফিকুল ইসলাম, ডিএমপি সিটিটিসির প্রধান ও ডিআইজি মনিরুল ইসলাম ও ডিএমপি ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার আব্দুল বাতেন সহ অনেক।
মোঃ মাসুদ হাসান মোল্লা রিদম,
ঢাকা,মঙ্গলবার,১০ ডিসেম্বর,এইচ বি নিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম।

Facebook Comments

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বশেষ আপডেট



সর্বাধিক পঠিত



সম্পাদক-কাজী আবু তাহের মো. নাছির।
নির্বাহী সম্পাদক,আফতাব খন্দকার (রনি)

ফোন:+88 01714043198

গ-১০৩/২ মধ্যবাড্ডা লিংকরোড ঢাকা-১২১২
Email: hbnews24@gmail.com

© Copyright BY HBnews24.Com

Desing & Developed BY PopularITLtd.Com